মাঠের বাইরে স্মিথ ও ধোনি ভিন্ন দুটি মানুষ, এভাবেই প্রশংসা করলেন ইংলিশ অলরাউন্ডার 1
স্টিভ স্মিথ ও মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

তিনিই এবছর আইপিএলের সবথেকে দামি খেলোয়ার। তার ওপর প্রথমবার আইপিএলের মত এক বিলাসবহুল ও আবেগপ্রবণ লিগে খেলছেন। ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের পক্ষে এই পাহাড় প্রমাণ প্রত্যাশার চাপ সামলে নিজের স্বাভাবিক খেলাটা, সত্যিই বড় একটা চ্যালেঞ্জ। তবে পুনের হয়ে তিনি যে কটি ম্যাচ খেলেছেন, তাতে তাঁকে স্বাভাবিকই লেগেছে। যদিও তাঁর চেনা ছন্দে এখনও দেখা যায়ই তাঁকে। কিন্তু সম্পূর্ণ একটা ভিন্ন আবহ থেকে এসে কীভাবে এই লিগে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিলেন তিনি!

এর জন্য এই অলরাউন্ডার অবশ্য বেশিরভাগ কৃ্তিত্ব দিত চান রাইসিং পুনের অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও প্রাক্তণ অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে। স্টোকসের বক্তব্য স্মিথ ও ধোনি মাঠের বাইরে সম্পূর্ণ ভিন্ন একটা মানুষ। সম্প্রতি টুইটারে একটি ভিডিওতে স্টোকস বলেন “তোমাদের সঙ্গে থাকাটা সত্যিই খুব সহজ।”

পুনেতে আসার পর ধোনি ও স্মিথ বাকি সদস্যদের সঙ্গে মিশে যেতে অনেকটাই সাহায্য করেন। স্টোকস বলেন, “স্মিথ ও ধোনি মাঠের বাইরে সম্পূর্ণ দুটি ভিন্ন চরিত্র। এটা খুব একটা দেখা যায়না। এটা আমার জন্য বেশ ভাল হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, “আমি সবথেকে দামি খেলোয়ার বলে দলের তরফ থেকে কখনও কোনও অতিরিক্ত চাপ দেওয়া হয়নি আমাকে। তবে আমার নিজের মধ্যে নিজেই একটা চাপ অনুভব করি। এরজন্য অবশ্য আমি নিজের স্বাভাবিক খেলাটা বদলাই নি।”

প্রথমবার আইপিএল খেলছেন স্টোকস। তাও রাইসিং পুনের হয়ে। সমর্থকদের ভালবাসা তিনিও পাবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এতটা উন্মাদনা হয়ত কখনও আশা করেননি তিনি। তিনি বলেন, “এটা আমাকে সত্যিই খুব অবাক করে দেয়, যখন দেখি টিম বাসে ওঠার সময় সমর্থকেরা বাস ঘিরে ধরে। বাইক বা গাড়ি নিয়ে বাসের পিছনে আসে। এই ভালবাসা ও উন্মাদনা পেয়ে সত্যিই ভাল লাগছে। ব্রিটেনে এমনটা পাইনি কখনও।”

এখানে দেখুন ভিডিওটি

Leave a comment

Your email address will not be published.