টেস্ট ক্রিকেটে একটি দেশের সর্বাধিক উইকেট পাওয়া বোলার তালিকা 1
Prev1 of 5
Use your ← → (arrow) keys to browse

প্রতিটা ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে তারা নিজেদের দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে অভিষেক করবেন। ক্রিকেট ইতিহাসে আমরা এরকম বহু ক্রিকেটারদের দেখে থাকি যারা জাতীয় দলের হয়ে একদিবসীয় এবং টি-২০ ম্যাচ খেললেও টেস্ট ক্রিকেটে কখনোই তারা অভিষেক করতে পারেননি। ক্রিকেট ইতিহাসে টেস্ট ক্রিকেট হলো এমন একটি ফরম্যাট যেখানে বোলাররা কৃপণ বোলিং করে ব্যাটসম্যানদের যেমন রান করার সুযোগ দেননা, ঠিক তেমনি তারা ব্যাটসম্যানদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিয়ে থাকেন। তাই টেস্ট ক্রিকেটকে ক্রিকেট ইতিহাসের লম্বা এবং কঠিন ফরম্যাট হিসাবে মানা হয়ে থাকে। বর্তমানে আধুনিক যুগের ক্রিকেটে টেস্ট ক্রিকেটের কদর কমে যাবার ফলে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সমস্থা আইসিসি “World Test Championship” নামক এক প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে।

Read More: রবীন্দ্র জাদেজার পাঁচে নামা নিয়ে ক্ষিপ্ত হলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকর! যোগ্যতা নিয়ে তুললেন প্রশ্ন

এই প্রতিযোগিতার মাধ্যম দিয়ে আইসিসি বিশ্বের প্রতিটা টেস্ট ক্রিকেট খেলা টিম দলগুলিকে অংশগ্রহন করতে বাধ্য করেছে যাতে করে টেস্ট ক্রিকেটের আকর্ষণ আবার পুনরায় আগের মতো জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারে। আমরা এখানে এমন ৫ জন বোলারদের নিয়ে আলোচনা করবো যারা নিজেদের দেশের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সব থেকে বেশি উইকেট শিকার করেছেন।

পাঁচ দুর্দান্ত বোলার, যারা টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন

মুথাইয়া মুরলীধরণ

টেস্ট ক্রিকেটে একটি দেশের সর্বাধিক উইকেট পাওয়া বোলার তালিকা 2

১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া বিশ্ব শ্রেষ্ট্র স্পিনার তথা বোলারের নাম মুরলীধরণ। স্পিন ক্রিকেটের দুনিয়াতে দুসরা নামক অস্ত্রের আবিষ্কার করেছিলেন মুরলীধরণ। প্রাক্তন শ্রীলংকান এই স্পিনার হলের বিশ্ব ক্রিকেটের একমাত্র বোলার যিনি টেস্ট ক্রিকেটে শ্রীলংকা দলের হয়ে ৮০০ টি উইকেট নিয়েছিলেন। বিশ্ব ক্রিকেটের এই সর্বশ্রেষ্ট বোলার ২০১১ সালে একদিবসীয় ক্রিকেটের বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেন।মুরলীধরণ তার এই ৮০০টি টেস্ট উইকেটের মধ্যে নিজের দেশের মাটিতে ৭৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৪৯৩টি উইকেট সংগ্রহ করেছিলেন।

Prev1 of 5
Use your ← → (arrow) keys to browse

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *