IPL 2022 Final: আইপিএল ২০২২ এর অরেঞ্জ ক্যাপ জিতলেন এই ব্যাটসম্যান, এই মরশুমে করেছেন সর্বাধিক রান

আইপিএল ২০২২ (IPL 2022) এর সমাপ্তি ভীষণই রোমাঞ্চকরভাবে হয়েছে। এই মরশুমে সমস্ত দলগুলির মধ্যে দারুণ প্রতিযোগীতা দেখতে পাওয়া গিয়েছে, অন্যদিকে ব্যাটসম্যানদের মধ্যেও অরেঞ্জ ক্যাপের (Orange Cap) দৌড়ে দুর্দান্ত প্রতিযোগীতাও হয়েছে। এমনিতে প্রত্যেক বছর আইপিএলে সর্বাধিক রান করা ব্যাটসম্যানকে অরেঞ্জ ক্যাপ দিয়ে সম্মানিত করা হয়। এই মরশুমে এই ক্যাপের দাবিদার কে, এই ব্যাপারে আমরা জানাব আপনাদের, সেই সঙ্গে এটাও জানাব  আইপিএল ২০২২ এ অরেঞ্জ ক্যাপের দৌড়ে কোন ৫জন ব্যাটসম্যান টপ-৫ এ ছিলেন।

রাজস্থান রয়্যালসের ব্যাটসম্যান হলেন অরেঞ্জ ক্যাপের অধিকারী

IPL 2022 के ऑरेंज कैप की रेस में विजेता हुआ ये बल्लेबाज, इस सीजन में बनाए सर्वाधिक रन 1

আইপিএল ২০২২ এ যদিও সমস্ত দলগুলির খেলোয়াড় এই মরশুমে সর্বাধিক রান করার প্রচেষ্টা করেছেন, কিন্তু তাদের সকলকে মাত দিয়ে রাজস্থান রয়্যালসের ওপেনিং ব্যাটসম্যান বাজি জিতে নিয়েছেন। রাজস্থান রয়্যালসের ওপেনিং ব্যাটসম্যান জোস বাটলার আইপিএল ২০২২ এর অরেঞ্জ ক্যাপ জয়ী হয়েছেন। বাটলার এই মরশুমে খেলা ১৭টি ম্যাচে ৫৭.৫৩ গড়ে আর ১৪৯.০৫ স্ট্রাইকরেটে ব্যাটিং করে ৮৬৩ রান করেছেন অরেঞ্জ ক্যাপের দখল নিয়েছেন। এই মরশুমে বাটলারের ব্যাট থেকে ৪টি সেঞ্চুরি আর ৪টি হাফসেঞ্চুরিও বেরিয়েছে। বাটলারের এই মরশুমের প্রদর্শন দেখে এটা বলা ভুল হবে না যে আইপিএল ২০২২ তার জন্য ভীষণই ভাল ছিল। প্রসঙ্গত জানিয়ে দিই যে অরেঞ্জ ক্যাপ জয়ী অর্থাৎ জোস বাটলারকে ১৫ লাখ টাকা দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছে।

টপ-৫ এ এই ব্যাটসম্যানদের নামও শামিল

IPL 2022 के ऑरेंज कैप की रेस में विजेता हुआ ये बल्लेबाज, इस सीजन में बनाए सर्वाधिक रन 2

রবিবার খেলা হওয়া আইপিএল ২০২২ ফাইনাল ম্যাচের পর এই মরশুম শেষ হয়েছে। এখন আগামী মরশুম আগামী বছর খেলা হবে। এই মরশুমে অরেঞ্জ ক্যাপ বাটলারের দখলে চলে গিয়েছে, তা ছাড়াও যদি সর্বাধিক রান করা টপ-৫ ব্যাটসম্যানের কথা বলা হয় তাহলে এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন লখনউ সুপার জায়ান্টসের অধিনায়ক কেএল রাহুল। তিনি ১৫টি ম্যাচে ৫৩.৩৩ গড়ে আর ১৩৫.৩৮ স্ট্রাইকরেটে ৬১৬ রান করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে ২টি সেঞ্চুরি আর ৪টি হাফসেঞ্চুরি।

অন্যদিকে এই তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন লখনউ সুপার জায়ান্টসেরই আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি’কক। তিনি এই মরশুমের ১৫টি ম্যাচে ৩৬.২৯ গড়ে ৫০৮ রান করেছেন। ডি’ককের ব্যাট থেকে এই মরশুমে ১টি সেঞ্চুরি এবং ৩টি হাফসেঞ্চুরিও বেরিয়েছে। এরপর চতুর্থ স্থানে গুজরাট টাইটান্সের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া মজুত রয়েছেন যিনি ১৫টি ম্যাচে ৪৮.৫০ গড়ে ৪৮৭ রান করেছেন। এই মরশুমে তার ব্যাট থেকে ৪টি হাফসেঞ্চুরিও বেরিয়েছে। পঞ্চম স্থানে রয়েছেন গুজরাট টাইটান্সেরই ওপেনার শুভমান গিল, যিনি ১৬টি ম্যাচে ৩৪.৫০ গড়ে ৪৮৩ রান করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.