RCB vs LSG: এলিমিনেটর জেতার পর ফাফ দু’প্লেসি এই খেলোয়াড়ের করলেন আকুণ্ঠ প্রশংসা, একে বললেন দলের জোকার 1

আইপিএল ২০২২ এর এলিমিনেটর ম্যাচ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর লখনউ সুপার জায়ান্টসের মধ্যে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচ বাঙ্গালোরের দল ১৪ রানে জিতে নেয় আর কোয়ালিফায়ার ২ এর টিকিট হাসিল করে। এই ম্যাচে লখনউ সুপার জায়ান্টসের অধিনায়ক কেএল রাহুল টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ব্যাঙ্গালোরের দল রজত পাটিদারের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির সৌজন্যে ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রান করে আর লখনউয়ের সামনে জয়ের জন্য ২০৮ রানের লক্ষ্য রাখে। এর জবাবে লখনউয়ের দল কেএল রাহুলের দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি সত্ত্বেও ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৩ রান করে। আর এই ম্যাচ ১৪ রানে হেরে যায়। এই ম্যাচ জেতার পর আরসিবির অধিনায়ক ফাফ দু’প্লেসিকে যথেষ্ট খুশি দেখিয়েছে।

ম্যাচ জেতার পর কী বললেন ফাফ দু’প্লেসি?

RCB vs LSG: এলিমিনেটর জেতার পর ফাফ দু’প্লেসি এই খেলোয়াড়ের করলেন আকুণ্ঠ প্রশংসা, একে বললেন দলের জোকার 2

লখনউয়ের বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের পর আরসিবি আইপিএল ২০২২ এর ফাইলাম ম্যাচের দৌড়ে এক পা এগিয়ে গিয়েছে। তবে ফাইনাল ম্যাচের আগে দলকে ২৭ মে কোয়ালিফায়ার-২ ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের মুখোমুখি হতে হবে। লখনউয়ের বিরুদ্ধে জয়ের পর আরসিবির অধিনায়ক ফাফ দু’প্লেসি বলেন,

“আজকের দিনটা বিশেষ ছিল। রজত যেভাবে খেলেছে, তাতে আমি ভীষণই প্রভাবিত হয়েছি। তাও আজকের মতো ম্যাচে যেখানে অতিরিক্ত চাপ ছিল। রজতের কাছে সমস্ত শট রয়েছে। এই সুযোগদের ব্যবহার করা আর আজকের কড়া মেহনতের জন্য উৎসব পালন করা গুরুত্বপূর্ণ। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এটা যে আমরা আবেগী ছিলাম আর ভীষণোই খুশি ছিলাম”।

তিনি রজত পাটিদার আর হর্ষল প্যাটেলের প্রশংসা করে বলেন,

“ওর কাছে সমস্ত শট রয়েছে। প্রত্যেকবার যখন ও শট মারে, ও বিপক্ষের উপর চাপ ফিরিয়ে দেয়। সামান্য বড় হওয়া সত্ত্বেও এটা সেলিব্রেট করা জরুরী। আমরা একটা গোষ্ঠী হিসেবে ভীষণই খুশি। একটা গ্রুপ হিসেবে আমাদের শান্ত উপস্থিতি জরুরী ছিল। প্রত্যেকেই শান্ত আর চাপমুক্ত ছিল। হর্ষল একজন জোকার। একটা বিশেষ কার্ড যাকে আমি নির্বাচন করতে পারি। ও গুরুত্বপূর্ণ ওভার করে। ওর দ্বিতীয় স্পেলের শেষ ওভার আমাদের জন্য খেলাটা বদলে দিয়েছিল”।

Leave a comment

Your email address will not be published.