লন্ডন: হরমনপ্রীত কৌরের হাত ধরেই ১২ বছর পর ফের বিশ্বকাপের ফাইনালে চলে গেল ভারত। ধরাশায়ী হয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। বলা যেতে পারে, ডার্বি মহাকাব্য রচনা করলেন হরমনপ্রীত। কপিল দেবের ১৭৫ রানের সেই মহাকব্যিক ইনিংসটির পর নিঃসন্দেহে ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসটি খেললেন হরমনপ্রীত কৌর। রোহিত শর্মা, বীরেন্দ্র সহবাগ, শচীন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধায়’রা হয়তো তাঁর থেকে বেশি রান করেছেন। কিন্তু বৃহস্পতিবারের যে ইনিংসটা তিনি খেললেন, তার তুলনা মেলা ভার।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় ইনিংসে হরমনপ্রীতের গুরুত্ব কতটা ছিল, সেটা একটা তথ্যেই বোঝা যাবে। সেটা হল, ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোরারের অবদান মাত্র ৩৬। ২৫ ওভারে একশোর কিছু বেশি রান উঠেছে, মিতালিও ফিরে গিয়েছেন। মনে করা হচ্ছিল বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন’রা এ বার ভারতের পিঠে চেপে বসবে। কিন্তু সেটা হতে দিলেন না পঞ্জাবের মেয়ে হরমন। কুড়িটা চার এবং সাতটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে একাই অস্ট্রেলিয়ার ওপরে শাসন করে গেলেন তিনি।

এখানে দেখুনঃ হরমনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ শচীন, ট্য়ুইট করে জানালেন শুভেচ্ছা

৪২ ওভারে ২৮২, মহিলা ক্রিকেটে কেন, পুরুষ ক্রিকেটেও খুব একটা হয় না। তবে বিপক্ষে যখন অস্ট্রেলিয়া, তখন একটা সন্দেহ ছিল যদি কোন ভাবে ম্যাচটি বের করে নিয়ে যায় তারা। তবে শুরুতেই অস্ট্রেলিয়া শিবিরে ধাক্কা দেন পেসার শিখা পাণ্ডে। এর কয়েক ওভার পরেই নিজের বিষাক্ত সুইং-এ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক তথা বিশ্বের এক নম্বর মহিলা ব্যাটসম্যান মেগ ল্যানিং-এর উইকেট ছিটকে দেন ঝুলন গোস্বামী। কিছুক্ষণ পরেই অস্ট্রেলিয়ার তিন নম্বর উইকেটটি তোলেন দীপ্তি।

এর পরেই দুর্ধর্ষ একটা পার্টনারশিপের মাধ্যমে ভারতের ওপর পাল্টা চাপ সৃষ্টি করার চেষ্টা করছিলেন এলিজ ভিলানি এবং এলিজ পেরি। বেশি আক্রমণাত্মক ছিলেন ভিলানি। দু’জনের মধ্যে ১০৫ রানের জুটি চলাকালীনই শুধু কিছুটা চাপে পড়েছিল ভারত। ভিলানি আউট হতে অবশ্য ভারতের ফাইনাল যাত্রা কার্যত নিশ্চিত হয়ে যায়। বাকি উইকেটগুলি পড়া ছিল শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। তবে শেষ দিকে মারকুটে একটা ইনিংস খেলে যাচ্ছিলেন আলেক্স ব্ল্যাকওয়েল। ফের কিছুটা চাপে পড়েছিল ভারত। কিন্তু জয় থেকে অস্ট্রেলিয়া যখন ৩৭ রান দূরে, তখনই ব্ল্যাকওয়েলের উইকেট তুলে নেন দীপ্তি।

সেমির ম্যাচ জিতে উঠে হরমনপ্রীত বলেন, খুব গর্ব হচ্ছে। অামার এই ইনিংসের দাম রয়েছে কারণ অামরা বিপক্ষকে কম রানে বেঁধে রাখতে পেরেছি। এবার ফাইনালে ভাল কিছু করার জন্য অপেক্ষা করছি।”

এখানে দেখুনঃ ফাইনালে পৌঁছে আবেগপ্রবণ হয়ে মিতালি রাজ যা বললেন…

তিনি অারও যোগ করেন, ইংল্যান্ড খুব ভাল দল। তবে অামরা লড়াই করার জন্য তৈরি। দলের জন্য রান করা সবসময়ই বড় ব্যাপার। সেটা করতে পেরে অামি খুব খুশি। যখন টুর্নামেন্ট শুরু করি তখন লক্ষ্য ছিল সেমিফাইনালে জায়গা করে নেওয়া। ফাইনালে উঠতে পেরে দারুণ লাগছে। ফ্যানদের অালাদা করে অবশ্যই ধন্যবাদ জানাতে হবে।”

 

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    রশিদ খানের বোলিং দেখে চিন্তায় পড়লেন মাহি, মাঝ রাতে ডাকলেন টিম মিটিং

    রশিদ খানের বোলিং দেখে চিন্তায় পড়লেন মাহি, মাঝ রাতে ডাকলেন টিম মিটিং
    আইপিএলের একাদশ সংস্করণের খেতাবি লড়াই আজ মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে চেন্নাই সুপার কিংস এবং সানরাইজার্স...

    জ্যোতিষ এবং রাশিফল অনুসারে এই টিম হবে আইপিএল ২০১৮ চ্যাম্পিয়ন

    জ্যোতিষ এবং রাশিফল অনুসারে এই টিম হবে আইপিএল ২০১৮ চ্যাম্পিয়ন
    ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের একাদশ সংস্করণের খেতাবি লড়াই আজ রবিবার হতে চলেছে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে চেন্নাই সুপার কিংস...

    রশিদ খানকে নিয়ে উঠল ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার দাবী, সুষমা স্বরাজ দিলেন এই মজাদার জবাব

    রশিদ খানকে নিয়ে উঠল ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার দাবী, সুষমা স্বরাজ দিলেন এই মজাদার জবাব
    আফগানিস্থানের তরুণ স্পিনার রশিদ খান গতকালের খেলা দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে দুরন্ত প্রদর্শন করার পর তাকে ভারতীয় নাগরিকত্ব...

    ছবি: হায়দ্রাবাদ ফাইনালে পৌঁছনো মাত্রই একে অপরকে কিস করতে শুরু করেন ভুবি এবং ধবনের স্ত্রী, ভাইরাল হল ছবি

    ছবি: হায়দ্রাবাদ ফাইনালে পৌঁছনো মাত্রই একে অপরকে কিস করতে শুরু করেন ভুবি এবং ধবনের স্ত্রী, ভাইরাল হল ছবি
    আফগানিস্থানের স্পিনার রশিদ খান সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে দুরন্ত প্রদর্শন করে শুক্রবার অনুষ্ঠিত হওয়া আইপিএলের এলিমিনেটর ২ এর...

    ম্যাচ জেতার পর কেন উইলিয়ামসন শিখর ধবন বা ভুবনেশ্বর কুমার নয় এই ক্রিকেটারকে দিলেন জেতার শ্রেয়

    ম্যাচ জেতার পর কেন উইলিয়ামসন শিখর ধবন বা ভুবনেশ্বর কুমার নয় এই ক্রিকেটারকে দিলেন জেতার শ্রেয়
    কলকাতার ইডেন গার্ডেনে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে চলতি আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারের ম্যাচ গতকাল অনুষ্ঠিত...