২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারতের অধিনায়ক কোহলি! 1

মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক বলা হয়। নজরকাড়া নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে তিনি দুই দু’টি বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়নস ট্রফি-সহ প্রচুর ট্রফি এনে দিয়েছেন। তবে সাম্প্রতীক অতীতে তাঁর কাছ থেকে তেমন একটা উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্স উপহার পায়নি দেশের ক্রিকেটের পাশাপাশি গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক দিনের সিরিজেও ব্যাট হাতে ধোনি বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারেননি। এই অবস্থায় তিনি আর কতদিন খেলা চালিয়ে যাবেন? তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালেই যখন তিনি টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফেলেন। তার পর থেকে ক্রমে পারফরম্যান্সের গ্রাফ নিম্নমুখি হওয়া ধোনিকে সীমিত ওভার ক্রিকেট থেকেও সরে যাওয়ার জন্য অনেকেই আওয়াজ তোলেন। যদিও সেই সময় ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকর অবশ্য ধোনির পাশেই দাঁড়িয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “ক্রিকেট থেকে অবসরের নেওয়ার বিষয়টা সম্পূর্ণ ধোনির ওপরই ছেড়ে দেওয়া উচিত।” তাঁর মধ্যে এখনও ফিটনেসের কোনও কমতি দেখছেন না শচীন। শুধুমাত্র বয়স বাড়ছে বলেই অবসর নিতে হবে, সেই যুক্তিকে অবশ্য সরাসরি খন্ডন করেছিলেন খোদ মাস্টার ব্লাস্টার।

এই আবহাওয়ার মধ্যেই বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া। তাঁর মতে, যদি নির্বাচকরা মনে করেন ২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে ধোনি দলকে নেতৃত্ব দিতে পারবেন না, তাই এখন থেকেই তাঁর বিকল্পের কথা ভাবা উচিত। পাশাপাশি ধোনির পরিবর্তে বিরাট কোহলির কাঁধে সীমিত ওভার ক্রিকেটের অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি। সেক্ষেত্রে এই সিদ্ধান্তটা ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পরেই নেওয়া উচিত বলে জানালেন আকাশ চোপড়া। যাতে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের আগে কোহলি আরও ২ বছর হাতে পান।

এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সবথেকে বড় নাম হল বিরাট কোহলি। সাম্প্রতিক সময়ে তাঁর পারফরমেন্সে মুগ্ধ গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। বলা বাহুল্য, টেস্টে দলকে তিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেশ পারদর্শিতার সঙ্গেই। এখন প্রশ্ন হল, ওয়ান ডে-তেও কি নেতৃত্ব দিয়ে তিনি সমানভাবে সফল হতে পারবেন? ওয়াকিবহাল মহলে অবশ্য ইতিমধ্যেই এই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।এর থেকেও বড় প্রশ্নটা আপাতত ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ মাথায় ঘুরছে। কোহলি নেতৃত্ব দিলে কি তাঁর নেতৃত্বে আদৌ খেলবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি? আকাশ অবশ্য মনে করেন, এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। ভারত বনাম ইংল্যান্ডের শেষ টেস্টে ধারভাষ্যের সময়ে তিনি বলেছিলেন, “একদিনের খেলাতে কোহলির নেতৃত্বে ধোনি খেলতেই পারেন। এতে অসুবিধের কিছুই নেই।” বলা বাহুল্য, তিনি এর মধ্যে অসুবিধে না দেখলেও ধোনির অনুগামীরা বিষয়টিকে কিন্তু ভালোভাবে নেননি। স্বয়ং ধোনি কীভাবে নিয়েছেন বিষয়টিকে, তা অবশ্য এখনও জানা যায়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *