আইপিএল ২০২০ নিয়ে ১৪ মার্চ বিকেলে হওয়া মিটিংয়ের শেষে বেরোল এই পরিণাম

আইপিএল ২০২০র উপর করোনা ভাইরাসের সংকট নিয়ে বিসিসিআই সোমবার মুম্বাইতে গর্ভনিং কাউন্সিল আর সমস্ত ৮টি দলের সংযুক্ত বৈঠক ডেকেছিল। এই মিটিংয়ে আইপিএল নিয়ে আলোচনা তো হয়েছিল কিন্তু মিটিং কোনো সিদ্ধান্ত পৌঁছনোর আগেই শেষ হয়ে যায়, কারণ গত ৪৮ ঘন্টায় ছড়িয়ে পড়া এই মহামারীর কোন উন্নতি দেখা যায়নি। এই কারণে আইপিএলের উপর এখনো করোনা ভাইরাসের বিপদ রয়েছে।

মিটিংয়ে বেরোয়নি কোনো মজবুত সিদ্ধান্ত

আইপিএল ২০২০ নিয়ে ১৪ মার্চ বিকেলে হওয়া মিটিংয়ের শেষে বেরোল এই পরিণাম 1

আইপিএল ২০২০র শুরু ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারনে এই টুর্নামেন্ট ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। আটটি আইপিএল ফ্রেঞ্চাইজির মালিকদের দ্বারা সোমবার টেলি-কনফারেন্সে মিটিং হয়েছে। কিন্তু এই মিটিং কোনো সিদ্ধান্ত পৌঁছনোর আগেই শেষ হয়ে যায়, কারণ গত ৪৮ ঘন্টায় দেশে করোনা ভাইরাসের সমস্যায় কোনো পরিবর্তন হয়নি। মিটিংয়ে উপস্থিত এক আধিকারিক পিটিআইকে জানিয়েছেন,

“আজকের বৈঠকে কোনো নির্দিষ্ট আলোচনা করা হয়নি। এটা স্রেফ একটি ফলোআপ মিটিং ছিল। ৪৮ ঘন্টায় পরিস্থিতি বদলায়নি, এই কারণে আইপিএলের আয়োজনের ব্যাপারে কথা বলা এখনই সঠিক হবে না”।

ছোটো হতে পারে আইপিএল ২০২০

আইপিএল ২০২০ নিয়ে ১৪ মার্চ বিকেলে হওয়া মিটিংয়ের শেষে বেরোল এই পরিণাম 2

২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা আইপিএল ২০২০কে করোনা ভাইরাসের কারণে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। এর কারণে ক্রিকেট সমর্থকরা যথেষ্ট নিরাশ হয়েছেন। এটা নিয়ে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী বলেন,

“যে যদি পরিস্থিতি উন্নত হয় তো আইপিএল ১৩ মরশুম ছোটো হবে। কারণ আগেই ১৫দিনের দেরী হয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় ছোটো করতেই হবে। বর্তমানে এটা ঠিক হয়নি যে টুর্নামেন্ট কতটা ছোটো হবে, কতগুলো ম্যাচ কম হবে। প্রত্যেক সপ্তাহে পরিস্থিতির সমীক্ষা করা হবে। আমরা আইপিএল করতে চাই, কিন্তু প্রাথমিকতা হলো মানুষের সুরক্ষা”।

ভারতে করোনা ভাইরসে ২জনের মৃত্যু

আইপিএল ২০২০ নিয়ে ১৪ মার্চ বিকেলে হওয়া মিটিংয়ের শেষে বেরোল এই পরিণাম 3

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়েপড়া করোনা ভাইরাসকে দেখে বিসিসিআই ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে চলা ওয়ানডে সিরিজ বাতিল করে দিয়েছে। আসলে ধর্মশালায় খেলা হওয়ার কথা থাকা ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে বাতিল হয়, আর দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ম্যাচটি করোনা ভাইরাসের কারণে সাবধানতা হিসেবে বিসিসিআই বাতিল করে দেয়। ভারতে এখনো পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে দিল্লি আর কর্ণাটকে ২জনের মৃত্যু হয়েছে, অন্যদিকে ৯৯জনের আক্রান্ত হওয়ার নিশ্চিত খবর রয়েছে। অন্যদিকে ১৪৫টি দেশে ৫৪৩৬ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ১১ বছর পর আমেরিকায় এমার্জেন্সি ঘোষণা করা হয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *