পাক ক্রিকেটারের মতিভ্রম, নিজের তুলনা টানল কোহলির সঙ্গে 1
কামরান আকমল

শুধুমাত্র ময়ূরপুচ্ছ লাগালেই যেমন ময়ূর হওয়া যায় না, তেমনই ব্যাট হাতে দুটো ওভার বাউন্ডারি মারলেই বিরাট কোহলি হওয়া যায় না।২০১৫-এর বিশ্বকাপে ভারত পাকিস্থান ম্যাচে কার্যত কোনঠাসা হয়ে পড়েছিল ভারত।পাকিস্থানের দূদ্ধর্ষ বোলিং এর সামনে তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়েছিল ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপ। নিশ্চিত হারের মুখ থেকে বীরের মত একা লড়াই করে জয় ছিনিয়ে এনেছিলেন যে ক্রিকেটার, তাঁর নাম বিরাট কোহলি। কোহলির সেই মারাত্মক পারফরম্যান্স দেখে কমেন্ট্রি বক্সে বসেই কিংবদন্তী ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেহবাগ বলেছিলেন, ‘পাকিস্থানকো গোলি সে নেহি, কোহলিসে ডর লাগতা হ্যায়।’

পাক ক্রিকেটারের মতিভ্রম, নিজের তুলনা টানল কোহলির সঙ্গে 2
বিরাটের ব্যাটে বিদ্ধস্ত পাকিস্থান

কালের প্রবাহে প্রত্যক্ষ সাক্ষী কামরান আকমল হয়তো সেই দিনের কথা ভুলেই গিয়েছেন। তাই তিনি যেটা করলেন, তা দেখে মিচকে হাসা ছাড়া কোনও উপায় থাকে না। ডানহাতি এই পাক ব্যাটসম্যান সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘অনেকেই কোহলির সঙ্গে আমার তুলনা করেন, সেটা ঠিক নয়। কারণ, দু’জনের ব্যাটং পজিশনটাই আলাদা। কোহলি অভিষেকের পর থেকেই তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামেন, আর আমি ছ’নম্বরে।আগে ওকে ছ’নম্বরে ও আমাকে তিন’নম্বরেনো ব্যাট করতে পাঠানো হোক।’ আকমলের এই বিস্ফোরক মন্তব্যে হতবাক সবাই। সারা বিশ্ব যেখানে কোহলিকে গেম চেঞ্জার হিসেবে মেনে নিয়েছে, সেখানে তাঁকে নিয়েই নিজের তুলনা করলেন এমন একজন যিনি নিজের দলের প্রয়োজনে রান করতে পারেননা বলেই তাঁর দলের তরফে অভিযোগ।
শুধু নিজের সঙ্গেই নয়, আকমল কোহলির সঙ্গে পাক দলে নবাগত তারকা বাবর আজমের। পাক উইকিপারের বক্তব্য, ‘আমাদের বাবর আজম এখন তিন নম্বরে ভালই ফর্মে আছেন।তাই ওকে কোহলির সঙ্গে তুলনা করা যায়।’ একবার নয়, দলের প্রয়োজনে বারবার নিজেকে প্রমাণ করার নামই ক্রিকেট। আর সেই কাজটাই নিরন্তর করে চলেছে কোহলি। কাজেই আকমলের এই উক্তিগুলি স্রেফ মতিভ্রম ছাড়া আর কিছুই বলা চলে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *