IPL 2022

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে কলকাতা নাইটরাইডার্সের ইতিহাসটা একেবারেই ম্লান ছিল এতদিন। এই দুই দলের লড়াই মানেই এগিয়ে থাকবে মুম্বাই, এমন একটা হাওয়া জারি ছিল আইপিএলের (IPL 2022) আঙিনায়। বুধবার রাতে অবশ্য চিত্রটা অন্যরকম দেখা গেল। IPL 2022 এর ১৪ তম লিগ ম্যাচটি পুনের এমসিএ স্টেডিয়ামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে খেলা হয়। আর সেই ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্স জিতেছে ৫ উইকেটে। ব্যাটে-বলে মুম্বাইকে একপ্রকার পর্যুদস্ত করে ছাড়ল শ্রেয়াস আইয়ারের দল।

এ দিনের এই হারে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাদের টানা তৃতীয় পরাজয় স্বীকার করল। KKR অলরাউন্ডার প্যাট কামিন্স ১৬ ওভারে নজির গড়লেন। ড্যানিয়েল স্যামসের এক ওভারে ৩৫ রান নিয়ে ম্যাচই শেষ করে দেন। এছাড়াও, যৌথভাবে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম (১৪ বল) ফিফটি করলেন অজি টেস্ট দলের অধিনায়ক।

পুনেতে সব আলো কেড়ে নিলেন প্যাট কামিন্স

Unplayable Podcast: IPL 2021 preview with Pat Cummins | cricket.com.au

এই ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্স অর্থাৎ কেকেআরের সামনে জয়ের জন্য ১৬২ রানের টার্গেট দেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। মুম্বাইয়ের দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রান করে, যার মধ্যে রয়েছে সূর্যকুমার যাদবের একটি হাফ সেঞ্চুরি। ১৬২ রানের জবাবে ভেঙ্কটেশ আইয়ারের সঙ্গে কেকেআরের হয়ে ইনিংস শুরু করেন অজিঙ্কা রাহানে। তবে ৭ রান করে আউট হন রাহানে। তাড়াতাড়ি আউট হন শ্রেয়াস আইয়ারও। তিনি করেন ১০ রান। তৃতীয় উইকেট হিসেবে প্যাভিলিয়নে ফেরেন স্যাম বিলিংস (১৭)। চতুর্থ উইকেটে আউট হন নীতিশ রানা (৮)। ১১ রান করে সাজঘরের দিকে পা বাড়ান আন্দ্রে রাসেল। এরপরই ‘খেলা’ শুরু করেন প্যাট কামিন্স। ১৫ বলে ৫৬ রান করে অপরাজিত থাকেন কামিন্স। তাকে সঙ্গত দেওয়া ভেঙ্কটেশ আইয়ার ৪১ বলে অপরাজিত ৫০ রান করেন।

১৬১ রানে শেষ হয় মুম্বাইয়ের ইনিংস

केकेआर बनाम एमआई: कोलकाता नाइट राइडर्स ने इलेवन बनाम मुंबई इंडियंस की भविष्यवाणी की: क्या पैट कमिंस इलेवन में चलते हैं? | क्रिकेट खबर - All Over ...

এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেন কলকাতা দলের অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার। এমন পরিস্থিতিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। অধিনায়ক রোহিত শর্মা উমেশ যাদবের বলে আউট হন মাত্র ৩ রানে। পাওয়ারপ্লেতে মুম্বাই এক উইকেট হারিয়ে ৩৫ রান করে। মুম্বাইয়ে দ্বিতীয় ধাক্কাটা আসে ডিভাল্ড ব্রেভিসের রূপে, যিনি ২৯ রান করেন। তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে মুম্বাইয়ের ইশান কিষানের, যিনি ২১ বলে ১৪ রান করতে পারেন। ৫২ রান করে আউট হন সূর্যকুমার যাদব। তিলক ভার্মা ৩৮ রানে এবং কাইরন পোলার্ড ২২ রানে অপরাজিত থাকেন। সব মিলিয়ে মুম্বাই দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রান করে।

Leave a comment

Your email address will not be published.