MIvsRCB: বিরাট কোহলির এই ভুলের কারণে হারল আরসিবি, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স জিতল ৫ উইকেটে 1

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের মধ্যে আইপিএল ২০২০-র ৪৮তম ম্যাচ খেলা হয়েছে। আবুধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা হওয়া এই ম্যাচে আরসিবির দেওয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্যকে মুম্বাই ১৯ ওভারেই হাসিল করে নেয় আর ৫ উইকেটে এক দুর্দান্ত জয় হাসিল করে। এই জয়ের সঙ্গেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স প্লে অফের জন্য কোয়ালিফাই করে ফেলেছে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স টসে জিতে নিয়েছে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত

MIvsRCB: বিরাট কোহলির এই ভুলের কারণে হারল আরসিবি, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স জিতল ৫ উইকেটে 2

রয়্যালস চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের সঙ্গে আবুধাবির মাঠে খেলা হওয়া ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কার্যনির্বাহী অধিনায়ক কায়রন পোলার্ড টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। এই ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আগের ম্যাচের প্রথম একাদশ নিয়েই মাঠে নেমেছিল। কিন্তু আরসিবির অধিনায়ক বিরাট কোহলি দলে ৩টি বড় পরিবর্তন করেন। তিনি জোরে বোলার নভদীপ সাইনিকে চোটের কারণে দলের বাইরে রাখেন। তার জায়গায় শিভম দুবেকে খেলানো হয়। অন্যদিকে অ্যারণ ফিঞ্চের জায়গায় জোস ফিলিপ আর ডেল স্টেইনের জায়গায় মইন আলিকে দলে শামিল করা হয়।

আরসিবি করে ১৬৪ রান

MIvsRCB: বিরাট কোহলির এই ভুলের কারণে হারল আরসিবি, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স জিতল ৫ উইকেটে 3

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স টসে জিতে আরসিবিকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায়। যেখানে আরণ ফিঞ্চের জায়গায় প্রথম একাদশে শামিল হওয়া জোশ ফিলিপ এবং দেবদত্ত পডিক্কল ভালো পার্টনারশিপ গড়ে পাওয়ার প্লে-তে ৫০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে। ফিলিপ ৩৩ রান করে আউট হন। কিন্তু দেবদত্ত টিকে থাকেন। অধিনায়ক বিরাট কোহলিও ১৪ বলে মাত্র ৯ রান করে আউট হয়ে যান। এবি ডেভিলিয়র্সও ১৫ রানই করতে পারেন। এরপর শিভম দুবে ২, ক্রিস মরিস ৪রান করে আউট হন। গুরকিরাত মান আর ওয়াশিংটন সুন্দর শেষ দিকে ক্রমশ: অপরাজিত ১৪ এবং ১০ রান করে দলকে সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছে দেন। এভাবে আরসিবি ৬ উইকেট হারিয়ে বোর্ডে ১৬৪ রান তোলে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ৫ উইকেটে জেতে

MIvsRCB: বিরাট কোহলির এই ভুলের কারণে হারল আরসিবি, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স জিতল ৫ উইকেটে 4

আরসিবির দেওয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নামা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দল ম্যাচে নিজেদের কব্জা বজায় রাখেন।এ ই ম্যাচে কুইন্টন ডি’কক ১৯ বলে ১৮ রান করে আউট হন আর ঈশান কিষাণ ২৫ রানে আউট হন। তৃতীয় নম্বরে ব্যাট করতে নামা সূর্যকুমার যাদব একদিন সামলে রাখেন। অন্যদিকে ব্যাট করতে আসা সৌরভ তেওয়ারি ৫, ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ১০ রান করে আউট হন। হার্দিক পাণ্ডিয় ১৪ বলে ১৭ রান করে আউট হন। কিন্তু ক্রিজে টিকে থাকা সূর্যকুমার যাদব ৪৩ বলে ৭৯ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে কায়রন পোলার্ষ শেষ দিকে এসে ইনিংস ফিনিশ করে বাউন্ডারি মারেন আর দলকে ৫ উইকেটে এক বড় জয় এনে দেন। এই জয়ের সঙ্গেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দল প্লে অফের জিন্য কোয়ালিফাই করে ফেলে। যদিও এর এখনও অফিসিয়াল ঘোষণা হয়নি। এই ম্যাচে আরসিবির অধিনায়ক বিরাট কোহলি সঠিকভাবে বোলারদের ব্যবহার করতে পারেননি, যে কারণে এই ম্যাচ আরসিবির হাত থেকে বেরিয়ে যায়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *