আইপিএলে  গড়াপেটা,  গ্রেপ্তার ভারতীয় দলের কোচ! 1

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের দ্বাদশ মরশুমে আরো একবার বেটিংয়ের সক্রিয়তা দেখা যাচ্ছে। বেটিংয়ের জন্য আইপিএল আসার সঙ্গে সঙ্গে আদর্শ পরিবেশ তৈরি হয়ে যায়, কিন্তু এবার বেটিংয়ে এমন একটা নাম সামনে এসেছে যার বিশ্বাস করা মুশকিল।

আইপিএল ম্যাচের বেটিংয়ে প্রাক্তন মহিলা দলের কোচ গ্রেপ্তার

এই আইপিএল মরশুমে বেটিংয়ে ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের প্রাক্তন কোচ তুষার আরোঠের নাম সামনে আসছে আর তাকে বেটিংয়ের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আইপিএলে  গড়াপেটা,  গ্রেপ্তার ভারতীয় দলের কোচ! 2

প্রাক্তন রঞ্জি ক্রিকেটার থাকা তুষার আরোঠেকে সোমবার গভীর রাতে ক্রাইম ব্রাঞ্চ ইউনিট আইপিএলের বেটিং র্যাথকেটের ব্যাপারে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দিল্লি ক্যাপিটালস আর কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মধ্যে ম্যাচ নিয়ে তুষার আরোঠেকে একটি ক্যাফেতে বেটিং চলছিল যেখানে পুলিশ রেড করে ১৯জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

তুষার আরোঠকে বেটিংয়ে লিপ্ত থাকার কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে

বেটিংয়ের চক্র ভাঙার পর ক্রাইম ব্রাঞ্চের ডিসিপি জয়দীপ সিং জাদেজা বলেন যে,

“আমাদের অলকাপুরিতে ক্যাফেতে স্টক এক্সচেঞ্জে বেটিংয়ের গতিবিধির ব্যাপারে সূচনা পাওয়া গিয়েছিল। যেখানে আইপিএলের ম্যাচে রিলে করার জন্য একটি বড়ো স্ক্রীন চালানো হচ্ছিল। আমরা সেখানে নজর রাখি আর সোমবার রাতে রেড করি। কিছু লোক পাশে বসেছিল। আইপিএল ম্যাচের উপর অনলাইন বেটিংয়ে ওই ক্যাফেটি শামিল ছিল”।

আইপিএলে  গড়াপেটা,  গ্রেপ্তার ভারতীয় দলের কোচ! 3

“আমরা সেখানে মোবাইল ফোনের তদন্ত করি আর দেখি যে হেমাঙ্গসহ ১৯জন তিনটি আলাদা আলাদা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের বেট লাগাচ্ছিল। হেমাঙ্গ, যিনি ওই ক্যাফেরই একজন সঙ্গী আর ও মোবাইল অ্যাপ থেকে বেটিং করার কথা স্বীকার করছে আর বেট লাগাচ্ছিল। আরোঠেও ওই সময় সেখানে উপস্থিত ছিল”।

অলকাপুরীতে ক্রাইম ব্রাঞ্চের রেড, ১৯জন গ্রেপ্তার

জয়দীপ সিং জাদেজা আগে বলেন যে,

“আরোঠের ছেলে ঋষিও ওই ক্যাফের অংশীদারদের মধ্যে একজন, কিন্তু এখন যখন রেড করা হয় তখন সে ওখানে উপস্থিত ছিল না। ঋষি রঞ্জি ক্রিকেটারও যিনি বরোদার হয়ে খেলতেন। আমাদের তদন্তে জানা গিয়েছে যে হেমাঙ্গ ক্রিকেটের বেটিংয়ের কারবার রয়েছে”।

আইপিএলে  গড়াপেটা,  গ্রেপ্তার ভারতীয় দলের কোচ! 4

“ও লাখ লাখ টাকার বেটিং করার কথা স্বীকার করে আর ও বাবা নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে যোগযোগ রেখেছিল। এখন আমরা বাবাকে ট্র্যাক করার চেষ্টা করছি”।

আরোঠে করলেন বেটিংয়ের অস্বীকার

বেটিংয়ে গ্রেপ্তার সমস্ত অভিযুক্তদের জামিনে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ছাড়া পাওয়া তুষার আরোঠে জানান,

“আমি জানিনা যে আমাকে কেন গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যদি কিছু গ্রাহক আমার ক্যাফেতে আসে আর মোবাইল অ্যাপে বেটিং করে তো আমি কিভাবে তা জানব? যতদূর হেমাঙ্গের সম্বন্ধ ও ক্যাফের একজন অংশীদার কিন্তু ও সবসময় ওর সঙ্গে বসে থাকে। বন্ধুরা, আমি জানিনা যে বেট লাগাচ্ছিল। আমি কোনো ইললিগ্যাল গতিবিধি করিনি আর আমি নিজের সম্মানের জন্য লড়ব”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *