ধোনিকে অসম্মান করায় গোয়েঙ্কার তুলোধনা করল সমর্থকেরা 1
হর্ষ গোয়েঙ্কা

গত বছর খুব এটা ভাল কাটেনি রাইসিং পুনে সুপার জায়ান্টের। তবে এই বছর আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৃঢ় লক্ষ্য নিয়েই ঘুটি সাজিয়েছেন রাইসিং পুনের কর্মকর্তারা। ইপ্সিত লক্ষ্যে পৌছনোর জন্যেই পুনে বিশাল এক রদবদল ঘটায় দলে। অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে সরিয়ে, দলের নেতৃত্ব তুলে দেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভ স্মিথের হাতে। এই ঘটনায় বেজায় খাপ্পা হয়ে যায় ধোনির সমর্থক এবং বেশকিছু ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ। তাও ধোনি এই দলে থাকায়, সমর্থকেরা মুখ ফেরায়নি। তবে এবার রাইসিং পুনের কর্ণধার সঞ্জীব গোয়েঙ্কার ভাই হর্ষ গোয়েঙ্কা যা করলেন, তাতে একহাত নিলেন ধোনির সমর্থকেরা এই শিল্পপতিকে।

বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে পুনে আইপিএলের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামে। টানটান উত্তেজনার এই ম্যাচে জেতার জন্য পুনেকে শেষ ওভারে ১৩ রান করতে হত। তবে সেই কাজটা অতটাও কঠিন ছিলনা। কারণ ক্রিজে দাঁড়িয়ে ধোনি ও স্মিথ। পুনের সমর্থকরা তখনও নিশ্চিত যে ধোনি তাঁর স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে ম্যাচ শেষ করবে বলে। কিন্তু ধোনি এদিন তেমনকিছুই করতে পারেননি। ওভারের প্রথম ও তৃতীয় বল খেলে ধোনি মোট দুটি করেন। প্রাক্তন অধিনায়কের হয়ে এই বাকি কাজটা করেন স্টিভ স্মিথ। পরপর দুটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে জয় ছিনিয়ে নেয় স্মিথ।

এই নাটকীয় জয়ের পর হর্ষ গোয়েঙ্কা টুইট করে বলেন, “স্মিথ প্রমান করেছে এই দলের রাজা কে। ধোনিকে ছাপিয়ে অধিনায়কের মত ইনিংস খেলেছে স্মিথ। অধিনায়ক হিসেবে স্মিথকে দায়িত্ব দিয়ে ঠিক সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছে।”

ধোনিকে অসম্মান করায় গোয়েঙ্কার তুলোধনা করল সমর্থকেরা 2

গোয়েঙ্কার এই টুইটের পর তাঁর ওপর রাগ উগরে দেন ধোনির সমর্থকেরা। তারা পুনের কর্ণধারকে হুমকি দেন, ভবিষ্যতে এই ধরনের কথা বললে পুনের আর কোনও সমর্থক থাকবে না। এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে কার্যত বিদ্রোহ ঘোষণা করে দেয় ধোনির সমর্থকেরা। সেই চাপে পড়ে, ওই পোস্টটি মুছে দেন হর্ষ গোয়েঙ্কা। চেন্নাই সুপার কিংসের পর ধোনি পুনেতে যুক্ত হন। চেন্নাই সুপার কিংস দল না থাকায়, ধোনির জন্যেই চেন্নাইয়ের সমর্থকদের বেশিরভাগটাই চলে আসে পুনের তরফে।

Leave a comment

Your email address will not be published.