প্রথম টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্মরণে যা বললেন গৌতম গম্ভীর 1

প্রথম টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্মরণে যা বললেন গৌতম গম্ভীর 2

২০০৭ সালে অনুষ্ঠিত প্রথম বারের মত ক্রিকেটের সর্বশেষ সংস্করণ টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপে শিরোপা জয় করে মহেন্দ্র সিং ধোনীর ভারত। দশ বছর আগে সেই বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতের ঐতিহাসিক জয়ে স্থপতি ছিলেন তখনকার ভারতীয় দলের ওপেনার গৌতম গম্ভীর। চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন মহেন্দ্র সিং ধোনী। ইনিংসের সূচনা সুন্দর হলেও এরপরে হঠাৎ করে ব্যাটিং লাইন আপে ধস নামে। একে একে আউট হতে থাকেন রবীন উথাপ্পা, দারুণ ফর্মে থাকা যুবরাজ সিং এবং অধিনায়ক ধোনী। কিন্তু গৌতম গম্ভীর এক প্রান্ত আগলে রেখে ৭৫ রানের এক কার্যকরী ইনিংস খেলেন। গম্ভীরের কল্যানে ২০ ওভার শেষে ভারত ৫ উইকেটে ১৫৭ রানের সম্মানজনক স্কোর করতে সমর্থ হয়। যে সময় এক প্রান্ত আগলে রেখে রানের চাকা সচল রাখা প্রয়োজন ছিল ঠিক তখন ই গৌতম গম্ভীর এক প্রান্ত যেমন আগলে রেখেছিলেন তেমনি রানের চাকাও সচল রেখেছিলেন। তার এই কার্যকরী ইনিংসে ভর করে ই টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্ভোধনী আসরের ফাইনালে ১৫৭ রান করতে সমর্থ হয় ভারত।

ভারতের করা ১৫৭ রানের জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে কখনো পাকিস্তান প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিল না। শুরু হতে ই নিয়মিত উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান এবং এক পর্যায়ে যখন পাকিস্তানের স্কোর ৬ উইকেটে ৭৭ তখন তারা অনেকটা ই খেলার থেকে বের হয়ে যায়। ভারতের জন্য গৌতম গম্ভীর যা করেছেন পাকিস্তানের জন্যও অনেকটা তাই ছিলেন মিসবাউল হক, তার সাথে সঙ্গ দিচ্ছিলেন ইয়াসির আরাফাত ও সোহেল তানভীর। এগিয়ে যাচ্ছিল শিরোপার দিকে। শিরোপা জয়ের জন্য শেষ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ১৩ রান। ভারতীয় বোলার যুগেন্ধর শর্মা তার প্রথম বল থেকে ই দেন সাত রান, ঔ পর্যায় পাকিস্তান ই জয়ের সবচেয়ে নিকটে ছিল ; কিন্তু মিসবাউল হক যখন স্কুপ করতে গিয়ে সরাসরি শ্রীশান্তের হাতে বল তুলে দেন তখন ই শেষ হয়ে যায় পাকিস্তানের জয়ের স্বপ্ন। সেই ম্যাচের জয়ের নায়ক ভারতীয় জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর আজ ২৪ সেপ্টেম্বর রবিবার সেই জয়ের দশম বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে এক টুইটের মাধ্যমে সবাই কে স্মরণ করিয়ে দেন। টুইটে লিখেন, “যখন ব্যাট ই সব কিছু উত্তর দিয়ে দেয় তখন অন্য কিছু নিরব হয়ে যায়।”

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *