৩ খেলোয়াড়, যারা আইপিএল ২০২০-তে হয়েছেন দারুণভাবে ফ্লপ

আইপিএল ২০২০-র শুরু হয়ে গিয়েছে আর একের পর এক রোমাঞ্চকর ম্যাচ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। এই ম্যাচে ইউএই-র তিনটি নির্বাচিত ম্যাচে সমস্ত ম্যাচের আয়োজন দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। দীর্ঘ অপেক্ষার পর খেলা হওয়া এই আইপিএল মরশুমের সমস্ত সমর্থকরাই আনন্দ নিচ্ছেন। এখনো পর্যন্ত যতগুলো ম্যাচই খেলা হয়েছে, তাতে ব্যাট এবং বলের মধ্যে রোমাঞ্চকর মোকাবিলা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। এখনো পর্যন্ত কিছু খেলোয়াড় সুপারহিট থেকেছেন তো অন্যদিকে কিছু খেলোয়াড় দারুণভাবে ফ্লপ হয়েছেন। কিছু খেলোয়াড় এমনও ছিলেন যাদের উপর দলের যথেষ্ট ভরসা ছিল, কিন্তু তারা বিশেষ কিছুই করতে পারেননি। এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সেই তিনজন বড়ো খেলোয়াড়ের ব্যাপারে জানাতে চলেছি যারা এখনো পর্যন্ত নিজের ফর্ম হাসিল করতে পারেননি আর নিয়মিত তারা ফ্লপ প্রমানিত হচ্ছে।

১. জোস বাটলার

৩ খেলোয়াড়, যারা আইপিএল ২০২০-তে হয়েছেন দারুণভাবে ফ্লপ 1

এই তালিকায় প্রথম নাম জোস বাটলারের রয়েছে। বাটলার আইপিএল-১৩য় শুরুর কিছু ম্যাচ মিস করেছিলেন আর আশা করা হচ্ছিল যে যখন তিনি টুর্নামেন্টে নিজের ফ্রেঞ্চাইজিতে যোগ দেবেন তো দারুণভাবে রান বৃষ্টি করতে দেখা যাবে। তবে এমন কিছু দেখতে পাওয়া যায়নি। ইংল্যান্ডের তারকা খেলোয়াড় এখনও পর্যন্ত তিনটি ম্যাচ খেলেছেন আর এর মধ্যে তার ব্যাট থেকে মাত্র ৪৭ রানই বেরিয়েছে। তিনিটি ইনিংসে তার গড় ১৫.৬৬ আর স্ট্রাইকরেট ১৩৫.২৮ থেকেছে। বাটলারের প্রত্যাবর্তনের পর রাজস্থান রয়্যালসের দল একের পর এক দুটি ম্যাচও হেরেছে আর বর্তমানে তাদের জন্য জয়ের চেয়ে বড়ো কিছুই নেই। বাটলার গত দু বছরে রাজস্থানের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করা ব্যাটসম্যান থেকেছেন আর সমর্থকরা চাইবেন যে তিনি দ্রুতই ফর্মে ফিরুন।

২. কেদার জাধব

৩ খেলোয়াড়, যারা আইপিএল ২০২০-তে হয়েছেন দারুণভাবে ফ্লপ 2

আইপিএল ২০২০-তে যে খেলোয়াড় নিয়মিত ফ্লপ থেকেছে সেই তালিকায় পরবর্তী নাম কেদার জাধবের। ৩৫ বছর বয়সী কেদার জাধব আইপিএল ১৩য় চেন্নাই সুপার কিংসের দলের অংশ থেকেছেন আর এখনো পর্যন্ত আইপিএলে তার প্রদর্শন নিরাশাজনক দেখতে পাওয়া গিয়েছে। সুরেশ রায়না হঠাত করেই আইপিএল থেকে সরে যাওয়ার পর কেদার জাধবের কাছে মিডল অর্ডার সামলানোর আশা করা হচ্ছিল, কিন্তু তিনি এতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছেন। এখনো পর্যন্ত তিনি এই মরশুমে সমস্ত ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন আর নিজের খেলা পাঁচটি ম্যাচের ৩টি ইনিংসে তার ব্যাট থেকে ক্রমশ, ২২, ২৬ আর ৩ রান দেখতে পাওয়া গিয়েছে। তিনটি ইনিংসে তার স্ট্রাইকরেটও মাত্র ১০৮.৫১ থেকেছে। এখনো পর্যন্ত কেদার জাধবের ব্যাট শান্তই দেখিয়েছে, কিন্তু চেন্নাইয়ের সমর্থক অবশ্যই এই আশা করে আছেন যে তিনি সময় থাকতেই ফর্মে ফিরে আসবেন আর দলের জয়ে যোগদান দেবেন।

৩. শেল্ডন কাটরেল

৩ খেলোয়াড়, যারা আইপিএল ২০২০-তে হয়েছেন দারুণভাবে ফ্লপ 3

ওয়েস্টইন্ডিজের স্ট্রাইক জোরে বোলারকে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল আইপিএল ১৩-র নিলাম চলাকালীন ৮.৫০ কোটি টাকার মোটা দাম দিয়ে কিনেছিল। টুর্নামেন্টের শুরু হওয়ার আগেও তিনি আইপিএল খেলা নিয়ে যথেষ্ট উৎসাহিত ছিলেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তার প্রদর্শন একদমই ফ্যাকাশে দেখিয়েছে। কাটরেল এখনও পর্যন্ত পাঁচটি ম্যাচ খেলেছেন আর ২৩.৮৮ গড়ে আর ৮.৪১ ইকোনমি রেটে মাত্র ৬টি উইকেট নিতেই সফল হয়েছেন। পাঞ্জাব এখনও পর্যন্ত পাঁচটি ম্যাচ খেলেছেন আর দলকে চারটি ম্যাচেই হারতে হয়েছে। শুধু তাই নয় পয়েন্ট তালিকাতেও এই দল অষ্টম স্থানেই রয়েছে। এই অবস্থায় সম্ভবতই হয়তো কাটরেলকে আগামী ম্যাচগুলিতে পাঞ্জাবের প্রথম একাদশে দেখা যাবে। জানিয়ে দিই যে শেল্ডন কাটরেলের বলেই রাজস্থান রয়্যালসের রাহুল তেওটিয়া পাঁচটি ছক্কা মেরেছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *