টেস্ট সিরিজের বিবাদের পর আইপিএলের কারণেই শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান দুই বন্ধুর 1
বিরাট কোহলি

ভারতে বর্ডার গাওস্কার ট্রফি খেলতে আসার আগে, বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট দলের সম্বন্ধে বিশেষ পড়াশোনা করে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া। যার ছাপ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের ঐতিহাসিক পরাজয়েই দেখা গিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার থেকে শুরু করে মিডিয়া সকলেই এটা ধরে নিয়েছিলেন যেন তেন প্রকারেণ ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে কোণঠাসা করতে পারলেই গোটা ভারতীয় দলের আত্মবিশ্বাস তলানিতে গিয়ে ঠেকবে। তাই সিরিজের প্রথম দিন থেকেই বিরাট কোহলির কাছে অস্ট্রেলিয়ান দল মায় মিডিয়া থেকে ধেয়ে এসেছিল একের পর এক আক্রমণ। যদিও তার পালটা জবাব দিতেও ছাড়েননি বিরাট কোহলি। উত্তেজনাময় এই সিরিজে জয়ের পর ভারতের অধিনায়ক বলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদের তাঁর পক্ষে আর বন্ধু বলে ভাবা সম্ভব নয়। এবার সেই কথা থেকেই ঘুড়ে দাঁড়ালেন বিরাট।

ধর্মশালার টেস্ট জয়ের পর কোহলিকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন অস্ট্রেলিয়ার প্রতি তাঁর আর বন্ধুত্বপূর্ণ আবেদন থাকবে কিনা? বিরাট বলেন, “না, সেটা আর সম্ভব নয়। খেলার মাঠে প্রতিযোগীতামূল লড়াই হওয়া ভাল। কিন্তু সেটা হয়নি।”

কোহলির এই বক্তব্য অনুযায়ী গোটা অস্ট্রেলিয়ান দলকেই তিনি অপছন্দ করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। সেই নিয়ে বেশ লেখালেখিও হয়েছে ভারতীয় ও অস্ট্রেলিয়ান মিডিয়ায়। এবার এই ঘটনায় মিডিয়াকে কাঠগড়ায় তুললেন বিরাট কোহলি নিজেই। এই বক্তব্যের বেশকিছু দিন কেটে যাওয়ার পরে কোহলির মত, মিডিয়ায় তাঁর বক্তব্য অতিরঞ্জিত করা হয়েছে। ট্যুইট করে কোহলি বলেন, “ম্যাচের পরে রাখা আমার বক্তব্যের অপব্যাখ্যা করা হয়েছে। আমি সুনিশ্চিতভাবে গোটা অস্ট্রেলিয়ান দলের বিরুদ্ধে এই কথা বলিনি কিন্তু”

পরবর্তী ট্যুইটে কোহলি যোগ করেন, “কয়েকজন ক্রিকেটারের উদ্দেশ্যেই এটা বলেছি আমি। অস্ট্রেলিয়ান দলের সঙ্গে আমার যেমন সুসম্পর্ক ছিল তেমনই থাকবে। বিশেষ করে আরসিবিতে যে সমস্ত অজি ক্রিকেটাররা খেলে তাঁদের আমি ভালোভাবেই চিনি।”

সিরিজ চলাকালীন আক্রমণাত্মক স্টিভ স্মিথও কোনও এক যাদু বলে ক্ষমা চেয়েছিলেন ভারতীয় দলের কাছে। কোহলির রুদ্র মুর্তিও কেমন যেন ম্লান হয়ে গেল। আইপিএলের এই যাদু বিবদমান এই দুই পক্ষকে মেলালেন শেষে। কাজেই আইপিএলের দশম সংস্করণ শুরু হওয়ার আগেই পেল এক দারুণ সাফল্য।

টাকার গন্ধে ভোলবদল স্টিভ স্মিথের, হতবাক গোটা অস্ট্রেলিয়ান দল থেকে মিডিয়া

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *