[cwa id='h1']
যে গাঙ্গুলীকে গ্রেগ চ্যাপেল দেখিয়েছিলেন দল থেকে বাইরের রাস্তা, এখন তার কাছেই চাইলেন এই সাহায্য

JCC
পেশাদার ক্রিকেটার হতে চান?
এখানে রেজিস্টার করুন

*T&C Apply

ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে ২০০৫ সালে যখন গ্রেগ চ্যাপেলকে প্রধান কোচের পদে নিযুক্তি হয়েছিল তো বেশকিছু মানুষের বড়ো ভরসা ছিল যে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট দলকে বদলে দেবেন। গ্রেগ চ্যাপেল অস্ট্রেলিয়ার মহানতম খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন থেকেছেন এই কারণে এই আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু গ্রেগ চ্যাপেল ভারতের কোচ হওয়ার পর যা করেছিলেন তা পুরো ক্রিকেট জগত দেখেছে।

গ্রেগ চ্যাপেল কোচ হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলীর সঙ্গে করেছিলেন ঝামেলা

যে গাঙ্গুলীকে গ্রেগ চ্যাপেল দেখিয়েছিলেন দল থেকে বাইরের রাস্তা, এখন তার কাছেই চাইলেন এই সাহায্য 1

গ্রেগ চ্যাপেল কোচ হওয়ার পর নিজের কার্যকালে যথেষ্ট বেশি বিতর্কে থেকেছেন। তার মার্গদর্শনে ভারতীয় দলের একতার উপর কারো নজর লেগে গিয়েছিল আর ভারতের ক্রিকেট দললে ছিন্নভিন্ন হতে দেখা গিয়েছিল। ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে গ্রেগ চ্যাপেল যখন কোচের পদভার সামলান সেই সময় সৌরভ গাঙ্গুলী দলের অধিনায়ক ছিলেন। সৌরভ গাঙ্গুলীর অধিনায়কত্বে ভারতীয় দল দুর্দান্ত প্রদর্শন করছিল কিন্তু গ্রেগ চ্যাপেল পুরো বিষয়টি বিগড়ে দেন আর গাঙ্গুলীর সঙ্গে ঝামেলা করে তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেন।

টেস্ট ক্রিকেট বাঁচানোর জন্য এখন সৌরভ গাঙ্গুলীর কাছে চাইলেন সাহায্য

যে গাঙ্গুলীকে গ্রেগ চ্যাপেল দেখিয়েছিলেন দল থেকে বাইরের রাস্তা, এখন তার কাছেই চাইলেন এই সাহায্য 2

সৌরভ গাঙ্গুলী আর গ্রেগ চ্যাপেলের ঝামেলা ক্রিকেট ইতিহাসে ভীষণই আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠেছিল। কিন্তু এখন সেই গ্রেগ চ্যাপেল সৌরভ গাঙ্গুলীর উপরই ভরসা দেখাচ্ছেন। গ্রেগ চ্যাপেল ইশারা ইশারায় সৌরভ গাঙ্গুলীর উপরই টেস্ট ক্রিকেট বাঁচানোর জন্য ভরসা দেখিয়েছেন। সৌরভ গাঙ্গুলী আজ বিসিসিআইয়ের সভাপতি পদে রয়েছেন আর গ্রেগ চ্যাপেল মেনে নিয়েছেন যে ভারতীয় ক্রিকেটই টেস্ট ক্রিকেটের ভবিষ্যতকে জীবত রাখতে পারে। গ্রেগ চ্যাপেল এই বিষয়ে সৌরভ গাঙ্গুলীর বিসিসিআই দলের উপর ভরসা প্রকাশ করেছেন।

ভারতীয় ক্রিকেটের হাতে রয়েছে টেস্ট ক্রিকেটের বেঁচে থাকা

যে গাঙ্গুলীকে গ্রেগ চ্যাপেল দেখিয়েছিলেন দল থেকে বাইরের রাস্তা, এখন তার কাছেই চাইলেন এই সাহায্য 3

চ্যাপেল বলেছেন যে, “টেস্ট ক্রিকেট সেই দিন মরে যাবেন, যেদিন ভারত এটা ছেড়ে দেবে। আমি ভারত, অস্ট্রেলিয়া আর ইংল্যান্ড ছাড়া বাকি দেশগুলিকে টেস্ট ক্রিকেট খেলার জন্য তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়োজিত করতে দেখতে পাচ্ছি না। এমনটা নয় যে আমি টি-২০র বিরুদ্ধে। কিন্তু এটা জনতাকে বেচা সহজ। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে আল্টিমেট ক্রিকেট বলা হয় এই কারণে আশা রয়েছে যে এটা জীবিত থাকবে”।
এছাড়াও চ্যাপেল এমএস ধোনিকে বেস্ট ফিনিশার বলে জানিয়েছেন যে,

“ধোনি যে কোনো বলকে জোরে হিট করতে পারেন। ও সবচেয়ে পাওয়ারফুল ব্যাটসম্যান। আমার মনে আছে যে যখন আমি ওকে প্রথমবার ব্যাটিং করতে দেখছিলাম তো আমার অদ্ভুত লাগছিল। ও নিশ্চিতভাবেই সেই সময় ভারতের সবচেয়ে রোমাঞ্চক ক্রিকেটার ছিল। ও সবচেয়ে সামান্য পরিস্থিতিতে বলকে হিট করত, ও সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটসম্যান যাকে আমি কখনো দেখেছি। নিশ্চিতভাবেই ও বিশ্বের বেস্ট ফিনিশার”।

[cwa id='moreat']