এই চার অধিনায়কের কাছে থাকবে শেষ সুযোগ, আইপিএলে ভালো প্রদর্শন না করলে হারাবেন নেতৃত্ব 1

দীর্ঘ সময় ধরে স্থগিত রাখা আইপিএল ২০২০র শুরু ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ইউএই-র মাঠে হতে চলেছে। এই লীগের শুরু গত বছরের দুই ফাইনালিস্ট দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যে আবুধাবির ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে। এই মরশুমে বেশকিছু দল নিজেদের পুরনো অধিনায়কদেরই বজায় রেখেছে, তো অন্যদিকে কিছু দল নতুন অধিনায়ক নিযুক্ত করেছে। কিন্তু এই ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই যে এই মরশুমে অন্য মরশুমগুলির তুলনায় বেশি স্পেশাল হতে চলেছে। কিন্তু সবসময়ের মতো এবারও দলের অধিনায়কদের উপ্র দলকে খেতাব জেতানোর দায়িত্ব থাকবে। কিন্তু এই আইপিএল মরশুমে কিছু দলের অধিনায়ক এমনও রয়েছেন, যারা যদি এই মরশুমে ভালো প্রদর্শন না করেন তো তাদের অধিনায়কত্ব ছিনিয়ে নেওয়া হতে পারে। আজ এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমন চারজন অধিনায়কের ব্যাপারেই জানাব।

১. স্টিভ স্মিথ

এই চার অধিনায়কের কাছে থাকবে শেষ সুযোগ, আইপিএলে ভালো প্রদর্শন না করলে হারাবেন নেতৃত্ব 2

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক স্টেইভ স্মিথ আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়কত্ব করেছেন। কিন্তু ২০১৮য় বল ট্যাম্পারিং বিতর্কের কারণে তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন আইপিএল ২০২০তে আরও একবার স্মিথকে দলের নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছে। এখন আইপিএল ২০২০-তে স্মিথের উপর নিশ্চিতভাবেই ভালো প্রদর্শনের চাপ থাকবে, কারণ যদি এই খেলোয়াড় ভালো ফল করতে না পারে, তো তার হাত থেকে অধিনায়কত্বও ছিনিয়ে নেওয়া হতে পারে। তবে এখনো পর্যন্ত যদি আপনারা স্মিথের রেকর্ডের দিকে লক্ষ্য করেন তো তিনি আইপিএলে দুর্দান্ত প্রদর্শন করেছেন। তিনি ২৯টি ম্যাচে আইপিএলে নেতৃত্ব দিয়েছেন, যার মধ্যে তাঁর জয়ের হার ৬৫.৫ শতাংশ থেকেছেন, যা অন্য অধিনায়কদের তুলনায় ভালো। এই অবস্থায় রাজস্থান রয়্যালসের সমর্থকদের তাঁর কাছ থেকে যথেষ্ট আশা থাকবে।

২. কেএল রাহুল

এই চার অধিনায়কের কাছে থাকবে শেষ সুযোগ, আইপিএলে ভালো প্রদর্শন না করলে হারাবেন নেতৃত্ব 3

ভারতীয় ক্রিকেট দলের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান কেএল রাহুলকে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব আইপিএল ২০২০-তে দলের অধিনায়ক নিযুক্ত করেছে। এর আগে কেএল রাহুল আইপিএলে কখনো অধিনায়কত্ব করেননি। এই অবস্থায় সমর্থকরা তাকে অধিনায়ক হিসেবে মাঠে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। এতে কোনো দ্বিমত নেই যে কেএল রাহুল টি-২০ ক্রিকেটে ভীষণই খতরনাক ব্যাটসম্যান। কিন্তু এখন যেহেতু তাঁর কাঁধে নেতৃত্বের দায়ভার রয়েছে, তো তাঁর প্রদর্শনে প্রভাব পড়তে পারে। কিন্তু যদি আইপিএল ২০২০-তে রাহুল দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে ভালো প্রদর্শন করতে না পারেন, তো অনিল কুম্বলের কোচিংয়ে থাকা এই দল রাহুলকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়েও দিতে পারে। এই কারণে এই মরশুমে রাহুলের ভালো প্রদর্শনই তাকে নেতৃত্বের জায়গায় বজায় রাখতে পারে।

৩. দীনেশ কার্তিক

এই চার অধিনায়কের কাছে থাকবে শেষ সুযোগ, আইপিএলে ভালো প্রদর্শন না করলে হারাবেন নেতৃত্ব 4

শাহরুখ খানের মালিকানাধীন ফ্রেঞ্চাইজি কলকাতা নাইট রাইডার্সের দল ২০১৮য় দলের নেতৃত্ব অভিজ্ঞ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান দীনেশ কার্তিককে দেওয়া হয়েছিল। যতই কার্তিক নিজের দলকে খেতাব জেতাতে না পারুন, কিন্তু আইপিএল ২০১৮য় তিনি দলকে প্লে অফ পর্যন্ত নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু গত মরশুমে কেকেআরের দল খারাপ রান রেটের কারণে প্লে অফে কোয়ালিফাই করতে পারেনি। এই কারণে এই মরশুমে কেকেআরের অধিনায়ক কার্তিকের উপর নেতৃত্বের চাপ দেখতে পাওয়া গিয়েছে। কারণ যদি কার্তিক এই বছর দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে না পারেন তো ফ্রেঞ্চাইজি কার্তিককে নেতৃত্ব থেকে সরাতে পারে। আইপিএলে যদি কার্তিকের জয়ের হারের কথা বলা হয় তো তিনি আইপিএলের ৩৬টি ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেছেন আর তার জয়ের হার ৪৭.২ শতাংশ।

৪. শ্রেয়স আইয়ার

এই চার অধিনায়কের কাছে থাকবে শেষ সুযোগ, আইপিএলে ভালো প্রদর্শন না করলে হারাবেন নেতৃত্ব 5

আইপিএলের ইতিহাসের সবচেয়ে তরুণ অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার আইপিএলে যথেষ্ট নাম করেছেন। তারকা রিকি পন্টিংয়ের কোচিনাধীন দিল্লি ক্যাপিটালসের দল ২০১৮য় গৌতম গম্ভীরের সরে দাঁড়ানোর পর শ্রেয়স আইয়ারকে নেতৃত্বের দায়িত্ব দিয়েছিল। এই তরুণ খেলোয়াড় তাঁর উপর দেখানো ভরসাকে বজায় রাখেন আর আইপিএল ২০১৯ এ দলকে ৭ বছরের দীর্ঘ অপেক্ষার পর প্লে অফে নিয়ে যান। এখন এই আইপিএল মরশুমেও দিল্লির সমর্থকদের এই তরুণ অধিনায়কের কাছ থেকে অনেক আশা থাকবে।
আসলে শ্রেয়স আইয়ার গত কিছু সময় ধরে অধিনায়কত্বে নিজেকে প্রমাণ করেছেন যে তিনি একজন ভালো অধিনায়ক। কিন্তু যদি এই স্পেশাল আইপিএল মরশুমে দলের নেতৃত্ব করার সময় তিনি কিছু ভুল করেন তো তার নেতৃত্ব চলে যেতে পারে। জানিয়ে দিই যে আইয়ার আইপিএলে ২৪টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন যার মধ্যে তার জয়ের হার ৫৪.২ শতাংশ।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *