ভারতীয় ক্রিকেটের তিনটি বন্ধুত্বের গল্প যা পরবর্তীতে শত্রুতাতে পরিণত হয়েছে 1
Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

ক্রিকেট মাঠে দীর্ঘ সময় কাটানোর পর প্রায়ই খেলোয়াড়দের মধ্যে গভীর বন্ধুত্ব হয়, যা খুব সাধারণ বিষউ। কিছু ক্ষেত্রে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের মধ্যেও ভালো বন্ধুত্ব দেখা যায়। এজন্য ক্রিকেটকে বলা হয় জেন্টলম্যানস গেম। বন্ধুত্বের পর অবশ্য অনেক সম্পর্কের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হহ। কিন্তু এটা খুব কমই দেখা যায় যে, কিছু সময়ের জন্য বন্ধু হওয়ার পর খেলোয়াড়রা একে অপরের বিরুদ্ধে এত বেশি চলে যায় যে তারা একে অপরের মুখ দেখতেও পছন্দ করে না। দেখে নেব এই রকম তিনজন খেলোয়াড়ের সম্পর্ক, যাদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক শুরু হয়েছিল কিন্তু কিছু ঘটনার পর তারা শত্রুতে পরিণত হয়েছিল।

মুরালি বিজয়- দীনেশ কার্তিক

ভারতীয় ক্রিকেটের তিনটি বন্ধুত্বের গল্প যা পরবর্তীতে শত্রুতাতে পরিণত হয়েছে 2

দীনেশ কার্তিক এবং মুরলি বিজয় তামিলনাড়ুর হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। এরপর তাদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আইপিএল শুরুর আগ পর্যন্ত এই সম্পর্ক খুব ভালো ছিল। এরপর দীনেশ কার্তিক বিজয়কে তার স্ত্রীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। এরপর মুরলী বিজয় এবং দীনেশ কার্তিকের স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক শুরু হয়। কিছুদিন পর খবর পেলেন দীনেশ কার্তিক। তার পরেই দীনেশ কার্তিক তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন। সেই সঙ্গে তিনি মুরলী বিজয়ের সঙ্গে বন্ধুত্বের ইতি টানেন। দীনেশ কার্তিকের ডিভোর্স হওয়ার সাথে সাথেই মুরলী বিজয় নিকিতাকে বিয়ে করেন। এই ঘটনার পর, বহু বছর ধরে দীনেশ কার্তিক এবং মুরলী বিজয়ের বন্ধুত্ব শত্রুতে পরিণত হয়। বর্তমানে এই দুই খেলোয়াড় একে অপরের মুখ দেখতে পছন্দ করেন না।

Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *