বিসিসিআই ও ইংরেজ ভক্তদের জন্য অসম্মানজনক হবে যদি এমনটা না হয়, কড়া বার্তা পিটারসেনের 1

ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল এই মুহুর্তে শ্রীলঙ্কায় রয়েছে এবং দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের শেষ টেস্ট খেলছে। এর পরে ইংল্যান্ড দল ভারতে পৌঁছে যাবে, যেখানে ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে চার টেস্টের সিরিজ খেলা শুরু হবে। উভয় দেশের ক্রিকেট অনুরাগীরা এই টেস্ট সিরিজের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। অ্যাওয়ে টেস্ট সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে টিম ইন্ডিয়া দেশে ফিরেছে, এদিকে ইংল্যান্ড দলটি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টটি সহজেই জিতেছিল।

Sri Lanka vs England Highlights: England lead by 278 at stumps on Day 3 |  Sports News,The Indian Express

এমন পরিস্থিতিতে উভয় দলের আত্মবিশ্বাস অনেক বেশি। এই পরিস্থিতিতে ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার কেভিন পিটারসেন এই সিরিজটি নিয়ে উচ্ছ্বসিত। তিনি ভারত এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে টেস্ট সিরিজটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত কিছু পোস্ট করে যাচ্ছেন। সাবেক ইংরেজ অধিনায়ক কেভিন পিটারসেন শনিবার স্পিন বোলিংয়ের কৌশলগুলি ভাগ করে দিয়েছেন যা কিছু বছর আগে রাহুল দ্রাবিড় তাকে দিয়েছিলেন। ২০১৭ সালে ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান দ্রাবিড়ের তরফ থেকে পাঠানো একটি ইমেল শেয়ার করে পিটারসেন ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডকে (ইসিবি) দুই তরুণ ক্রিকেটার ডম সিবলে এবং জ্যাক ক্রলির হাতে তুলে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

আর এবার তিনি সংশয় প্রকাশ করছেন, আদৌ শক্তিশালী ভারতের বিরুদ্ধে নিজেদের প্রথম সারির দল নামাবে কিনা ইংল্যান্ড। জনি বেয়ারস্টোকে বাদ দেওয়া নিয়ে তিনি অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এদিকে স্টুয়ার্ট ব্রড ও জেমস অ্যান্ডারসনকেও খেলানোর কথা বলছেন পিটারসেন। এদিকে এই ইংল্যান্ড দলকে হারাতে না পারলে ভারতের লজ্জা, সেও ব্যাখ্যা করেন পিটারসেন। এই নিইয়ে কেভিন পিটারসেন নিজের টুইটারে লিখেছেন, “সবচেয়ে বেশি আলোচিত বিষয় হল ইংল্যান্ড ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচের জন্য নিজেদের সেরা দলকে বেছে নিয়েছে কি না। ভারতে জয়ের ততটাই আনন্দ যেমন অস্ট্রেলিয়ায় জয়ের। ইংল্যান্ড যদি তাদের সেরা দলের সাথে না খেলে তবে ইংল্যান্ড ভক্ত এবং বিসিসিআইয়ের জন্য এটি অসম্মানজনক হবে। জনি বেয়ারস্টোকে খেলতে হবে। ব্রড/অ্যান্ডারসনকে খেলাতে হবে।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *