হার্দিক পান্ডিয়া, ভারতের এই তরুণ ক্রিকেটার বর্তমান ক্রিকেট দুনিয়ার অন্যতম এক আলোচিত নাম। অক্টোবর ২০১৬ তে অভিষেকের পর অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছেন তিনি। অভিষেকেই ম্যাচের সেরা খেলোয়ার নির্বাচিত হওয়া এই অলরাউন্ডার তার আগমনে ই ছিলেন আলোচিত। তিনি এর পর প্রমান করছেন দলের যখন প্রয়োজন ব্যাট কিংবা বল যে কোন কিছুতে ই নিজেকে উজার করে দিতে প্রস্তুত তিনি। নিজেকে শুরু হতে ই প্রমাণ করছেন একজন কার্যকরী খেলোয়ার হিসেবে। ২৩ বছর বয়সী এই তরুণ তাই অভিষেকের মাত্র এক বছরের ভিতর ই সব ধরনের ক্রিকেটে টিম ইন্ডিয়ার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। গত জুলাই তে অনেকটা আকস্মিক ভাবে ই টেস্টে অভিষেক ঘটে এবং তার সমালোচকদের জবাব দেন অভিষেকে ই অসাধারন এক অর্ধশত ইনিংস খেলে। আর কেবল দুই ম্যাচ পরে ই ৯৬ বলে ১০৮ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলে টেস্ট ক্রিকেটেও তার কার্যকারিতা ভাল করে জানান দেন। আট চার আর সাত ছয়ের সেই ইনিংস কেবল তাকে তার প্রথম ম্যাচ সেরা পুরষ্কার ই এনে দেয় নি বরং ভারতকে বড় জয়ও এনে দিয়েছে।

শ্রীলঙ্কাতে সেই টেস্ট সিরিজের আগে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালেও ছিলেন দুর্দান্ত। চারটি চার এবং ছয়টি ছক্কার সাহায্যে মাত্র ৪৩ বলে করেন ৭৬ রান, যাতে সাদাব খানের পর পর তিন বলে ছিল তিন ছক্কা। জাদেজার ভুলে রান আউট না হলে হয়ত পেয়ে যেতেন শতক এমনকি ম্যাচের ফলাফলও পাল্টে যেতে পারত। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডেতে খেলেছেন অসাধারন এক ইনিংস। একটা পর্যায় ভারতের রান ছিল তিন উইকেটে এগারো। সেই অবস্থা দিয়ে মধ্যম সারির এবং শেষ সারির ব্যাটসম্যানরা মিলে ভারতকে একটি সন্মান জনক রানে নিয়ে যায়।

শুরুতে যে ব্যাটিং ধ্বস নামে তা হতে দলকে বের করার প্রথম চেষ্টা করেন পাঁচ নাম্বারে নামা কেদার যাদব এবং ওপেনার রোহিত শর্মা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ারর ফাদে পরে দ্রুত ই বিদায় নেয় রহিত শর্মা। এরপরেও কেদার যাদব মহেন্দ্র সিং ধোনীকে সাথে নিয়ে ইনিংস মেরামতের কাজ চালিয়ে যান। কিন্তু চল্লিশ রান করে তিনিও ফিরে গেলে আবারো শুরু মহেন্দ্র সিং ধোনীর ক্যারিশমা। তার সাথে ছিলেন তরুণ অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। এদুজনের ষষ্ঠ উইকেট জুট বিশ ওভারের মত অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের উইকেট শূণ্য রাখে। এদুজ কেবল বোলারদের উইকেট শূণ্য ই রাখে নি বরং সাথে সাথে তুলে নিয়েছে ১১৮ রানও। ধোনী ৭৯ রানে ও পান্ডিয়া ৮৩ রানে আউট হয়ে শতক করতে না পারার ব্যক্তিগত অর্জন ছুতে না পারলেও ভারতকে ২৮১ রানের একটি সম্মানজনক রানে নিয়ে যায়। এরপর বৃষ্টির কারনে খেলা বন্ধ হয়ে গেলে বৃষ্টি শেষে অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্য নির্ধারিত হয় ২১ ওভারে ১৬৪ রান। তার অলরাউন্ডার নৈপুন্যের কারনে তাকে বর্তমান দুনিয়ার অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার ইংল্যান্ডের বেন স্ট্রোকের সাথে তুলনা করা হয়। এদিকে পান্ডিয়া কে বেন স্ট্রোকের সাথে তুলনা করার বিরোধীতা করে ফাজেলা সাবা নামে এক পাকিস্তানি সাংবাদিক টুইট করেন। তিনি লিখেন, “নি:সন্দেহে পান্ডিয়া আগামীদের একজন বড় তারকা কিন্তু ভারতের মিডিয়া তাকে বেন স্ট্রোকের সাথে তুলনা করা অযুক্তিক।

  • SHARE
    A Cricket enthusiast who is pursuing his passion.

    আরও পড়ুন

    তৃতীয় টি২০তে এই তারকার খেলা নিয়ে সন্দেহ

    পিটিআইয়ের একটি রিপোর্টের মোতাবিক তৃতীয় এবং ফাইনাল ওয়ান ডেতে জসপ্রীত বুমরাহের অংশ নেওয়া এখনও সন্দেহজন অবস্থায় রয়েছে।...

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান
    ২০১৯ বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র দেড় বছর। তার আগে গত ২ বছর ধরেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ভারতীয়...

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি
    তার ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে তিনি ব্যাটিংয়ের জিনিয়াস। তামাম...

    প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে যে যে রেকর্ড গড়লেন ভারত অধিনায়ক বিরাট

    তার শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছে ক্রিকেট বিশ্বের সকলেই। বিশ্বের সর্বকালের সেরা একদিনের ক্রিকেটার হিসেবে তাকে মেনেও নিয়েছেন সকলে।...

    আইপিএলের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারবেন না এই দুই অস্ট্রেলীয়

    আর মাত্র দেড় মাস বাকি আইপিএল শুরুর। এই মুহুর্তে স্ট্রাটেজি বানাতে শুরু করে দিয়েছে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজিই। কিন্তু...