মাত্র ৪৩ বছর বয়সেই প্রয়াত হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটারটি 1

 

বেশ কয়েক’দিন ধরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি রীতিমতো ভুগছিলেন।সেই মোতাবেক তাঁর পরিবারের সদস্যরা ভর্তি করেছিলেন নামী এক হাসপাতালে। যদিও চিকিৎসকদের যাবতীয় চেষ্টা বিফলে দিয়ে গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মাত্র ৪৩ বছর বয়সে প্রয়াত হন কর্ণাটকের প্রাক্তন ক্রিকেটার কে শ্রীরাম। রেখে গেলেন স্ত্রী এবং নিজের দুই সন্তানকে। উল্লেখ্য, শ্রীরামের অকাল প্রয়াণে শোকের ছায়া গোটা কর্ণাটক ক্রিকেট জুড়ে।

কে শ্রীরাম নিজের রাজ্য কর্ণাটকের হয়ে ১৫টি প্রথম শ্রেনির ক্রিকেট ম্যাচ খেলেছেন।২৮ গড়ে ওই ১৫ ম্যাচে তিনি ৬৪৪ রান তুলতে সফল হয়েছিলেন।তাঁর ক্রিকেট কেরিয়ারের স্বরণীয় মুহূর্ত হল, তিনি নিজের অভিষেক প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে শতরান হাঁকিয়েছিলেন ভদ্রাবতীতে।সেবারে অর্থাৎ ১৯৯৬-৯৭ সালে তিনি শক্তিশালী তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে নজরকাড়া ১৭৪ রানের একটি ইনিংস খেলেছিলেন।

বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ অনিল কুম্বলের নেতৃত্বে কর্ণাটক হয়ে খেলেছিলেন শ্রীরাম। এমনকি শক্তিশালী তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে রঞ্জি ফাইনালে কর্ণাটক দলের অন্যতম স্তম্ভ হিসেবে নিজের ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। সেবারে তামিলনাড়ুকে হারিয়ে দীর্ঘ ১৩ বছর পর রঞ্জি ট্রফি জিতেছিল কর্ণাটক। আশ্চর্যজনকভাবে সেবারের তামিলনাড়ুর হয়ে রঞ্জি ফাইনালে খেলেছিলেন কে শ্রীরামের ভাই কে শ্রীনাথ।পরবর্তী সময়ে এই কে শ্রীনাথকে প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে আম্পায়ারিং করতে দেখা যায়। এমনকি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি-২০ তেও আম্পায়ারিং করেছেন শ্রীরামের ভাই শ্রীনাথ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *