যুবরাজ, বিরাট কোহলিকে নিয়ে দিলেন এই চাঞ্চল্যকর বয়ান, এই ভয়ের কারণে বিরাট নেন না বিশ্রাম

ভারতীয় দলের এক সময়ের সিক্সার কিং নামে পরিচিত যুবরাজ সিং জানিয়েছেন যে এই কারণে ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা বিশ্রাম নিতে ভয় পান, এই কারণ জেনে এখন সমস্ত ক্রিকেট সমর্থকরা অবাক হয়ে যাবেন। সম্প্রতিই ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি এই বছরের শুরুতে বিশ্রাম নিয়েছিলেন, এই অবস্থা কোহলিরও কি এই বিষয়ে ভয় ছিল, আসুন জেনে নেওয়া যাক।

জায়গা হারানো নিয়ে ভয় পান খেলোয়াড়রা

যুবরাজ, বিরাট কোহলিকে নিয়ে দিলেন এই চাঞ্চল্যকর বয়ান, এই ভয়ের কারণে বিরাট নেন না বিশ্রাম 1

ভারতের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান যুবরাজ সিং সোমবার দাবী করেছেন যে দেশের ক্রিকেটাররা নিজেদের জায়গা হারানোর ভয়ের কারণ সত্ত্বেও খেলার জন্য অসহায়তা অনুভব করেন, এই পরিস্থিতিতে তাদের আশা যে বিসিসিআইয়ের সভাপতি হিসেবে সৌরভ গাঙ্গুলী কিছু পরিবর্তন অবশ্যই করবেন। তিনি এই বিষয়ে বলেন,

“বেশ কয়েকবার আমাদের ক্রিকেট খেলার জন্য বলা হয়, যদিও আমরা খেলার পরিস্থিতিতে থাকি না, তাও আমাদের এমন চাপেও খেলতে হয়, কারণ আমাদের ভেতর ভয় রয়েছে যে যদি আমরা কথা না মানি তো আমাদের মত খেলোয়াড়দের চাপে পড়তে হয় যতই তারা ক্লান্ত হোক বা তাদের চোট লাগুক। কোনো ব্যক্তি যিনি একজন সফল অধিনায়ক থেকেছেন, এমন একজন খেলোয়াড়ের দৃষ্টিকোণ থেকে ক্রিকেটকে চালাবেন যেখানে ক্রিকেটারদের চিন্তাগুলিকে শোনা হতে পারে, এমনটা আগে হত না, ওরা নির্ণয় নেবেন আর ক্রিকেটারদের উপর কোনো চাপ তৈরি করা হবে না”।

বিদেশী খেলোয়াড়দের দিয়েছেন উদাহরণ

যুবরাজ, বিরাট কোহলিকে নিয়ে দিলেন এই চাঞ্চল্যকর বয়ান, এই ভয়ের কারণে বিরাট নেন না বিশ্রাম 2

যুবরাজ সিং অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড় গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের উদাহরণ দিয়েছেন, যিনি মানসিক স্বাস্থ্যের সমস্যা থেকে সমাধানের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ব্রেক নিয়েছেন আর তিনি নিজের বোর্ডের সমর্থন পেয়েছেন। যুবরাজ বলেন,

“খেলোয়াড় সমর্থন দেওয়া উচিৎ, আমরা ভারতের বাইরে দেখি, যদি খেলোয়াড়রা মানসিকভাবে ক্লান্ত থাকেন, যেমনটা (গ্লেন) ম্যাক্সওয়েলের বিষয়, তো তিনি ব্রেক নিয়েছেন, কারণ তিনি এটা অনুভব করছেন, আমাদের খেলোয়াড়রা এমনটা করতে পারেন না কারণ ওদের ভয় রয়েছে যে ওরা নিজেদের জায়গা হারাতে পারেন। এই কারণে খেলোয়াড়দের যোগাযোগ গুরুত্বপূর্ণ”।

যুবরাজ সিং বলেছেন তার আশা রয়েছে যে বিসিসিআইয়ের গাঙ্গুলীর সঙ্গে কাজ করায় অনেক পরিবর্তন আসবে কারণ খেলোয়াড়দের খালি প্রশাসকদের কথা শোনার জায়গায় এখন খেলোয়াড়দের কথা শোনা হবে যা আগে হত। যুবরাজ বলেন,

“আমি সৌরভের সঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেটে মহান জিনিসকে দেখছি, ক্রিকেট, প্রশাসনের দৃষ্টিকোণে থেকে আর ক্রিকেটারদের দৃষ্টিকোণ দুটি আলাদা আলাদা বিষয়”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *