শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করার পর যা বললেন বিরাট কোহলি 1

 

যা প্রত্যাশা ছিল, সেটাই হল৷ পাঁচ ম্যাচের সিরিজের পাঁচটিতেই জয় পেল ভারতীয় দল। রোববার কলম্বোর প্রেমদাসা স্টেডিয়ামে ছ’উইকেটে জয় পেল ভারত। শ্রীলঙ্কার দেওয়া ২৩৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে অধিনায়ক বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিতে সহজ জয় পেল ভারত। যদিও রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল ভারত। শিখর ধাওয়ানের পরিবর্তে দলে সুযোগ পেয়ে ওপেন করতে নামেন অজিঙ্ক রাহানে। কিন্তু মাত্র ৫ রানেই ফিরে যান তিনি। বেশিক্ষণ ক্রিজে ছিলেন না রোহিত শর্মাও। আগের দিনের শতরানকারী রোহিত ফিরে যান ১৬ রানে। এরপর প্রথমে মনীশ পাণ্ডে (৩৬) এবং পরে কেদার যাদবকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন ভারত অধিনায়ক। তবে জয়ের থেকে ভারত যখন মাত্র দু’রান দূরে তখনই ফিরে যান কেদার যাদব(৬৩)। অধিনায়ক কোহলির সংগ্রহ ১১৬ বলে ১১০ রান। বিরাটের সঙ্গে ১ রান করে অপরাজিত থাকেন ধোনি। শ্রীলঙ্কান বোলারদের মধ্যে কেউই তেমন দাগ কাটতে পারেননি।

এর আগে দিনের শুরুতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক উপুল থরাঙ্গা। কিন্তু ভারতীয় বোলারদের দাপটে শুরুতেই ফিরে যান ডিকওয়েলা(২)। এরপর ক্রিজে আসা মুনাওয়েরাও(৪) আউট হন দ্রুত। এরপরই দলের হাল ধরেন থরাঙ্গা এবং লাহিরু থিরিমানে। ৪৮ রানে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক আউট হলে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ(৫৫) এবং থিরিমানে(৬৭) দলের রানকে এগিয়ে নিয়ে যান। কিন্তু এই দু’জন আউট হতেই ভারতীয় বোলাররা ম্যাচে জাঁকিয়ে বসেন। স্বাগতিদকদের শেষের ঝড় তুলতে দেননি প্রথমবারের মতো পাঁচ উইকেট নেওয়া ভুবেনেশ্বর কুমার। তার দারুণ বোলিংয়ে ৫৩ রানে শেষ ৭ উইকেট হারিয়ে আড়াইশ পর্যন্ত যেতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। শেষপর্যন্ত পুরো ৫০ ওভার না খেলে ২৩৮ রানে অলআউট হয়ে যায় লঙ্কাবাহিনী। ৪২ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ভারতের সেরা বোলার ভুবনেশ্বর। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন তিনিই। সিরিজ সেরা হয়েছেন আরেক পেসার জাসপ্রিত বুমরাহ। এই ম্যাচের দুটিসহ সব মিলিয়ে নিয়েছেন ১৫ উইকেট। ৫ ম্যাচের সিরিজে এত উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব নেই আর কোনো পেসারের।

দেখে নিন দলের এই অসাধারণ জয় নিয়ে কি বললেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি : “৫-০ তে সিরিজ জিততে পারাটা খুবই দারুণ একটা ব্যাপার। আমরা সব সময়ই ভেবেছিলাম সীমিত ওভারের সিরিজটি আমাদের জন্য কঠিন হবে যেতা। কিন্তু সব কৃতিত্ব ছেলেদের। যশি দারুন ছিল, স্পিনাররাও সিরিজে জুড়ে দারুন ছিল। হার্ডিকও সাহায্য করেছে। আমরা অসাধারণ কিছু ক্রিকেট খেলেছি। কথা হচ্ছিল যে, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আমরা টানা ৩ ম্যাচের বেশি জিততে না পারার কথা। কিন্তু এখন আমরা ৫ টি জিতেছি। আসলে ৬ টি! কারণ আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজেও একটি ম্যাচ জিতেছিলাম। আশা করবো এই ফর্মটা আমরা ধরে রাখবো এবং অস্ট্রেলিয়ার সাথে সিরিজেও ভালো খেলবো।”

শ্রীলঙ্কার আতিথেয়তারও ভূয়সী প্রশংসা করেন এই তারকা ক্রিকেটার, “দারুণ আতিথেয়তা পেয়েছি এখানকার মানুষের থেকে। তারা আপনাকে ভালোবাসে, তারা আপনি যা করেন তার প্রশংসা করে। খুবই সুন্দর জায়গা। তারা সবসময় হাসি খুশি কিন্তু কখনই আপনার গোপনীয়তা মধ্যে বাধার সৃষ্টি করে না। আমরা ভবিষ্যতে অবশ্যই আবার এখানে আসতে চাইবো।”

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *