নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএলের বাকি ম্যাচ না খেলে তবে সমস্যায় পড়বে এই তিনটি দল 1

 

 

আইপিএল ২০২১ ভারতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল, তবে করোনার ভাইরাসের কারণে টুর্নামেন্টটি স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল গত ৪ মে। তবে এখন বিসিসিআই আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছে যে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে স্থানান্তরিত হবে। অর্থাৎ, আইপিএল ২০২১ অনুষ্ঠিত হতে পারে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে। তবে ইতিমধ্যে ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে আইপিএল ২০২১ পুনরায় শুরু করা হলে তাদের খেলোয়াড়রা টুর্নামেন্টে অংশ নেবে না। যদিও এই মুহুর্তে বোর্ড বিদেশি বোর্ডের সাথে কথা বলবে, তবে এখন ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা আইপিএলে অংশ না নিলে কী হবে তা ভেবে দেখার বিষয়? আসুন আমরা দেখেনি ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা দলে না যোগ দেওয়ায় কোন তিনটি দলের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে।

নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএলের বাকি ম্যাচ না খেলে তবে সমস্যায় পড়বে এই তিনটি দল 2
রাজস্থান রয়্যালস: ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএল ২০২১ এর বাকি ম্যাচগুলিতে অংশ না নেয়, তবে রাজস্থান রয়্যালস এর সবচেয়ে বড় ক্ষতি হবে। বিষয়টি হল রাজস্থানের স্কোয়াডের দিকে নজর দিলে এই দলের বেশিরভাগ তারকা খেলোয়াড় ইংল্যান্ডের। উদাহরণস্বরূপ, বেন স্টোকস, জোফ্রা আর্চার, জস বাটলার ইংল্যান্ডের এবং তারা এই দলের প্রধান খেলোয়াড়। এর বাইরে লিয়াম লিভিংস্টোনও ইংল্যান্ডের। এখন এই সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে খেলা বাকি ম্যাচগুলিতে যদি এই খেলোয়াড়রা স্কোয়াডের অংশ না হন, তবে অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন চিন্তিত হবেন। প্রথমার্ধে, যখন রাজস্থান রয়্যালসের ভালো সময় যাচ্ছিল না। এখন যখন বাটলারও থাকবেন না, প্লে-অফের জন্য দলের যোগ্যতা অর্জন করা কঠিন বলে মনে হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএলের বাকি ম্যাচ না খেলে তবে সমস্যায় পড়বে এই তিনটি দল 3

চেন্নাই সুপার কিংস: ২০২১ সালের আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস প্রথমার্ধে একটি দুর্দান্ত শুরু করে এবং পয়েন্টস টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। তবে এখন ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি দলে যোগ দিতে না পারেন তবে তার প্রভাব দলের উপরেই দেখা যাবে। প্রকৃতপক্ষে, ইন-ফর্ম খেলোয়াড় স্যাম করণ এবং মইন আলী প্রথমার্ধে সিএসকে -র হয়ে ম্যাচজয়ী পারফরম্যান্স করেছিলেন। অধিনায়ক ধোনি আলিকে উপরের দিকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন এবং তিনি ভালো করেছিলেন। স্যাম করণ, দীপক চাহারের সাথে মিলে দলের হয়ে ম্যাচজয়ী পারফরম্যান্স করেছিলেন। এছাড়া, মিচেল স্যান্টনারও উপলব্ধ হবেন না। এই খেলোয়াড়দের অনুপস্থিতিতে, চেন্নাই গাড়ি আবারও পিছলে পড়তে পারে এবং প্লে-অফে পৌঁছানোর সম্ভাবনা কম হতে পারে।

নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএলের বাকি ম্যাচ না খেলে তবে সমস্যায় পড়বে এই তিনটি দল 4

 

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল এবং ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা যদি আইপিএল ২০২১ -এর দ্বিতীয়ার্ধে অংশ না নেয়, তবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অবস্থা আরও খারাপ হতে চলেছে। আসলে, এই দলের অধিনায়ক অর্থাৎ কেন উইলিয়ামসন নিজেই কিউয়ি খেলোয়াড়। এখন কিউই দলের খেলোয়াড়রা আইপিএলে যোগ না দিলে হায়দরাবাদকে আবারও অধিনায়ক পরিবর্তন করতে হতে পারে। একই সাথে জেসন রায়, জনি বেয়ারস্টো ইংল্যান্ড থেকে এসেছেন এবং তারা টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারবেন না। এমন পরিস্থিতিতে হায়দরাবাদের দল সমস্যায় পড়বে, কারণ তাদের তারকা খেলোয়াড় কেন উইলিয়ামসন এবং বেয়ারস্টো দলে থাকবেন না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *