আইপিএল ২০২০ টাইটেল স্পনসরশিপের দৌড়ে শামিল হল টাটা, পেশ করছে প্রবল দাবী

ভারতে লাগাতার চলা চাইনিজ প্রোডাক্টের বহিস্কারের কারণে বিসিসিআই ভিভোর আইপিএল ২০২০র টাইটেল স্পনসরশিপ চুক্তিকে বাতিল করে দিয়েছে। যদিও এই চুক্তি স্রেফ ১৩তম মরশুমের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। আইপিএল ২০২১এ এই চুক্তি আবারও বহাল করা হতে পারে। এখন যখন ভিভো টাইটেল স্পনসর থাকছে না তো একের পর এক বড়ো বড়ো কোম্পানি স্পনসরশিপের দৌড়ে সামনে আসছে। এখন এই তালিকায় টাটাও শামিল হয়ে গিয়েছে।

টাটাও হল টাইটেল স্পনসরশিপের দৌড়ে শামিল

আইপিএল ২০২০ টাইটেল স্পনসরশিপের দৌড়ে শামিল হল টাটা, পেশ করছে প্রবল দাবী 1

আইপিএল ২০২০র আয়োজনের তারিখ ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখন বিসিসিআইকে আইপিএল ২০২০র টাইটেল স্পনসরশিপের জন্য নতুন স্পনসর সন্ধান করতে হবে। যবে থেকে ভিভোর সঙ্গে এই বছরের চুক্তি বাতিল করা হয়েছে, তখন থেকে বেশকিছু বড়ো ভারতীয় কোম্পানি স্পনসরশিপের তালিকায় শামিল হয়েছে। এখন এই তালিকায় টাটা অ্যাণ্ড সন্সের সামও যোগ হয়ে গিয়েছে। জানিয়ে দিই যে টাটা অ্যাণ্ড সন্স ছাড়াও আমাজন, আনঅ্যাকাডেমি, পতঞ্জলী, জিও-র নামও সামনে এসেছে। বিসিসিআইয়ের সূত্র এবিপি নিউজকে বলছেন যে,

“তাদের আশা যে ভিভোর চেয়ে বেশি টাকায় বিডও এই বছরের আইপিএলের জন্য হতে পারে। অর্থাৎ ৪৪০ কোটি টাকার বেশি টাকা থেকে বিড শুরু আশা এখনও বিসিসিআইয়ের রয়েছে। ১৮ আগষ্ট ফাইনাল বিড জমা করার তারিখ”।

বিসিসিআই স্থগিত করেছে ভিভোর সঙ্গে চুক্তি

আইপিএল ২০২০ টাইটেল স্পনসরশিপের দৌড়ে শামিল হল টাটা, পেশ করছে প্রবল দাবী 2

এর কারণ চুন মাসে ভারত-চিনের মধ্যে গালওয়ান উপত্যকায় হওয়া হামলা, যেখানে ভারতের কর্ণেল সমেত ২০জন সেনা জওয়ান শহীদ হয়ে গিয়েছিলেন। তখন থেকেই দেশের মানুষের মনে চিন এবং চাইনিজ কোম্পানিদের নিয়ে বিরোধ পরিস্কার দেখা গিয়েছে। ভারত সরকার সুরক্ষার দৃষ্টিকোণ থেকে ৫৬টি চাইনিজ অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ করে দিয়েছে, যার মধ্যে টিকটক ইউসির মতো বড়ো অ্যাপও শামিল রয়েছে।

আর্থিক সংকট নয়

আইপিএল ২০২০ টাইটেল স্পনসরশিপের দৌড়ে শামিল হল টাটা, পেশ করছে প্রবল দাবী 3

করোনা ভাইরাসের কারণে বাজারের অবস্থা ভীষণই খারাপ হয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় বিসিসিআই ভিভোর সঙ্গে বাৎসরিক ৪৪০ কোটি টাকার চুক্তিকে স্থগিত করেছে। এই অবস্থায় এখন বোর্ড-এর এত টাকা দেওয়ার মতো দ্বিতীয় স্পনসর পাওয়া মুশকিল। কিন্তু সৌরভ গাঙ্গুলী এ নিয়ে চিন্তা করতে অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন,

“আমি এটাকে আর্থিক সংকট বলব না। এটা একটা স্রেফ ছোটো ধাক্কা। আর একটাই উপায় রয়েছে যে আপনি পেশাদার হিসেবে মজবুত হলে এটা করতে পারেন। বড়ো বিষয়গুলি রাতারাতি আসে না। আর বড়ো বিষয়গুলি এক রাতের মধ্যে দূর হয়ে যায় না। দীর্ঘ সময় পর্যন্ত আপনার প্রস্তুতি আপনাকে লোকসানের জন্য তৈরি করে, আপনাকে সফলতার জন্যও তৈরি করে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *