বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব এই খেলোয়ড়কে বললেন কুলচা জুটির চেয়ে ভালো বিকল্প

ভারতীয় ক্রিকেট দল গত কিছু বছরে ওয়ানডে ক্রিকেটে দারুণ প্রদর্শন করেছেন। ২০১৮র পর থেকে ভারত ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রত্যেকটি বিরোধী দলকেই হারাতে সফল হয়েছে। বিরাট কোহলির সেনার এই দারুণ সফলতায় একটি বিশেষ ভূমিকা রিস্ট স্পিনার জুটি যজুবেন্দ্র চহেল আর কুলদীপ যাদবের থেকেছে।

কুলদীপ যাদব আর যজুবেন্দ্র চহেল ছিলেন ভারতের স্থায়ী খেলোয়াড়

বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব এই খেলোয়ড়কে বললেন কুলচা জুটির চেয়ে ভালো বিকল্প 1

কুলদীপ যাদব আর যজুবেন্দ্র চহেলের যুগলবন্দী ওয়ানডে ক্রিকেটে ভারতীয় ক্রিকেট দলকে প্রত্যেক ম্যাচে বিজেতার মত এগিয়ে এসে জয় এনে দিয়েছে। এই দুই স্পিনারের স্পিন বিরোধী দলের জন্য ধাঁধা হয়ে উঠেছিল যা ভারতের জন্য লাভজনক থেকেছে। এই কারণেই প্লেয়িং ইলেভেনে এই জুটি নিয়মিত খেলার সফলতাও হাসিল করেছেন। কিন্তু যদি কথা বলা হয় আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ থেকে তো সেখান থেকেই সময় বদলেছে আর কুলদীপ যাদব আর যজুবেন্দ্র চহেল একসঙ্গে খেলতে পারছেন না।

রবীন্দ্র জাদেজার প্রদর্শনে কুলচা জুটি ভেঙেছে

বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব এই খেলোয়ড়কে বললেন কুলচা জুটির চেয়ে ভালো বিকল্প 2

ভারতের হয়ে কুলচা নামে জনপ্রিয়তা অর্জন করা কুলদীপ-চহেল ওয়ানডে ক্রিকেটে তবে থেকে একসঙ্গে প্লেয়িং ইলেভেনের অংশ হতে পারছেন যবে থেকে দ্বিতীয় স্পিনার হিসেবে রবীন্দ্র জাদেজা নিয়মিত ভালো প্রদর্শন করে চলেছেন। রবীন্দ্র জাদেজাকে তো এক সময় কুলদীপ যাদব আর যজুবেন্দ্র চহেলর রিস্ট স্পিনার জুটিই নিজেদের দুর্দান্ত প্রদর্শনের সৌজন্যে দল থেকে ছিটকে দিয়েছিলেন, কিন্তু জাদেজা নিজের প্রদর্শনের সৌজন্যে প্রত্যাবর্তন করেন আর তিনি এখন দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে গিয়েছেন।

কপিল দেব জাদেজাকে কুলচা জুটির চেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেছেন

বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব এই খেলোয়ড়কে বললেন কুলচা জুটির চেয়ে ভালো বিকল্প 3

রবীন্দ্র জাদেজা্র নিয়িমিত দুর্দান্ত অলরাউন্ডার প্রদর্শনের কারণে প্রাক্তন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিলদেব কুলচা জুটির চেয়ে রবীন্দ্র জাদেজাকে ভালো বলে প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন যে,

“জাদেজার ব্যাটিং আর ফিল্ডিং এতটা ভালো যে যদি কখনো কখনো বল হাতে সফলও না হয় তো সেদিকে কারো মনোযোগ যায় না। ও সেখানে অন্য স্পিনারদের চেয়ে ভালো স্কোর করে। যদি আপনি দুজন স্পেশালিস্ট স্পিনারকে খেলান তো এটা আপনার ব্যাটিংকে সামান্য কমজুরি করে দেয়। এটা বলা যে ভারতের জন্য ব্যাটিং বাস্তবে একটা সমস্যা হওয়া উচিত নয়, কিন্তু যখন প্রয়োজন পড়বে তো জাদেজা ব্যাট হাতে কাজ করতে পারেন আর ওর দেরী করে আসা অপরিহার্যও”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *