জসপ্রীত বুমরাহ শোনালেন নিজের ডেবিউ ম্যাচের ঘটনা, যখন ধোনি ইয়র্কার করতে মানা করেছিলেন 1

বিশ্বের বড়ো বড়ো ব্যাটসম্যানদের নিজের ইয়র্কার এবং স্লোয়ার বলে সমস্যায় ফেলা ভারতের জোরে বোলার জসপ্রীত বুমরাহের নাম ফ্যাব-৪ বোলারদের তালিকায় রয়েছে। বুমরাহের সঠিক ইয়র্কার বল তার পরিচিতি হয়ে উঠেছে। কিন্তু আপনারা কী জানেন যে যখন এমএস ধোনির অধিনায়কত্বে বুমরাহ ডেবিউ করেছিলেন, তখন ক্যাপ্টেন কুল তাকে ইয়র্কার করতে মানা করেছিলেন।

সকলেই করেন ধোনিকে সম্মান

জসপ্রীত বুমরাহ শোনালেন নিজের ডেবিউ ম্যাচের ঘটনা, যখন ধোনি ইয়র্কার করতে মানা করেছিলেন 2

টিম ইন্ডিয়ার জোরে বোলার জসপ্রীত বুমরাহ ভারতের সেই হাতে গোনা খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন যিনি আইপিএলের দেন। বুমরাহ ২০১৩য় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ডেবিউ করেন আর তারপর তাঁর প্রদর্শনের আধারেই তাকে ২০১৬য় ভারতের হয়ে খেলার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। এই জোরে বোলার টাইমস অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে কথাবার্তা চলাকালীন নিজের ডেবিউ ম্যাচকে স্মরণ করেছেন। তিনি ধোনির অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে বলেন,

“এটা ওর সিদ্ধান্ত ছিল, আর সকলে এর সম্মান করেন। ব্যক্তিগত স্তরে দেখলে আমি নিজের ডেভিউ ওর অধিনায়কত্বে করেছিলাম, উনি আমার মধ্যে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস জাগিয়েছেন”।

ধোনি বুমরাহকে কখনো দেখননি বোলিং করতে

জসপ্রীত বুমরাহ শোনালেন নিজের ডেবিউ ম্যাচের ঘটনা, যখন ধোনি ইয়র্কার করতে মানা করেছিলেন 3

মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্বে তরুণ জোরে বোলার আর এখন ইয়র্কার কিং হয়ে যাওয়া জসপ্রীত বুমরাহ ২০১৬য় ডেভিউ করেছিলেন। এই জোরে বোলার ওই ম্যাচের ঘটনা স্মরণ করেছেন যখন ধোনি তাকে ইয়র্কার করতে বাধা দিয়েছিলেন। জোরে বোলার বলেন,

“বেশি মানুষ এই বিষয়টা জানেন না যে মাহী ভাই আমাকে বোলিং করতে দেখেননি, কোনো স্তরেই। নিজের ডেভিউ ম্যাচে আমি ডেথ ওভারে বোলিং করতে যাচ্ছিলাম আর আমি ওঁকে জিজ্ঞাসা করি যে আমি কী ইয়র্কার বল করতে পারি? আর উনি বলেছিলেন, না ইয়র্কার বলো করো না। ওর মনে হয়েছিল যে ইয়র্কার বল করা মুশকিল হয় আর আমি ম্যাচে প্রত্যাবর্তন করাতে পারব না। আমি ওকে বলি যে আমি ডেথ ওভারে এছাড়া আর কিছু করতে পারি না”।

ধোনি বলেছিলেন যে আমরা জিততে পারতাম পুরো সিরিজ

জসপ্রীত বুমরাহ শোনালেন নিজের ডেবিউ ম্যাচের ঘটনা, যখন ধোনি ইয়র্কার করতে মানা করেছিলেন 4

জসপ্রীত বুমরাহ ২০১৬ অস্ট্রেলিয়া সফরে পঞ্চম একদিনের ম্যাচে ডেবিউ করেছিলেন আর দলকে ম্যাচ জিতিয়েছিলেন। তবে ভারত এই সিরিজ ৪-১ ফলাফলে হেরেছিল। বুমরাহ জানিয়েছেন,

“তারপর আমি যাই আর আমি নিজের মতো বোলিং করি। যার পর ও আমার কাছে আসে আর বলে যে আমি এটা একদম জানতাম না, তোমার দলে আগে আসা উচিৎ ছিল, আমরা পুরো সিরিজ জিতে যেতাম। আমি নিজের ডেভিউ ম্যাচ খেলছিলাম আর নার্ভাস ছিলাম আর অধিনায়ক আমাকে বলছিলেন যে তুমি আমাদের সিরিজ জেতাতে পারতে। তিনি আমাকে যথেষ্ট স্বাধীনতা দিয়েছিলেন”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *