IPL 2020: জন্মদিনেই হার্দিক পাণ্ডিয়ার উপর ক্ষুব্ধ হলেন বড়ো ভাই ক্রুণাল, এই হলো কারণ

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আর দিল্লি ক্যাপিটালসের মধ্যে একটি ভীষণই রোমাঞ্চকর ম্যাচ খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে দিল্লির দল টসে জেতে আর প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রথমে ব্যাট করে দিল্লি ১৬৩ রানের লক্ষমাত্রা দেয় মুম্বাইকে। যা মুম্বাইয়ের দল দুর্দান্ত প্রদর্শন করে ৫ উইকেট হারিয়ে হাসিল করে নেয়। এই ম্যাচে জয়লাভ করে পয়েন্টস টেবিলে মুম্বাই এক নম্বরে উঠে এসেছে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান গতলাকের ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালসকে হারিয়ে শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছে। চারবারের চ্যাম্পিয়ন্স দল সহজেই শ্রেয়স আইয়ার অ্যান্ড কোম্পানিকে মাত দিয়েছে। এই ম্যাচে জয়ের নায়ক হয়েছেন সূর্যকুমার যাদব, ক্রুণাল পাণ্ডিয়া আর কুইন্টন ডি’কক। ম্যাচ চলাকালীন মুম্বাইয়ের জন্য এই জয় সহজ ছিল না, কারণ যখন দিল্লির দল ব্যাটিং করছিল তো মুম্বাই চাপে ছিল। এই অবস্থায় ফিল্ডিং চলাকালীন একই দলে খেলা দুই ভাইয়ের মধ্যে তর্কাতর্কিও হয়ে গিয়েছে।

IPL 2020: জন্মদিনেই হার্দিক পাণ্ডিয়ার উপর ক্ষুব্ধ হলেন বড়ো ভাই ক্রুণাল, এই হলো কারণ 1

এই ম্যাচে দিল্লির ব্যাট করার সময় যখন শিখর ধবন আর শ্রেয়স আইয়ারের মধ্যে ভালো পার্টনারশিপ চলছিল, সেই সময় ক্রুণাল পাণ্ডিয়া যথাসম্ভব চেষ্টা করছিলেন যাতে দিল্লির দল রান করতে না পারে। কিন্তু তখনই হার্দিক পাণ্ডিয়া এমন একটি থ্রো করেন যা সোজা ওভার থ্রো হয়ে যায়। এই অবস্থায় বোলিং করা তার বড়ো ভাই ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ক্ষুব্ধ হয়ে যান আর তিনি হার্দিককে ম্যাচের মধ্যেই কিছু কথা শুনিয়ে দেন। এই থ্রোর কারণে দিল্লি এক রান পায় কিন্তু অন্যদিকে হার্দিক পাণ্ডিয়া যাঁর কাল জন্মদিনও ছিল, তার প্রতি দাদা ক্রুণালকে ক্ষুব্ধ হতে দেখা যায়। ক্রুণালের রাগে হার্দিকও তাকে জবাব দিয়েছেন আর জানান যে এটা তাঁর ভুল ছিল না আর বল আটকানোর জন্য কারও কভার করতে পেছনে থাকা উচিৎ ছিল।

তবে শেষে ক্রুণাল ২৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন আর দুর্দান্ত বোলিং করেন। অন্যদিকে ব্যাটিং চলাকালীন তিনি ব্যাট হাতে ৭ বলে ১২ রান করে দলের জয়েও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। পাশাপাশি জন্মদিনেও হার্দিক পাণ্ডিয়া ব্যর্থ হন। দলের হয়ে ব্যাট করার সময় তিনি বিনা রান করেই আউট হয়ে যান।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *