ভারতের মহিলা ক্রিকেট দলের কোচ হলেন বহিষ্কার, রোষের মুখে পড়লেন প্রশাসনিক কমিটির মহিলা সদস্য 1
পূর্ণিমা রাও ও ক্রিকেটার মিতালি রাজ

ভারতের মহিলা জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধাণ কোচ পূর্ণিমা রাওকে বহিষ্কার করল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ঠিক মহিলা বিশ্বকাপের আর মাত্র দেড় মাস বাকি থাকতে এই ধরনের এক সিদ্ধান্তে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মহিলা ক্রিকেট মহলে।

আইপিএল ২০১৭ঃ এবিডি ছাড়াও আরও দুজন চোট পেয়ে ছিটকে গেলেন, বললেন আরসিবি কোচ ভেত্তোরি

বিসিসিআইয়ের এই হটকারি সিদ্ধান্তে রীতিমত নিজের রাগ উগরে দিয়েছেন হায়দ্রাবাদের প্রাক্তণ এই মহিলা ক্রিকেটার। রাও বলেন, “আমি জানিনা আমি কোথায় ভুল করেছিলাম। ওরা আবার আমায় বহিষ্কার করল। বিসিসিআইয়ের ন্যূনতম দায়িত্ববোধটুকুও নেই যে, এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমায় জানাবে। আমি অন্য একজনের মুখে এই খবর পাই। এই ঘটনা সত্যিই খুব অপমানজনক।”

রাওকে আগে থেকে কিছু না জানিয়েই এই ধরনের এক সিদ্ধান্ত নেওয়া এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরও তাঁকে সরকারিভাবে কিছু না জানানোয় ব্যাপক অপমানিত বোধ করেছেন তিনি। নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, “ওরা (বিসিসিআই) আমায় অপমান করেছে। ওদের কাছে আমায় বহিষ্কার করার মত কোনও ব্যাখ্যাই নেই। আমি চুক্তিবদ্ধও ছিলাম না এবং অনেক কম পারিশ্রমিকেই এই কাজটা করতাম।”

এদিকে রাওকে সরিয়ে বরোদার প্রাক্তণ ক্রিকেটার তুষার আরোথীকে আপাতত প্রধাণ কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে। আরোথী ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের ফিল্ডিং কোচ হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন। তাকেই এবার আপতকালীন ভিত্তিতে প্রধান কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হল। আরোথী বলেন, “বিসিসিআই থেকে ফোন করে আমায় জিজ্ঞাসা করা হয় আমি এই পদের জন্য আগ্রহী কী না। ভারতীয় জাতীয় দলের কোচ হওয়ার মত একটা সুযোগ আমিও ছাড়তে চাইনি। কোচিং করনোর পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতাও আমার রয়েছে। তাই ওদের সঙ্গে আমার সম্পর্কও খুব ভাল। বিশেষ করে দলের জ্যেষ্ঠ ক্রিকেটারদের সঙ্গে আমার বেশ ঘনিষ্ঠতা রয়েছে।”

আগামী ২৪শে জুন থেকেই ইংল্যান্ডে ৫০ ওভারের মহিলা বিশ্বকাপ শুরু হবে। এই জায়গায় দাঁড়িয়ে এভাবে কোচ বদল কোনও প্রভাব ফেলে নাকি সেটাই এখন দেখার। এর আগেও রাওকে বহিষ্কার করেছিল বোর্ড। ২০১৪-তে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের খারাপ প্রদর্শনের জন্য তাঁকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। যদিও ২০১৫-তে তাঁকে আবার নিযুক্ত করা হয়। তবে এই সিদ্ধান্তে সুপ্রীম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসনিক কমিটির সদস্য ডায়ানা এডুলজির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন রাও। এডুলজিকে একজন প্রতিহিংসা পরায়ন মহিলা বলে তিনি আখ্যা দেন। রাও বলেন, “ও ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটের জন্য কোনওদিনও ভাল কিছু করেনি। ও খুবই প্রতিহিংসাপরায়ন একজন মহিলা। যখন মহিলা দলে খেলত তখনও এরকমই ছিল।”

আর কয়েকদিনের মধ্যেই চার দেশীয় একদিনের সিরিজে অংশগ্রহণ করবে ভারত। সেখানে দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবোয়ে ও আয়ারল্যান্ডও অংশ নেবে। রাওয়ের কোচিং পর্বে বেশ ভালই প্রদর্শণ করেছে ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়িং ম্যাচে তারা দক্ষিণ আফ্রিকার মত শক্তিধর দলকে হারিয়েছে। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই জানুয়ারিতেই সিরিজে জয় পেয়েছে ভারতীয় মহিলা দল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *