শনিবার সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে কেমন দল নিয়ে নামছে কেকেআর? একবার দেখে নেওয়া যাক 1

প্রথম ম্যাচে ঐতিহাসিক জয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে পরাজয়ের মুখ দেখতে হয়েছে কলকাতা নাইটা রাইডার্সকে। মুম্বইয়ের ঘরের মাঠে কার্যত জেতা ম্যাচ খারাপ বোলিং ও ফিল্ডিংয়ের জন্য হারাতে হয় এই ফ্রাঞ্চাইজিকে। কিন্তু সেই হারের থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেদের মাঠে কিংগস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে দারুণ খেলে আবারও জয়ে মুখ দেখেছে গৌতম গম্ভীরের দল। এই জয়ের ফলে তিনটি ম্যাচের দুটিতে জিতে আপাতত পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে রয়েছে কেকেআর।
দুবারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কলকাতা, এবারও চ্যাম্পিয়ন হতেই মরিয়া। এবছরে কেকেআরের ঘরে আইপিএলের ট্রফি উঠলে, সব থেকে বেশি বার এই খেতাব পাওয়ার রেকর্ড করবে তারা। আর এই সোনার সুযোগ হাতছাড়া করতে চান না কেকেআরের টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই মাঝে মধ্যেই বেশ চমক দেখা যাচ্ছে এই দলের ম্যাচে। প্রথম চমক আসে ক্রিস লিনকে ওপেন করতে পাঠিয়ে। বরাবরই রবীন উথাপ্পা অধিনায়কের সঙ্গে ওপেন করতে নামতেন। কিন্তু এই বছর প্রথম ম্যাচে সেই দৃশ্য দেখা যায়নি। তবে ক্রিস লিনের অসাশারণ প্রদর্শনে এই গবেষণা সফল হয়েছিল। তৃ্তীয় ম্যাচেও দেখা গেল এমনই এক চমক। স্পিনার সুনীল নারিনকে ওপেন করতে দেখে সবাই চমকে যান। মাত্র ১৮ বলে ৩৭ রান করে তিনি সবাইকে আরও চমকে দেওয়ার মত এক ঝোড়ো ইনিংস খেলে যান।

ম্যাচ শুরুর আগেই আগুন প্রেস বক্সে, আতঙ্কে হুড়োহুড়ি গোটা ইডেন জুড়ে!


ব্যাটিংয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও অসুবিধা দেখা যায়নি কেকেআরে। কারণ অধিনায়কও বেশ ফর্মে আছেন। খারাপ বোলিংয়ের বিষয়টি যদিও ভাবাচ্ছে এই দলকে। তবে ইতিমধ্যেই উমেশ যাদব ফিরে আসায় সমস্যা অনেকটা কাটিয়ে উঠতে পেরেছে কেকেআর। কূলদ্বীপ যাদবের জায়গায় পীয়ূস চাওলাকেও দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
শনিবার কলকাতার মাঠে সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে খেলতে নামছে কেকেআর। আপাতদৃষ্টিতে ভারসাম্য এই দল, আরও একটা জয় পেতে চাইছে সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে।আইপিএলে গত চার বছরে মোট ৯ বার সানরাইজার্সের মুখোমুখি হয়েছে কেকেআরে। এর মধ্যে ৬টি ম্যাচে জিতেছে ও তিনটিতে হেরেছে। কাজেই পরিসংখ্যান অনুযায়ী কেকেআরের পাল্লাই ভাড়ি। তবে হায়দরাবাদের এই দলের বোলিং ও ব্যাটিং বিভাগ বেশ শক্তিশালী। তাই কেকেআরকে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করতেই হবে। একবার দেখে নেওয়া যাক কাকে কাকে খেলাতে পারে কেকেআর এদিন।

ধোনি ভাল টি টোয়েন্টি ক্রিকেটার নয়, বললেন প্রাক্তণ অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়


গৌতম গম্ভীর (অধিনায়ক), রবীন উথাপ্পা (উইকেটকিপার), মনীষ পান্ডে, ইউসুফ পাঠান, সূর্যকুমার যাদব, কলিন দে গ্রান্ডহোম, ক্রিস ওকস, সুনীল নারিন, পীয়ূস চাওলা, ট্রেন্ট বোল্ট, উমেশ যাদব

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *