IPL 2022, GT vs MI: ‘২০ ওভারের আগেই ম্যাচ শেষ করে দেওয়া উচিৎ ছিল…’ ম্যাচের পর হার্দিক পাণ্ডিয়া একে করলেন দায়ী

আইপিএল ২০২২ এর ৫১তম ম্যাচ মুম্বইয়ের ব্র্যাবোর্ন স্টেডিয়ামে গুজরাট টাইটান্স এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের মধ্যে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচ মুম্বইয়ের দল ৫ রানে জিতে নেয়। এই ম্যাচে টসে জিতে গুজরাট টাইটান্সের অধিনায়ক হার্দিক পাণ্ডিয়া প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের দল টিম ডেভিডের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের সৌজন্যে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রান করে আর গুজরাটের সামনে ১৭৮ রানের লক্ষ্য রাখে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে গুজরাট টাইটান্সের দল ওপেনার ঋদ্ধিমান সাহা আর শুভমান গিলের হাফসেঞ্চুরি ইনিংসের সৌজন্যে ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানই করতে পারে আর এই ম্যাচ ৫ রানে হেরে যায়। মুম্বইয়ের হাতে এই ক্লোজ ম্যাচ হারের পর গুজরাটের অধিনায়ক হার্দিক পাণ্ডিয়াকে যথেষ্ট নিরাশ দেখিয়েছে। তিনি ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে নিজের বয়ানে সেই হতাশাও প্রকাশ করেন।

ক্লোজ ম্যাচে হারের পর কী বললেন হার্দিক পাণ্ডিয়া?

IPL 2022, GT vs MI: ‘২০ ওভারের আগেই ম্যাচ শেষ করে দেওয়া উচিৎ ছিল…’ ম্যাচের পর হার্দিক পাণ্ডিয়া একে করলেন দায়ী 1

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হাতে পাওয়া এই ক্লোজ ম্যাচ হারের পর গুজরাট অধিনায়ক হার্দিক পাণ্ডিয়া জানিয়েছেন যে তাদের ব্যাটসম্যানরা আজ নিরাশ করেছে। টি-২০ ক্রিকেটে লাগাতার উইকেট হারানো যায় না। তার মতে ২০তম ওভারের আগেই এই ম্যাচ তাদের শেষ করে দেওয়া উচিৎ ছিল। ম্যাচ শেষে হার্দিক বলেন,

“যে কোনো দিন আমরা শেষ ওভারে ৯ রান করতে পারি। আমার মনে হয় ব্যাটসম্যানরা আমাদের নিরাশ করেছে। টি-২০ ক্রিকেটে আপনি লাগাতার উইকেট হারাতে পারেন না। ওই এক ওভারে দুই উইকেট হারানো আমাদের সমস্যায় ফেলে দেয়। এমন বেশকিছু ম্যাচ হয়েছে যেখানে আমরা শেষ ওভারে জয়লাভ করেছিল। আমরা নিরাশ কিন্তু এই ম্যাচের ব্যাপারে আমরা বেশি ভাবনা চিন্তা করব না”।

হার্দিক পাণ্ডিয়া আরও বলেন,

“আমরা ১৯.২ বা ১৯.৩ ওভার ভাল ক্রিকেট খেলেছি, কিন্তু উইকেট হারানোয় আমাদের কোনো ফায়দা হয়নি যেমনটা আমি আগে বলেছি। মাত্র একটা বা দুটো বড় শট ম্যাচের ফলাফল বদলে দিতে পারত। আমাদের ২০ ওভারের আগেই ম্যাচ শেষ করে দেওয়া উচিৎ ছিল। এক সময় ওরা ২০০ রানের দিকে এগোচ্ছিল, কিন্তু বোলাররা আমাদের ম্যাচে ফিরিয়ে এনেছিল”।

Leave a comment

Your email address will not be published.