কুনাল পান্ডিয়া ফাস করে দিলেন হার্দিক পান্ডিয়ার প্রতিজ্ঞা 1

কুনাল পান্ডিয়া ফাস করে দিলেন হার্দিক পান্ডিয়ার প্রতিজ্ঞা 2

নাগপুরে সিরিজের শেষ ম্যাচেও অস্ট্রেলিয়া কে পাত্তা ই দিল না স্বাগতিক ভারত। যেন শ্রীলঙ্কায় যেখানে শেষ করছিল সেখান থেকে ই শুরু করল নিজ মাঠে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। শেষ ম্যাচ জয়ের পর ভারতের অধিনায়ক জানিয়েছেন এভাবে সিরিজ জয়ের ফলে তারা অনেক স্বস্তিতে আছে। এই জয় তাদের বিশ্বাসকে আরো দৃঢ় করবে। ৪-১ ব্যবধানে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষ সিরিজ জয়ী ভারত বর্তমানে ওয়ানডে ক্রিকেটে আইসিসির পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করছে।

ভারতের এই অসাধারন জয়ে কার্যকারী ভূমিকা ছিল বরোদার অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়ার, ব্যাট হাতে ২২২ রান করার পাশাপাশি বল হাতে ৬ উইকেট তুলে নিয়ে হোন সিরিজের সেরা খেলোয়ার। প্রথম বারের মত সিরিজ সেরা হওয়া হার্দিক পান্ডিয়ার সিরিজ শুরু আগে কি প্রতিজ্ঞা ছিল তা জানিয়েছেন তার ই বড় ভাই কুনাল পান্ডিয়া। কুনাল পান্ডিয়া আনন্দিত হয়ে টুইট করেন বল এবং ব্যাট হাতে নিজেকে চিনিয়ে দেওয়ার যে প্রতিজ্ঞা হার্দিক পান্ডিয়া সিরিজ শুরু আগে করেছিলেন তা পূর্ণ করেছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজে ভারতীয় দলের সেরা আবিষ্কার অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। দলের তরুণ এই খেলোয়াড় সম্পর্কে প্রশংসা করে অধিনায়ক কোহলি এই কথা বলেন। হার্দিক পান্ডিয়া এই সিরিজের সবচেয়ে বড় সম্পদ। অধিনায়কহিসেবে দল নির্বাচন নিয়ে দ্বিধা, চিন্তা সবসময় ভাল। কারণ, অনেকজন ভাল ক্রিকেটারের মধ্যে থেকে সেরা ১১ জনকে বেছে নেওয়া সবচেয়ে ভাল।

ভারতীয় অধিনায়ক কোহলী বলেন, “ভূবেনশ্বর ও বুমরা অসাধারন বোলার, তাদের মান অনেক ভাল। যখন ই আমরা ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েছি তখন ই তারা আমাদের ম্যাচে ফিরিয়ে এনেছেন। হার্দিক পান্ডিয়া একজন অসাধারন অলরাউন্ডার। সে দলের জন্য অনেক বড় সম্পদ। দলের সবাই মিলে অনেক ভাল খেলেছে এবং অধিনায়ক হিসেবে আমার কাজ সহজ করে দিয়েছে।” এদিকে হার্দিক পান্ডিয়া নিজে বলেছেন, “আমার খেলায় উন্নতির যথেষ্ট অবকাশ রয়েছে। আমি সবসময় মনে করি, প্রতিদিন উন্নতি করতে পারি। সব ম্যাচে ফিট থাকা সহজ নয়। তাই ফিটনেসের উন্নতির জন্য পরিশ্রম করছি।” সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৮৭ রানে ৫ উইকেট হারানো ভারত হার্দিক পান্ডিয়ার ক্যারিয়ার সেরা ৮৩ রানে ভর করে সম্মানজনক রান করে। স্টিভ স্মিথের উইকেটসহ তুলে নেন দুটি উইকেটও। তৃতীয় ম্যাচে ব্যাটিং অর্ডারে উন্নতি পেয়ে ৪ এ নেমে ম্যাচ জয়ী ৭৮ রান করার আগে দ্বিতীয় ম্যাচেও দুই উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে করেছিলেন ২০ রান। ছোট ভাইয়ের এমন সাফল্যে বড় ভাইর খুশি হওয়া ই তো স্বাভাবিক!

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *