সুকমার শহীদ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কেকেআর অধিনায়ক, জেনে নিন কীভাবে সাহায্যের হাত বাড়ালেন 1
গৌতম গম্ভীর

সম্প্রতি ছত্তিসগড়ের সুকমার জঙ্গলে মাওবাদী হানায় ২৫ জন সিআরপিএফ কর্মীর মৃত্যু গোটা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে। নৃশংস এই ঘটনায় যে ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ করবার কোনও উপায়ই হয়ত নেই। কিন্তু এই দুঃসময়ে সেই সমস্ত শহীদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে অনেকেই। এবার সেই সমস্ত শহীদ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। ইতিমধ্যেই তিনি বলেছেন, ওই সমস্ত শহীদের সন্তানদের পড়াশুনার দায়িত্ব নেবেন তিনি।

ইডেন জয়ের পর, বিশেষ এক ঘোষণায় সারা দেশের মন জিতে নিলেন গম্ভীর

এই খবরটি জানার পরই হিন্দুস্থান টাইমসে নিজের কলামে দিল্লির এই ক্রিকেটার লেখেন, “বুধবার সকালে খবরের কাগজ হাতে নিয়েই দেখতে পেলাম সেই সমস্ত শহীদদের সন্তানদের করুণ অবস্থা যারা সুকমার জঙ্গলে শহীদ হয়েছেন। একটি মেয়ে তাঁর বাবার উদ্দেশ্যে স্যালুট করছে। এবং ভারাক্রান্ত সেই মেয়েটিকে শান্তনা দিচ্ছেন তাঁরই পরিবারের কেউ।” এই ছবিটিই তাঁকে বিশেষভাবে নাড়া দেয়। এরপরই তিনি ঘোষনা করেন গৌতম গম্ভীর ফাউন্ডেশন এই সমস্ত শিশুর পড়াশুনার দায়িত্ব নেবে।

তিনি বলেন, “দ্য গৌতম গম্ভীর ফাউন্ডেশন এই সমস্ত শহীদদের সন্তানদের পড়শুনার সমস্ত ব্যয়ভার বহন করবে। আমার দল এই নিয়ে ইতিমধ্যেই কাজকর্ম শুরু করে দিয়েছে। খুব শিঘ্রই এই বিষয়ে আরও কিছু তথ্য জানাতে পারব।”

বুধবার রাইসিং পুনের বিরুদ্ধে খেলার সময় কেকেআরের সমস্ত ক্রিকেটার হাতে কালো ব্যান্ড বেঁধে খেলতে নামেন। এভাবেই তাঁরা সুকমার শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপণ করেন। এইদিন কেকেআর ম্যাচ জিতলেও অধিনায়কের মন ভাল ছিলনা। তিনি খেলার দিকে বিশেষ মনোযোগও দিতে পারেননি। তিনি বলেন “এই কারণেই আমি একটি সশস্ত্র বাহিনীকে এতটা ভালবাসি। যদিও যুদ্ধে প্রিয়জনকে হারানোর সঙ্গে একটি ম্যাচ হারার কোনও তুলনা হয় না।”

ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে সমাজসেবার দিক থেকে গৌতম গম্ভীর এক পথপ্রদর্শক। নিজের খেলার পাশপাশি তিনি বহু সমাজসেবা মূলক কাজের সঙ্গে জড়িত। যুবরাজ সিংহের সমাজসেবী সংস্থা, ‘ইউ উই ক্যান ফাউন্ডেশনে’র জন্য সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করেছেন গৌতি। যুবরাজ না থাকাকালীন এই সংস্থার পথচলা শুরু করার সমস্তরকম ব্যবস্থা করেন গম্ভীর।

Leave a comment

Your email address will not be published.