হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা

ভারতীয় ক্রিকেট দল ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলা হওয়া দুটি টেস্ট ম্যাচের সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট দুর্দান্তভাবে জিতে নিয়েছে। জামাইকাতে খেলা হওয়া সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে ভারতীয় দল ওয়েস্টইন্ডিজকে ম্যাচের চতুর্থ দিন ২৫৭ রানে হারানোর পাশাপাশি সিরিজেও ২-০ ফলাফলে কব্জা করে নিয়েছে।

হনুমা বিহারীর সেঞ্চুরি বুমরাহের হ্যাটট্রিকের নীচে পড়ল চাপা

জামাইকাতে খেলা হওয়া দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে ভারতীয় দলের হয়ে দুজন তরুণ খেলোয়াড় স্পেশাল পারফর্মেন্স দিয়েছেন। যারমধ্যে তরুণ ব্যাটসম্যান হনুমা বিহারী নিজের কেরিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেছেন তো অন্যদিকে জসপ্রীত বুমরাহ হ্যাটট্রিকের সঙ্গেই ৬ উইকেট হাসিল করেছেন।

হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা 1

হনুমা বিহারী আর জসপ্রীত বুমরাহ দুজনেই এই প্রদর্শন ম্যাচের দ্বিতীয় দিন করেছেন। হনুমা বিহারী প্রথমে সেঞ্চুরি করেন তো পরে বুমরাহ হ্যাটট্রিক করেন এই অবস্থায় বিহারীর সেঞ্চুরির চেয়ে বেশি বুমরাহের হ্যাটট্রিকের চর্চা হচ্ছে।

হনুমা বিহারীর বোন বুমরাহ আর নিজের ভাই দুজনের প্রদর্শনকে মনে করেন স্পেশাল

সেইভাবেই নিজের টেস্ট কেরিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করা হনুমা বিহারীর বোন বৈষ্ণবী এমনটা মনে করেন না। বরং তিনি বুমরাহ আর হনুমা বিহারী দুজনের প্রদর্শনকেই স্পেশাল বলে মনে করেন।

হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা 2

বৈষ্ণবী বিহারী টেলিফোনে একটি নিউজ পেপারকে দেওয়া ইন্টারভিউতে বলেছেন যে,
“আমার মনে হয়না যে বুমরাহের বোলিং আমার ভাইয়ের সেঞ্চুরির নীচে চাপা পড়ে গেছে। এটা ওই দুজনের জন্য বিশেষ দিন ছিল, দুজনেই ভাল খেলেছে আর ভারতকে দুর্দান্ত স্থিতিতে রেখেছে”।

আমাদের বাবাকে সেঞ্চুরি উৎসর্গ করা ভীষণই আবেগী মুহূর্ত

বৈষ্ণবী আগে বলেন যে, “আমি ভীষণই খুশি আর আবেগী। আমি ওর ম্যাচ দেখেছি আর ওর ব্যাটিংকে স্মরণ করি। বিশেষভাবে যখনই আমি যেখানেই সুযোগ পাই আমি ওর ব্যাটিং দেখি”।

হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা 3

“আমার ভাই নিজের প্রথম সেঞ্চুরি আমাদের পরলোকগত বাবাকে সমর্পণ করেছে আর উনি একজন গৌরবান্বিত বাবা হবেন। উনি যেখানেই থাকুন ভীষণই খুশি হবে আর আবেগীও হওয়া উচিৎ”।

আমার বাবা আজ এখানে থাকলে ভীষণই গর্ব অনুভব করতেন

বৈষ্ণবী আরো বলেন,
“আমাদের বাবা সিঙ্গরেনী কোলিয়ারিজ কোম্পানি লিমিটেডে সুপারিন্টেডন্ট ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। উনি ভীষণই দয়ালু হৃদয়ের মানুষ ছিলেন, উনি শক্ত বাবা ছিলেন না। উনি আমার ভাইয়ের ১২ বছর বয়েসে আমার ভাইকে দেখে খুশিতে চোখের জল ফেলতেন। এটা সেই সময় ছিল যখন আমার বাবার বয়েস ছিল ৫০ বছর। কাল আমি ভীষণই আবেগী ভাবনায় ছিলাম যে যদি উনি আমাদের সঙ্গে থাকতেন তো আমার বাবা এখন কি অনুভব করতেন”।

হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা 4

বৈষ্ণবী আরো বলেন,
“আমার মা (বিজয়া লক্ষ্মী) আর বাবা সবসময়ই হনুমাকে একজন ক্রিকেটার হওয়ার জন্য উৎসাহিত করেছেন। জন মনোজ আর শ্রীধর (ভারতের বর্তমান ফিল্ডিং কোচ) আমার ভাইকে উৎসাহিত করেছেন। আমার বাবা-মার সঙ্গে বসে আমার ভাই টিভিতে ক্রিকেট ম্যাচ দেখত। একবার আমার মনে আছে যখন শচীন নিজের খেলার সময় আউট হয়ে গিয়েছিলেন তো আমার ভাই নিরাশ হয়ে গিয়েছিল”।

ভাইকে প্রথমবার দেখলাম সেঞ্চুরির উৎসব পালন করতে

বৈষ্ণবী নিজের ভাইয়ের সেঞ্চুরি সেলিব্রেশন নিয়ে বলেন যে,

হনুমার বিহারীর বোন জসপ্রীত বুমরাহের হ্যাটট্রিকে জন্য পাওয়া প্রশংসার উপর তুললেন প্রশ্ন, বললেন এই কথা 5

“ও কখনো সেলিব্রেশন পালন করে না। ও বেশ কিছু সেঞ্চুরি-ডবল সেঞ্চুরি আর ত্রিপল সেঞ্চুরি করেছে কিন্তু যেভাবে জামাইকাতে সেলিব্রেশন করেছেন এমনটা প্রথমবার দেখলাম”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *