কেকেআরের খবরে আইসিইউ থেকে মুক্তি আইপিএলের, ধীরে ধীরে ফিরছে জৌলুস 1
উমেশ যাদব

একের পর এক জাতীয় ক্রিকেটারের চোটের খবরে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের এক গভীর রোগ ধরা পড়েছিল। বিরাট কোহলি, কে এল রাহুল, রবিচন্দ্রণ অশ্বিন, এভাবেই আরও অনেক তারকা ক্রিকেটার ক্ষয়ে যাচ্ছিল আইপিএলের আকাশ থেকে। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌছেছে যে ভারতের এই চমকদার ক্রিকেট প্রতিযোগীতাকে ভেন্টিলেশনে রাখতে হয়েছে। তবে গত শনিবার থেকে বিভিন্ন ফ্রাঞ্চাইজি আধিকারিকদের সুখবরে ধীরে ধীরে ভেন্টিলেশন থেকে মুক্ত হচ্ছে আইপিএল।

মুম্বই ইন্ডিয়ন্সের জন্য বিশাল খবর, মাঠে ফিরছে দুই তারকা

গুজরাট লায়ন্সের কর্ণধার কেশব বনসল সুখবর দেওয়ার পরই, আরও এক সুখবর আসে কলকাতা নাইট রাইডার্সের শিবির থেকে। জানা যায় অস্ট্রেলিয়া টেস্টের পর চোটগ্রস্থ ফাস্ট বোলার উমেশ যাদবকে কেকেআরে দেখা যাবে ঘরের মাঠের প্রথম ম্যাচ থেকেই। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে মাত্র দুজন ফাস্ট বোলার নিয়ে খেলতে নামা ভারতের হয়ে, উমেশ এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। টানা বল করে তিনি নিজের ফিটনেসের এক নজির তৈরি করেছিলেন। এই সিরিজে মোট ১৭টি উইকেটও নেন তিনি।

প্রায় অর্ধেক ভারতীয় দল বিশ্রামে, সংকটে আইপিএল

উমেশের এই প্রদর্শন দেখে যারপরনাই খুশি ছিল কেকেআর। কারণ আইপিএলে তাদের দলের মূল পেস বোলারই যে উমেশ। কিন্তু সেই আনন্দে জল ঢেলে দিয়েছিল বিসিসিআইয়ের এক বিবৃতি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছিল একটানা এতগুলি ম্যাচ খেলার জন্য পিঠের নিচের দিকে ও নিতম্বে প্রচন্ড টান অনুভব করছে সে। কয়েকদিনের মধ্যেই এই সমস্যার আরও অবনতি হয়। ফলে এই মরশুমে উমেশের আশা কার্যত ছেড়েই দিয়েছিল কেকেআর। তবে শেষে খুশির খবরটা এল।

শনিবার কেকেআরের সিইও ভেঙ্কি মাইসোর ট্যুইটারে বলেন, “আন্তরিক অভিনন্দন উমেশ। প্রাপ্য বিশ্রাম উপভোগ কর। ১০ই এপ্রিল কলকাতায় দেখা হবে।”

বোর্ডের দেওয়া ছুটি কাটিয়ে ১০ই এপ্রিলই কেকেআর শিবিরে যোগ দিচ্ছে উমেশ। ১৩ই এপ্রিল কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধেই তিনি নিজের আইপিএল যাত্রা শুরু করবেন। কেকেআরের প্রথম দুটি ম্যাচে (গুজরাট লায়ন্স ও মুম্বই ইন্ডিয়ন্সের বিরুদ্ধে) খেলতে পারবেন না তিনি। তবে দলের তৃতীয় তথা কেকেআরের ঘরের মাঠের প্রথম ম্যাচ থেকেই তিনি থাকতে পারবেন দলের পাশে।

গুজরাট লায়ন্সের জন্য সুখবর, দলে ফিরছেন দুই তারকা ক্রিকেটার

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *