ভারতীয় দলের ফিল্ডিং কোচের জন্য বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ ফিল্ডার করলেন আবেদন 1

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন তারকা জন্টি রোডসের নাম টিম ইন্ডিয়ার ফিল্ডিং কোচের দৌড়ে সামনে এসেছে। বিশ্বকাপের শেষ হওয়ার সঙ্গেই ভারতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী আর পুরো কোচিং স্টাফের কার্যকাল শেষ হয়ে গিয়েছিল, কিন্তু ওয়েস্টইন্ডিজ সফরকে মাথায় রেখে সকলেরই কার্যকাল ৪৫ দিন পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হয়। বিসিসিআই টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচের সঙ্গে সঙ্গে বাকি পদগুলির জন্যও বিজ্ঞপ্তি জারি করে দিয়েছে আর ওয়েস্টইন্ডিজ সফর শেষ হওয়ার পর ভারতীয় দল তাদের নতুন প্রধান কোচ আর নতুন সাপোর্ট স্টাফ পেয়ে যাবে।

রোডসকে মানা হয় বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ফিল্ডার

ভারতীয় দলের ফিল্ডিং কোচের জন্য বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ ফিল্ডার করলেন আবেদন 2

জন্টি রোডস বিশ্বের একমাত্র এমন খেলোয়াড় যিনি বিনা ম্যাচ খেলেই ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ পুরস্কার জিতেছেন। এই পুরস্কার জন্টি রোডসকে তার দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ের জন্য ১৯৯৩ সালে দেওয়া হয়েছিল। ১৯৯৩ সালের হিরো কাপ চলাকালীন ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিনি পাঁচটি ক্যাচ নিয়েছিলেন আর এই খেতাব জিতে ইতিহাস গড়েছিলেন। মুম্বাই মিররে ছাপা একটি রিপোর্টের মোতাবেক জন্টি রোডস স্বয়ং টিম ইন্ডিয়ার ফিল্ডিং কোচ হওয়া ইচ্ছা প্রকাশ করেছে আর এমনটা মনে করা হচ্ছে যে তিনি ফিল্ডিং কোচের পদের জন্য আবেদনও করে দিয়েছেন। এমনিতে আপনাদের সকলকেই জানিয়ে দিই যে আবেদন পাঠানোর শেষ তারিখ ৩০ জুলাই। দ্রুতই ৫০ বছর পূর্ণ হতে চলা জন্টি রোডসের কাছে অভিজ্ঞতার অভাব নেই। রোডস দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৫২টি টেস্ট আর ২৪৫টি একদিনের ম্যাচ খেলেছেন। এর মধ্যে তিনি ৩৪টি টেস্ট আর ১০৫টি ওয়ানডে ক্যাচ নিতে সফল হয়েছে। বর্তমান সময়ে টিম ইন্ডিয়ার বেশ কিছু খেলোয়াড়দের সঙ্গে জন্টি রোডসের ভাল সম্পর্কও রয়েছে আর এর ফায়দা যদি তিনি ফিল্ডিং কোচ হন তো সেই সময় পাওয়া যেতে পারে।

আর শ্রীধরও করেছেন ভাল কাজ

ভারতীয় দলের ফিল্ডিং কোচের জন্য বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ ফিল্ডার করলেন আবেদন 3

বর্তমান সময়ে ভারতীয় দলের ফিল্ডিং কোচ হলেন আর শ্রীধর, আর তার কোচিংয়ে ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা ভীষণই উন্নত প্রদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে আর শ্রীধর টিম ইন্ডিয়ার ফিল্ডিং স্তরকে যথেষ্ট উপরে তুলেছেন। যদিও আমাদের কোচিং স্টাফেরা কিছু খারাপ প্রদর্শন করেননি কিন্তু পরিবর্তন এখন ভীষণই প্রয়োজনীয়। প্রসঙ্গত জানিয়ে দিই যে জন্টি রোডস এর আগে এক দীর্ঘ সময় পর্যন্ত মুম্বাই ইণ্ডিয়ান্সের ফিল্ডিং কোচও থেকেছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *