হার্দিক পাণ্ডিয়ার কারণে এই প্রতিভাবান প্লেয়ারদের কেরিয়ার হচ্ছে খারাপ, দলের ভারসাম্য বিগড়োচ্ছেন কোহলি

এখন হার্দিক পান্ডিয়া অলরাউন্ডার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে ভারতীয় দলের সদস্য হিসেবে আছেন। হার্দিক সীমিত ওভারের কিছু ম্যাচে ব্যাট করে দর্শকদের ধ্যান নিজের দিকে আকর্ষিত করেছিলেন। এরপর লাগাতার তিনি ক্রিকেটের তিন ফর্ম্যাটেই ভারতীয় দলের সদস্য থেকেছেন। কিন্তু যদি পান্ডিয়ার পরিসংখ্যানের দিকে নজর দেওয়া হয় তাহলে তিনি এখনও পর্যন্ত বিশেষ কিছুই করেন নি।
যদি আমরা এই বছরের গোড়ায় দক্ষিন আফ্রিকা সিরিজ নিয়ে কথা বলি তো তাহলে এই সিরিজে হার্দিকের প্রদর্শন যথেষ্ট নিরাশাজনক ছিল। এই সিরিজে না তো হার্দিক ব্যাটে কিছু করতে পেরেছেন আর না বল হাতে।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে এত খারাপ পারফর্মেন্সের পরও দলে
হার্দিক পাণ্ডিয়ার কারণে এই প্রতিভাবান প্লেয়ারদের কেরিয়ার হচ্ছে খারাপ, দলের ভারসাম্য বিগড়োচ্ছেন কোহলি 1
দক্ষিন আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্টে পান্ডিয়া অলরাউন্ডার হিসেবে দলে জায়গা পেয়েছিলেন। কিন্তু দক্ষিন আফ্রিকার বিরুদ্ধে তার পারফর্মেন্স দেখা গেলে দেখা যাবে তার পরিসংখ্যান খুবই খারাপ। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩টি টেস্ট খেলেছিলেন, যার মধ্যে ৬টি ইনিংসে তিনি মোট ১১৯ রান করেন। এই ৬টি ইনিংসে পান্ডিয়ার ব্যাট থেকে ১৪টি চার আর একটি মাত্র ছক্কা বেরয়। বল হাতেও তিনি ৬টি ইনিংসে মোট ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন। হার্দিক এই সিরিজে না জানি কি দেখিয়েছেন যে আগামি সিরিজেও তাকে দলে শামিল করা হয়েছে। এত খারাপ পারফর্মেন্স করার পরও নির্বাচকরা হার্দিকের উপর প্রসন্ন হয়ে রয়েছেন এবং ক্রিকেটের তিন ফর্ম্যাটেই তাকে লাগাতার প্লেয়িং ইলেভেনে জায়গা দিয়ে চলেছেন।

নিজের মেহেনতে নয় বরং এই সকলের সহায়তায় দলে খেলেন পাণ্ডিয়া
হার্দিক পাণ্ডিয়ার কারণে এই প্রতিভাবান প্লেয়ারদের কেরিয়ার হচ্ছে খারাপ, দলের ভারসাম্য বিগড়োচ্ছেন কোহলি 2
এখন নির্বাচক হোক বা দলের অধিনায়ক বা কোচ, পান্ডিয়া সকলেরই প্রিয়। দল নির্বাচনের কথা ছেড়ে দিলেও হার্দিক প্রত্যেক ম্যাচেই অলরাউন্ডার হিসেবে প্লেয়িং ইলেভেনে খেলবেন। এখন পান্ডিয়ার জন্য কোচ ভাল ছন্দে থাকা বোলারকেও দলের বাইরে করে দিতে পারেন কিন্তু হার্দিকের জায়গা কেউ নিতে পারবেন না। এখন কথা বলা যাক ইংল্যান্ড সফরের যেখানে পান্ডিয়ার নির্বাচন তো হয়েই গেছে কিন্ত এটা দেখা মজাদার হবে যে তিনি প্রথম একাদশে জায়গা পান কি না। কারণ অশ্বিন জাদেজা কুলদীপের ত্রিফলা প্লেয়িং ইলেভেনের জন্য নিজেদের দাবী মজবুতভাবে পেশ করে চলেছেন। অন্যদিকে জাদেজা, অশ্বিনের পাশাপাশি কুলদীপও ভালই ব্যাটিং করতে পারেন।কারণ টেস্টে হিটারের নয় বরং ধৈর্য্য ধরে খেলার মত ব্যাটসম্যানের প্রয়োজন। ভারতের কাছে স্পেশালিস্ট জোরে বোলার হিসেবে ইশান্ত শর্মা, মহম্মদ শামি, আর উমেশ যাদবের সঙ্গে জসপ্রীত বুমরাহও রয়েছেন যারা সবসময়ই হার্দিকের চেয়ে নিজেদের ভাল প্রমানিত করেছেন। এই অবস্থায় হার্দিক পান্ডিয়াকে যদি দলে জায়গা দেওয়া হয় তাহলে এই প্লেয়ারদের সঙ্গে অন্যায় করা হবে।

পান্ডিয়ার কারণে বিগড়চ্ছে দলের ভারসাম্য
হার্দিক পাণ্ডিয়ার কারণে এই প্রতিভাবান প্লেয়ারদের কেরিয়ার হচ্ছে খারাপ, দলের ভারসাম্য বিগড়োচ্ছেন কোহলি 3
গত বেশ কিছু ম্যাচে দেখা যাচ্ছে ভারতের বোলিং কমজোরি হয়ে পড়ছে। তার কারণ হলেন পাণ্ডিয়া। এই মুহুর্তে কোচ এবং অধিনায়ক পান্ডিয়ার কারণেই ভুবনেশ্বর কুমারের মত জোরে বোলারকেও দলের বাইরে বসিয়ে রাখতে পারেন তো সেখানে ছোটো বোলারদের কথাই আলাদা। কিন্তু যদি পান্ডিয়ার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পারফর্মেন্স দেখা হয় তাহলে তার দলে থাকারই কথা নয়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *