ভারত ক্রিকেটের মহারাজাঃ সৌরভ গাঙ্গুলী 1

দাদা, দাদা, দাদা!

বড় আদরের ডাক, এক অসীম নির্ভরশীলতার আশ্রয়। বাঙালিরা দাদা-দিদিদের ছত্রছায়ায় থাকতে বড় ভালোবাসে। কিন্তু আজ এখন যে দাদার কথা বলব সেই দাদা যেই সেই দাদা নয়, তিনি কলকাতার রাজপুত্র, ভারতের ক্রিকেটের মহারাজা, আপামর বাঙালি তথা বিশ্ববাসীর দাদা তিনি হলেন সৌরভ গাঙ্গুলী।

ভারত ক্রিকেটের মহারাজাঃ সৌরভ গাঙ্গুলী 2
Getty Images

১৯৭২ সালে আজকের দিনে জন্ম নেনে আমাদের দাদা সৌরভ চন্ডীদাস গাঙ্গুলী। তারপর১৯৯২ সালে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দলে জায়গা পাওয়া এবং ১৯৯৬ সালে টেস্ট দলে অভিষেক হওয়া, বাকীটা ইতিহাস এবং মহারাজার হওয়ার গল্প শুরু এখান থেকেই।

২০০০ সালের গড়াপেটা ক্লান্ত ভারতকে নতুন দিশা দেখান এই মানুষটিই, বাঙালির ক্রিকেট ভালোবাসার নেপথ্যে রয়েছে এই জাদুকরের জন্যই। ইডেন গার্ডেন স্টেডিয়াম, কলকাতার ক্রিকেট গ্রাউন্ড। সৌরভ গাঙ্গুলীর অভিষেক হওয়ার পর থেকেই যেকোনো ক্রিকেট দর্শকদের জন্য ইডেন গার্ডেনে খেলা দেখা ছিল অনেক উত্তেজনাপূর্ণ ও স্মরণীয় করে রাখার মত। সৌরভ গাঙ্গুলী যখন ইডেন গার্ডেনে খেলতে নামতেন তখন পারিপার্শ্বিক অবস্থা ছিল চরম উত্তেজনাপূর্ণ। ঘরের ছেলে ঘরের মাঠে খেলতে নামলে এইরকম হওয়াটাই স্বাভাবিক।

ভারত ক্রিকেটের মহারাজাঃ সৌরভ গাঙ্গুলী 3
Getty Images

১৯৯২ সালে অভিষেক ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র ৩ রান করে আউট হয়েছিলেনে তিনি, এই ম্যাচের পর থেকেই স্বরুপের ফেরা, কিছুকিছু মানুষ তার এই ম্যাচের কথা মনে রাখলেও সৌরভ আর পিছনে তাকাননি, এরপর বলতে গেলে নিজের রেকর্ড কীর্তি দিয়ে একটি রেকর্ড বই রচনা করেছেন। প্রতিভাবান এই সৌরভ নিজের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে একের পর এক ম্যাচ জিতিয়েছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি একমাত্র ভারতীয় ক্রিকেটার যিনি সবার আগে ১৮০০০ রান স্পর্শ করতে পেরেছেন।

২০০০ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন এই মহারাজা, এই সময়েই দলকে পালটে দিয়েছেন, তার হাত ধরেই একটা পরিপূর্ণ দলের পরিণত হয়েছে ভারত। তবে ক্যারিয়ারে তার অনেক খারাপ সময়ও গিয়েছে, দল থেকে নানা কূটচালে তাকে বাদ দিলেও রাজকীয় ভঙ্গিতেই বারবার ফিরে এসেছেন জাতীয় দলে। ফিরে এসেও তিনি তার সেরা খেলা খেলেছেন সবসময়, সমালোচকদের মুখ বন্ধ করেছেন তার পারফরমেন্স দিয়েই।

ভারত ক্রিকেটের মহারাজাঃ সৌরভ গাঙ্গুলী 4

সৌরভ গাঙ্গুলী ছোট বেলাই থেকে হিরো, খেলাধুলার সাথে ছোটবেলা থেকেই তিনি জড়িত। ভারতের মানুষ তাকে অনেক ভালবাসে, কলকাতায় বেড়ে উঠলেও ভারতের সব শহরেই রয়েছে তার সুনাম, কোনো দিক দিয়ে কমতি নেই। তিনি যেমন ভালো ক্রিকেটার ঠিক তারচেয়ে অনেক ভালো মানুষও তিনি। তার কারণেই আজ কলকাতা শহর পরিপূর্ণ, তিনিই সেই ব্যক্তি যার কারণে ইডেন গার্ডেন পূর্ণতা পেয়েছে, সবকিছুর পর তিনি শুধু কলকাতার প্রিন্স না গোটা ভারতের মহারাজাই তিনি।

সবশেষে বলা যায়, যে মানুষ টা ক্রিকেট খেলা শুরু করেছিল সমালোচনার মাধ্যমে, তারপর একের পর এক ইতিহাস, রেকর্ড গড়ে ভারত ক্রিকেট টিমকে নিয়ে গেছেন অনন্য এক উচ্চতায়, অন্যদিকে ক্রিকেটের বাহিরেও রয়েছে যার অগণিত সমর্থক, ক্রিকেটার সৌরভ থেকে যেন ব্যক্তি সৌরভ অনেক ভালো। তাহলে এই ধরনের মানুষের নামের পাশেই তো ক্রিকেটের মহারাজা শব্দটি মানায়। ক্রিকেটে হয়ত অনেক মহারাজা আসবে কিন্তু সৌরভ গাঙ্গুলীর মত মহারাজা আর কখনো আসবেনা, তিনি দাদা আবার তিনিই মহারাজা।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *