যখন একমাত্র সময়ই বলতে পারবে যে ক্রিকেট মাঠে স্মিথ ব্র্যাডম্যানের কৃতিত্বের অধিকারী হতে পারবেন কিনা, তখন কিছু সময়ের জন্য হলেও অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক তার স্বদেশীয় কিংবদন্তীর অসাধারণ কৃতিত্বকে ছোঁয়ার পথে বেশ খানিকটা এগিয়ে গেলেন। টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানদের র্যা ঙ্কিংয়ে নিজের একনম্বর স্থানকে আরও শক্তিশালী করে এই ২৮ বছর বয়েসী ব্যাটসম্যান ডন ব্র্যাডম্যানের সর্বকালীন সর্বোচ্চ র্যানঙ্কিং পয়েন্টের প্রায় কাছাকাছি পৌঁছে গেলেন। পার্থে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অ্যাসেজ সিরিজের সদ্য শেষ হওয়া তৃতীয় টেস্টে তার ম্যাচ জেতানো দুর্দান্ত ডবল সেঞ্চুরির দৌলতে তিনি আইসিসির টেস্ট প্লেয়ার র্যাবঙ্কিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট বাড়িয়ে নিয়েছেন।

নিজের দলকে সামনে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দিয়ে এই এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান ডব্লিউএসিএর মাঠে নিজের কেরিয়ারের সেরা ২৩৯ রান করেছেন, যা শুধু তার দলকে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে অনতিক্রম্য ৩-০ ফলাফলে এগিয়েই দেয় নি বা সম্মান পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করেনি বরং সেই সঙ্গে ৯৪৫ পয়েন্টে পঊঁছতে সাহায্য করেছে। যা ক্রিকেট খেলার ইতিহাসে যুগ্মভাবে দ্বিতীয় সেরা রেটিং। এই অস্ট্রেলীয় স্টার এখন যুগ্মভাবে ইংল্যান্ডের কিংবদন্তী লেন হাটনের সঙ্গে একই স্থানে রয়েছেন। ব্রিসব্রেনের প্রথম টেস্টে অপরাজিত সেঞ্চুরি করে স্মিথ ৯৪১ পয়েন্টে পৌঁছেছিলেন। কিন্তু অ্যাডিলেড টেস্টে তার নিস্প্রভতার কারণে তিনি তিন পয়েন্ট হারান। যদিও তৃতীয় টেস্টে তার দুর্দান্ত ডবল সেঞ্চুরির পর তিনি ৭ পয়েন্ট এগিয়ে গেছেন। ৯৪৫ পয়েন্ট পাওয়ার কারণে তিনি ক্রিকেট ইতিহাসের অনেক বড়ো নাম যেমন পিটার মে, রিকি পন্টিং এবং জ্যাক হবসকে পেছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছেন। এই মুহুর্তে স্মিথ সকলকে অতিক্রমকারী ডন ব্র্যাডম্যানের ম্যাজিক ফিগার ৯৬১ পয়েন্টের থেকে মাত্র ছুঁতে পারার দূরত্বেই রয়েছেন।

স্মিথ গত দু’বছর ধরেই টেস্ট ক্রিকেট র্যা ঙ্কিংয়ের এক নম্বর জায়গাটা ধরে রেখেছেন। গত কয়েক বছর ধরেই তিনি টেস্ট ক্রিকেটে প্রচুর রান করে চলেছেন এবং ঘটনা হল তিনি তার ভারতীয় প্রতিদ্বন্ধী বিরাট কোহলির থেকে ২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন যা সেটাকেই প্রমান করে। শেষ ২০টি টেস্টে স্মিথের ব্যাটিং গড় ৬২.৩২, যা ব্যাটসম্যানদের সারিতে ব্র্যাডম্যানের পরেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। স্মিথ ১১৪টি টেস্ট ধরে শীর্ষ স্থান নিজের দখলে রেখেছেন যা সেই তালিকায় পঞ্চম, যে তালিকার শীর্ষ চার ব্যাটসম্যান হলেন গ্যারি সোবার্স (১৮৯ টেস্ট), ভিভ রিচার্ডস (১৭৯), ব্রায়ান লারা (১৪০), এবং শচীন তেন্ডুলকর (১৩৯)।
অন্য যেসমস্ত ব্যাটসম্যান আইসিসির বর্তমান তালিকায় গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট বাড়াতে পেরেছেন তারা হলেন ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান ডয়েড মালান, এবং অস্ট্রেলিয়ার মিশেল মার্স। এই দুজনে বর্তমানে তাদের কেরিয়ারের সেরা র্যা্ঙ্কিংয়ে রয়েছেন।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। দ্বিতীয় ডিভিসনে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলার দরুণ ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত। ব্রায়ান লারা সচিনের অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    চাই না আমাদের বিপক্ষে ধোনি এভাবে ব্যাট করুক : বিরাট

    চাই না আমাদের বিপক্ষে ধোনি এভাবে ব্যাট করুক : বিরাট
    বুধবার চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের দর্শকরা আইপিএলের রুদ্ধশ্বাস ডার্বি ম্যাচের সাক্ষী হয়ে থাকল। আইপিএলের দুই দক্ষিণী দৈত্যের লড়াই প্রত্যক্ষ...

    আইপিএল ২০১৮: নিজেদের শক্তি কতটা বাস্তবে এটা অনেকেই জানে না : ধোনি

    এই মরশুমের আরও একটি রুদ্ধশ্বাস আইপিএল লড়াইয়ের উদাহরণ থাকল আরসিবি বনাম চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচ। একে অপরকে...

    দেখে নিন: কত বড় ছক্কা মারলেন এবি ডেভিলিয়র্স, যা আছড়ে পড়ল স্টেডিয়ামের বাইরে

    দেখে নিন: কত বড় ছক্কা মারলেন এবি ডেভিলিয়র্স, যা আছড়ে পড়ল স্টেডিয়ামের বাইরে
    খুব কমই উদাহরণ রয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটে এবি ডেভিলিয়র্সের ব্যাটিং তান্ডবের থেকে ভাল কিছু। নিজের দিনে বিশ্বে যে...

    বেটিং চক্রে ধরা পড়লেন ঋদ্ধির কোচের ছাত্র এই প্রাক্তন ক্রিকেটার

    বেটিং চক্রে ধরা পড়লেন ঋদ্ধির কোচের ছাত্র এই প্রাক্তন ক্রিকেটার
    ক্রিকেটের বড় প্রতিযোগিতা মানেই বিশ্বজুড়ে বেটিং চক্রের রমরমা। যার জালে জড়িয়ে পড়েছে বহু ক্রিকেটারই। এই বেটিং চক্রের...

    বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্থান দ্বৈরথ কবে, ঘোষিত হল তারিখ

    এমনিতে ভারত পাকিস্থান ক্রিকেট দ্বৈরথ মানে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতি আর তা যদি হয় বিশ্বকাপের মত বড় মঞ্চে তাহলে...