হার্দিক পাণ্ডিয়া আরও একবার শিরোনামে উঠে এলেন, যার কারণ হলো সীমান্ত পার থেকে আসা একটি বয়ান। ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে সম্প্রতিই সীমিত ওভারের দুটি সিরিজ শেষ হয়েছে ওয়ানডে আর টি-২০, দুই সিরিজেই ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে দুর্দান্ত ক্রিকেট দেখতে পাওয়া গিয়েছে। তিন ম্যাচের ওয়ানডে আর তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের শুরু ম্যাচ থেকেই আন্দাজ পাওয়া গিয়েছিল যে বাকি সিরিজে কোন দলের পাল্লা ভারি থাকবে। যদিও দর্শকদের দুই দলের কাছ থেকে যে ধরণের ভালো ক্রিকেট দেখার আশা ছিল, তেমনই রোমাঞ্চ দেখতে পাওয়া গিয়েছিল।

হার্দিক জয় করেছেন মন

দানিশ কানোরিয়া হার্দিক পাণ্ডিয়ার প্রশংসা করে পাকিস্তান ক্রিকেটের উপর আনলেন গুরুতর অভিযোগ 1

সীমিত ওভারের সিরিজ শেষ হতেই হার্দিক পাণ্ডিয়া নিজের দুরন্ত প্রদর্শনে বেশকিছু ক্রিকেট এক্সপার্ট আর ক্রিকেট সমর্থকদের মন জয় করে নিয়েছেন। পাণ্ডিয়া না শুধু তার দুর্দান্ত ক্রিকেটের জন্য বরং টি-২০ সিরিজের শেষে তার দুর্দান্ত স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের জন্যও মানুষের কাছে প্রশংসিত হয়েছেন। টি-২০ সিরিজের অলরাউন্ডার প্রদর্শনের জন্য হার্দিককে ম্যান অফ দ্যা সিরিজ নির্বাচিত করা হয়েছে। যদিও পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে হার্দিক পান্ডিয়া নিজের ম্যান অফ দ্যা সিরিজের ট্রফি তরুণ জোরে বোলার টি নটরাজনের হাতে দিয়ে দেন।

আমার জন্য নটরাজইন ম্যান অফ দ্য সিরিজ- পাণ্ডিয়া

বাঁহাতি বোলার নোতরাজন ওয়ানডে আর টি-২০ সিরিজ চলাকালীন দুর্দান্ত বোলিং করে কিছু গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি জরুরী রানও আটকেছেন। টি-২০ সিরিজে নটরাজন সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়া বোলার ছিলেন। ৩টি ম্যাচে তিনি ৬টি উইকেট নিয়েছিলেন। এছাড়া যে সিরিজে ব্যাট হাতে প্রচুর রান উঠছিল তাতেও নটরাজ যথেষ্ট কম ইকোনমি রেটে বোলিং করেন। ম্যান অফ দ্য সিরিজ হার্দিক পাণ্ডিয়া ম্যাচের পর টুইট করে বলেছিলেন যে তার জন্য ম্যান অফ দ্য সিরিজ নটরাজনই।

দানিশ কানোরিয়া করলেন পান্ডিয়ার প্রশংসা, পাকিস্তানের উপর সাধলেন নিশানা

এই ঘটনা নিয়ে পাকিস্তানের স্পিনার দানিশ কানোরিয়া এই সুযোগে হার্দিক পাণ্ডিয়ার জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। কানোরিয়া মেনে নিয়েছেন যে পান্ডিয়ার এই ব্যবহারের পর নটরাজন নিশ্চিতভাবেই নিয়মিত ভালো ক্রিকেট প্রদর্শন করার জন্য অনুপ্রেরণা পাবেন। এছাড়াও এই প্রাক্তন পাকিস্তানী বোলার হার্দিক পাণ্ডিয়ার প্রশংসার পাশাপাশি এই ব্যাপারে নিজের পাকিস্তান ক্রিকেটকেও দারুণ নিশানা বানিয়েছেন আর বলেছেন যে এমন ঘটনা কখনও এখানে দেখতে পাওয়া যাবে না কারণ এখানে প্রত্যেক খেলোয়াড় তো খালি নিজের ব্যাপারেই ভাবনা চিন্তা করেন। কানোরিয়া এই ব্যাপারে নিজের রায় দিতে গিয়ে বলেছেন যে, “এর চেয়ে ভাও ছবি হতেই পারে না, হার্দিক পান্ডিয়া না শুধু ম্যান অফ দ্য সিরিজ বরং মনও জয় করেছেন। নটরাজনের হাতে ট্রফি দিয়ে পাণ্ডিয়া এই তরুণ বোলারকে প্রেরণা দিতে আর খুশি করতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছেন। আমাদের কন প্লেয়ার কখনও এমনটা করেননি, এখানেই সকলেই নিজের ব্যাপারে ভাবেন। বাকি নটরাজনের প্রদর্শন সত্যিই প্রশংসার যোগ্য”।

Leave a comment

Your email address will not be published.