KKRvsRCB: আরসিবি ৮২ রানে জিতল ম্যাচ, দীনেশ কার্তিকের এই ভুল পড়ল কেকেআরের উপর ভারি

আইপিএল ২০২০-র ২৮তম ম্যাচ রয়্যালস চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর কলকাতা নাইট রাইডার্সের ম্যাচ শারজাহের মাঠে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে আরসিবির অধিনায়ক বিরাট কোহলি টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আর কেকেআরকে ১৯৩ রানের লক্ষ্য দেয়। জবাবে কেকেআরের দল ১১২ রানের স্কোরেই পৌঁছয় আর আরসিবি ৮২ রানে দুর্দান্ত জয়লাভ করে।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বিরাট কোহলি

KKRvsRCB: আরসিবি ৮২ রানে জিতল ম্যাচ, দীনেশ কার্তিকের এই ভুল পড়ল কেকেআরের উপর ভারি 1

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আর কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে সোমবার শারজাহের মাঠে একটি রোমাঞ্চকর ম্যাচ খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে বিরাট কোহলি টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। এই ম্যাচে বিরাট কোহলির দলে একটিই মাত্র পরিবর্তন দেখা যায়, যেখানে গুরকিরাত মানের জায়গায় মহম্মদ সিরাজকে প্রথমে একদশে রাখা হয়। অন্যদিকে অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক সুনীল নারিনের জায়গায় প্রথম একাদশে ওপেনার টম ব্যান্টনকে শামিল করেছেন।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দিয়েছিল ১৯৫ রানের লক্ষ্য

KKRvsRCB: আরসিবি ৮২ রানে জিতল ম্যাচ, দীনেশ কার্তিকের এই ভুল পড়ল কেকেআরের উপর ভারি 2

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালরের অধিনায়কের প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর ওপেনিং জুটি দেবদত্ত পডিক্কল আর অ্যারণ ফিঞ্চ প্রথম উইকেটের হয়ে ৬৭ রানের পার্টনারশিপ গড়ে দলকে শক্ত ভিতের উপর দাঁড় করিয়ে দেন। কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের বোলারদের উড়িয়ে দিয়ে ফিঞ্চ ৩৭ বলে ৪৭ রান আর দেবদত্ত ২৩ বলে ৩২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। কিন্তু এরপর ক্রিজে টিকে থাকেন অধিনায়ক কোহলি আর ডেভিলিয়র্স।

কোহলিস সামান্য স্লো ইনিংস অবশ্যই খেলেন, কিন্তু তিনি উইকেট পড়তে দেননি। কোহলি ২৮ বলে অপরাজিত ৩৩ রান করেন। অন্যদিকে এবি ডেভিলিয়র্স অসাধারণ বিস্ফোরক ইনিংস খেলে মাত্র ৩৩ বলে ৭৩ রান করেন। এই ইনিংসে তিনি ৫টি বাউন্ডারি এবং ৬টি ছক্কা মারেন। কলকাতার সমস্ত বোলাররই মার খান এবং প্যাট কমিন্স এবং প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা একটি করে উইকেট নেন।

লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যর্থ কলকাতা নাইট রাইডার্স

KKRvsRCB: আরসিবি ৮২ রানে জিতল ম্যাচ, দীনেশ কার্তিকের এই ভুল পড়ল কেকেআরের উপর ভারি 3

আরসিবির দেওয়া ১৯৫ রানের লক্ষ্য হাসিল করার উদ্দেশ্যে মাঠে নামা কলকাতার শুরুটা ভালো হয়নি। কেকেআরের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলা ওপেনার টম ব্যান্টন ৭ রান করে নভদীপ সাইনির গতির বলে আউট হন। এরপর শুভমান গিল ক্রিজে সেট হয়ে গিয়েছিলেন, কিন্তু ওয়শিংটন সুন্দরের বলে তিনি রান আউট হয়ে যান আর ৩৪ রানই করেন। এরপর ব্যাটিং করতে আসা অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক মাত্র এক রানই করে আউট হয়ে যান। অ্যান্দ্রে রাসেলের উপর কলকাতার আশা টিকে ছিল আর এই ব্যাটসম্যান বেশকিছু শটস মারেন কিন্তু তিনি ইশরু উদানার বলে ১৬ রান করে আউট হয়ে যনা। তবে রাসেলকে দেখে মনে হচ্ছিল যে তিনি আজ ফর্মে ফিরে আরসিবির বোলারদের উড়িয়ে দেবেন। কিন্তু তিনি খুব বেশিক্ষণ দলের আশা জাগিয়ে রাখতে পারেননি। শেষে রাহুল ত্রিপাঠি ১৬, প্যাট কমিন্স ১, কমলেশ নাগরকোটি ৪ রান করে আউট হন। এবং বরুণ চক্রবর্তী ৭ আর প্রসিদ্ধ কৃষ ২ রান করে অপরাজিত থাকেন।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের সমস্ত ব্যাটসম্যান ১১২ রানই করতে পারেন আর আরসিবি এই ম্যাচ ৮২ রানে জিতে নেয়। এই ম্যাচে দীনেশ কার্তিক ওপেনিংয়ের দায়িত্ব টম ব্যান্টনকে দেন। কিন্তু তিনি দলের হয়ে বড় ইনিংস খেলতে পারেননি, যা দলের মুশকিল বাড়িয়ে দেয়। অধিন্যক দীনেশ কার্তিকের দ্বারা ওপেনিংয়ের জন্য রাহুল ত্রিপাঠিকে না পাঠানো কোথাও না কোথাও ভুল প্রমানিত হয় আর কেকেআরের হাত থেকে এই ম্যাচ বেরিয়ে যায়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *