একবিংশ শতকের গোড়ার দিকে ভারতীয় ক্রিকেটে স্বর্ণযুগের সূচনা হয়েছিল। অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতত্বে সেই সময়কার ভারতীয় ক্রিকেট দল বিপক্ষের চোখে চোখ রেখে চ্যালেঞ্জ করতে শিখেছিল। বীরেন্দ্র সহবাগ, শচীন তেন্ডুলকর, রাহুল দ্রাবিড়, ভিভিএস লক্ষণ এই চার মূর্তির দাপটে অনেক দলেরই রাতের ঘুম উড়ে যেত। এই সময়েরই কিছুটা পরের দিকে ভারতীয় দলে আরও একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটারের প্রবেশ ঘটে এই স্কোয়াডে। দিল্লির বাঁহাতি ওপেনার ব্যাটসম্যান গৌতম গম্ভীর। নিঃসন্দেহে গম্ভীর ভারতীয় ক্রিকেটের একজন সেরা ওপেনার। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, রাহুল দ্রাবিড়, অনিল কুম্বলে, বীরেন্দ্র সহবাগ এমনকী মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃ্ত্বেও খেলেছেন তিনি। এই বিরাট জাতীয় দলের ক্রিকেট জীবনে অধিনায়ক হিসেবে কাকে বেশি ভাললাগে তাঁর? এতদিন পরে সেই কথাই বলে ফেললেন দিল্লির এই ব্যাটসম্যান।

আইপিএল ২০১৭ঃ এবার ক্রিকেটীয় অভিভাবকের মত ধোনির পাশে দাঁড়ালেন সৌরভ

৩২ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান মহেন্দ্র সিং ধোনিকেই সেরা অধিনায়ক হিসেবে বেছে নিলেন। একটি ক্রীড়া চ্যানেলের অনুষ্ঠেনে তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল কোন অধিনায়কের অধীনে খেলে তিনি সবথেকে বেশি আনন্দ পেয়েছেন? এর উত্তরে অন্যান্য অধিনায়কদের প্রতি সম্মান জানিয়েই নিজের চোখে ধোনিকেই সেরা হিসেবে বেছে নেন তিনি। ২০১১ সালের বিশ্বকাপে ধোনির নেতৃ্ত্বে ভারতীয় দলে ছিলেন গম্ভীর। সেই প্রতিযোগীতা এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের অবদান ভোলার মত নয়। ভারতের মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে হওয়া সেই বিশ্বকাপ ফাইনালে অধিনায়ক ধোনি ও গম্ভীর ভারতীয়দের মাথা উঁচু করিয়েছিল গোটা বিশ্বের দরবারে। ধোনির নেতৃ্ত্বে ভারতীয় দলে খেলার সময় বীরেন্দ্র সহবাগের সঙ্গে তাঁর বেশকিছু আনন্দের স্মৃতি রয়েছে এমনটাও জানালেন তিনি এই অনুষ্ঠানে।

ভারতীয় ক্রিকেটে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পর সেরা বাঁহাতি ব্যাটসম্যান হয়ত গম্ভীরই। শুধুমাত্র ২০১১-র বিশ্বকাপ নয়, ধোনির সঙ্গে ২০০৯ সালে ভারতীয় দলকে টেস্টের প্রথম স্থানে নিয়ে যাওয়ায় অনেকটাই অবদান রয়েছে গম্ভীরের। ২০০৭ এর টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দীর্ঘদিন মনে রাখার মত এক ইনিংস খেলেছিল এই তারকা ক্রিকেটার।

বহুদিন হল ভারতের জাতীয় দল থেকে বাইরে রয়েছেন গম্ভীর। কিন্তু তাঁর সেই মহিমা কোনও অংশে কমেনি। বরং বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই তাঁর হাত আরও খুলছে। আইপিএলে কেকেআরের অধিনায়ক গম্ভীর। নিজের নেতৃত্বের জোরে দু’বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কেকেআর। এই বছরও যেভাবে খেলছে তাঁর দল, তাতে তৃতীয় বারের মত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। আইপিএলের এই মরশুমে গৌতম গম্ভীরকে এক অন্য মেজাজে দেখা যাচ্ছে। ধারাবাহিকভাবে প্রতিটা ম্যাছে তিনি যে আগ্রাসনের সঙ্গে ব্যাট করছেন, তাতে অনেক তরুণ ক্রিকেটারকেও হার মানায়। এভাবে চলতে থাকলে হয়ত খুব তাড়াতাড়ি আবারও জাতীয় দলে ডাক আসতে পারে দিল্লির এই ব্যাটসম্যানের।

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    বিগ ব্যাশ লীগের অষ্টম অ্যাডিশনের সময়সূচি প্রকাশ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

    প্রতিবছরের মত এবারো ডিসেম্বর মাসেই শুরু হতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার জনপ্রিয় ঘরোয়া টি-২০ বিগ ব্যাশ লীগ(বিবিএল)। আট দলের...

    ধোনির ভক্তদের জন্য সম্ভবত খারাপ খবর, ধোনির অবসর আশংকা নিয়ে উত্তপ্ত টুইটার

    গতকাল স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারার পর ড্রেসিং রুমে ফেরার সময় প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র...

    স্মৃতি মন্ধনার জন্মদিনে শুভকামনা জানালেন শচীন তেন্ডুলকর ও আনজুম চোপড়া

    ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের ওপেনার স্মৃতি মন্ধনার জন্মদিনে তাঁকে শুভকামনা জানিয়ে টুইট বার্তা পাঠিয়েছেন ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেট...

    BREAKING NEWS: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম তিনটি টেস্ট ম্যাচের জন্য ভারতীয় টিম ঘোষণা ,এই ক্রিকেটার পেলেন না জায়গা

    ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে ওয়ানডে সিরিজের শেষ এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ গতকাল হেডিংলের লীডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত...

    হার্দিক পাণ্ডিয়ার চুল অনন্য, চর্চার জন্য উইকিপিডিয়ায় নতুন ভাবে ভূষিত হলেন তিনি!

    এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই যে, হার্দিক পাণ্ডিয়া বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে ভারতের জন্য অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারদের মধ্যে...