RCBvsKXIP: কেএল রাহুল নিজের চেয়ে বেশি এই খেলোয়াড়কে দিলেন জয়ের শ্রেয় 1

আইপিএল ২০২০-র ষষ্ঠ ম্যাচ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মধ্যে দুবাইয়ের দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা হয়েছে, যেখানে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে পাঞ্জাবের দল একতরফা ম্যাচে ৯৭ রানে হারিয়ে দিয়েছে। এই ম্যাচে কেএল রাহুল ১৩২ রানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন। এই জয়ে রাহুলকে যথেষ্ট খুশি দেখিয়েছে আর তিনি নিজের পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে তরুণ খেলোয়াড় রবি বিষ্ণোইয়ের জমিয়ে প্রশংসা করেছেন।

সামনের ম্যাচগুলিতেও এই ভাবে খেলতে চাই

RCBvsKXIP: কেএল রাহুল নিজের চেয়ে বেশি এই খেলোয়াড়কে দিলেন জয়ের শ্রেয় 2

কেএল রাহুল নিজের পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে বলেন, “আমার বাস্তবে এতটা বিশ্বাস হচ্ছে না যে আমি বলকে এতটা ভালোভাবে হিট করতে পারছি। আমি কাল ম্যাক্সির সঙ্গে একটি চ্যাট করি, তিনি বলেন যে তুমি কেমন অনুভব করছো, আমি বলি যে আমি নিজের ব্যাটিংকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারছি না, ও বলে যে তুমি মজা করছো, তুমি বাস্তবে ভালো খেলছো। আমি জানতাম যে যদি আমি মাঝে সময় কাটাই তো ব্যাটের মাঝখান দিয়ে কিছু বলকে মারতে পারি আর আমি খুশি যে আমি এমনটা করতে সফল হয়েছি। আমি সামনের ম্যাচগুলিতেও এইভাবে খেলতে চাই”।

আরসিবির জন্য আগেই করেছিলাম পরিকল্পনা

RCBvsKXIP: কেএল রাহুল নিজের চেয়ে বেশি এই খেলোয়াড়কে দিলেন জয়ের শ্রেয় 3

কেএল রাহুল আগে নিজের বয়ানে বলেন, “একবার যখন আমি টসের জন্য আসি, তখনই আমি অধিনায়ক হিসেবে অনুভব করি, আর অন্যথায় আমি একজন খেলোয়াড় আর অধিনায়ক হওয়ার দরুন ভারসাম্য তৈরি করার চেষ্টা করি। জয় পুরো দলের একজোটের প্রয়াসে পাওয়া যায়, এই কারণে এতে সকলের যোগদান রয়েছে। এই খেলায় নামার আমাদের কিছু আলাদা পরিকল্পনা ছিল। আমরা জানতাম যে আরসিবির কাছে একটা পাওয়ার প্যাক ব্যাটিং লাইন রয়েছে আর আমাদের ২-৩টি উইকেট নিতে হবে, এর মানে বোর্ডে রানও করতে হবে। আমরা জানতাম যে যদি ওরা সেট হয়ে যায় তো ওরা কী করতে পারে। আমাদের বিশ্লেষক, কোচ আর ম্যানেজমেন্ট এই জয়ে খুশি হবেন”।

আমাকে রবি বিষ্ণোই প্রভাবিত করেছে

RCBvsKXIP: কেএল রাহুল নিজের চেয়ে বেশি এই খেলোয়াড়কে দিলেন জয়ের শ্রেয় 4

রবি বিষ্ণোইয়ের প্রশংসা করে কিংস অধিনায়ক রাহুল বলেন যে, “এমন কোনোকিছু যদি আমাকে প্রভাবিত করে থাকে তা হল প্রথম ওভারে রান দেওয়ার পর রবি বিষ্ণোইয়ের প্রত্যাবর্তন করা। আমি ওকে অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে দেখেছি, প্রত্যেকবার যখনা আমি বল দিই, তো ও ভালো প্রদর্শন করতে চায়। তবে নিজের ব্যর্থ ওভারে ও ফিঞ্চ আর এবির মতো মানুষদের বোলিং করতে সামান্য ঘাবড়ে গিয়েছিল”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *