রিপোর্ট: এই বছর ২৯ মার্চের বদলে আইপিএল শুরু হবে জুলাই ২০২০তে

করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটের সমস্ত ইভেন্টসকে স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। ২৯ মার্চ থেকে শুরু হতে চলা আইপিএল ২০২০কেও ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন পরিস্থিতি দেখে পরিস্কার দেখা যাচ্ছে যে আইপিএল ১৫ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়াও অসম্ভব। এর মধ্যে সদ্য রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে যে বিসিসিআই জুলাই মাসে আইপিএল করানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

জুলাইতে হতে পারে আইপিএল ২০২০

রিপোর্ট: এই বছর ২৯ মার্চের বদলে আইপিএল শুরু হবে জুলাই ২০২০তে 1

করোনা ভাইরাস ভারতকেও নিজের আক্রান্তের তালিকায় নিয়ে ফেলেছে। পরিস্থিতি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে খারাপ হতে দেখা যাচ্ছে। এই অবস্থায় ১৫ এপ্রিল থেকে আইপিএল ২০২০ হওয়াও সম্ভব নয়। এখন এর মধ্যেই এক বিসিসিআই আধিকারিক নাম না প্রকাশের শর্তে সিএনবিসি টিভি ১৮কে জানিয়েছেন,

“বোর্ড সম্ভবত, জুলাইতে আইপিএল ম্যাচের জন্য একটি বিকল্প উইন্ডো দেখছে, বা শীতের সময় নতুনভাবে হতে পারে।

সিএনবিসি টিভি ১৮কে একজন অন্য সিনিয়র বিসিসিআই আধিকারিক জানিয়েছেন যে,

“যদি লকডাউন বাড়িয়ে দেওয়া হয়, তো জুনের শুরু পর্যন্ত বর্তমান উইন্ডোতে একটা পূর্ণ আইপিএল হওয়া মুশকিল হবে”।

তারকারা দিয়েছেন আইপিএল ১৩র জন্য পরামর্শ

রিপোর্ট: এই বছর ২৯ মার্চের বদলে আইপিএল শুরু হবে জুলাই ২০২০তে 2

করোনা ভাইরাসের কারণে ক্রিকেট গুরুতরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশ্বের সমস্ত ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেটের সমস্ত ইভেন্টসকে বন্ধ করে দিয়েছে। তো অন্যদিকে বিসিসিআই ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকা আইপিএল ২০২০কে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করে দিয়েছে। কিন্তু এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেই। ভারতে করোনা সংক্রামিত রোগীর সংখ্যা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। এই কারণে এখন আইপিএল নিয়ে বড়ো বড়ো খেলোয়াড়রা আইপিএলের আসন্ন মরশুমের জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন। কেউ কেউ আইপিএলকে ছোটো করার কথা বলেছেন, কেউ বন্ধ দরজার পেছনে আইপিএল করার পরামর্শ দিয়েছেন, তো কেউ কেউ স্রেফ ভারতীয় খেলোয়াড়দের নিয়ে আইপিএল করানোর পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু এই সমস্ত পরামর্শে তখনই মনোযোগ দেওয়া যেতে পারে যখন করোনা ভাইরাস থেকে ভারতের পরিস্থিতি উন্নত হবে।

ভারতে ২০০ মানুষ হারিয়েছেন প্রাণ

রিপোর্ট: এই বছর ২৯ মার্চের বদলে আইপিএল শুরু হবে জুলাই ২০২০তে 3

ব্রিটেন, আমেরিকা, ইতালির মতো বড়ো বড়ো দেশগুলিতে হাজার হাজার মানুষকে মারা করোনা ভাইরাস ভারতেও নিজের পা বিছিয়ে ফেলেছে। ২১ দিন পর্যন্ত সম্পূর্ণ ভারত লকডাউন হওয়া সত্ত্বেও করোনা দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। ভারতে মোট সাড়ে ছয় হাজার মানুষ এই মহামারীতে সংক্রামিত হয়েছেন, তো অন্যদিকে ২০০ মানুষ নিজের প্রাণ হারিয়েছেন। দিন প্রতিদিন ভারত করোনা গুরুতর হয়ে উঠছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *