স্যার অ্যালিস্টার কুক করলেন চমকে দেওয়ার মত খোলসা, ওয়ার্নার জানিয়েছিলেন কিভাবে করতেন বল ট্যাম্পারিং

অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়রা জয়ের জন্য কি কি না করেন, আর কতদূর পর্যন্ত যেতে পারে এটা তাদের চিরপ্রতিদ্বন্ধী ইংল্যান্ডের চেয়ে ভাল আর কে জানতে পারে। বল ট্যাম্পারিং বিবাদের কারণে আগেই অস্ট্রেলিয়া দলকে যথেষ্ট লজ্জায় পড়তে হয়েছিল। এখন আরো একবার এই বিষয়টিকে উঠে আসতে দেখা যাচ্ছে। আসলে এবারের ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক অ্যালিস্টেয়ার কুক নিজের বায়োগ্রাফিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাপারে একটি চমকে দেওয়ার মত খোলসা করেছেন।

ডেভিড ওয়ার্না প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে বলের সঙ্গে করেছিলেন ট্যাম্পারিং

স্যার অ্যালিস্টার কুক করলেন চমকে দেওয়ার মত খোলসা, ওয়ার্নার জানিয়েছিলেন কিভাবে করতেন বল ট্যাম্পারিং 1

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৭টি অ্যাসেজ সিরিজ খেলা ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক অ্যালিস্টেয়ার কুক অস্ট্রেলিয়ান কালচার এবং ক্রিকেটাদের সঙ্গে যথেষ্ট পরিচিত। কুক ২০১৭-১৮ অ্যাসেজ সিরিজের পর সেলিব্রেশনকে স্মরণ করে তার আত্মজীবনীতে লিখেছেন, “ডেভিড ওয়ার্নার আমাকে বলছিল যে কিভাবে একটি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচে ও হাতে বাঁধা পট্টিতে লাগা মেটিরিয়ালের মাধ্যমে বলের সঙ্গে ট্যাম্পারিং করেছিল। সেই সময় যদি স্টিভ স্মিথ বাধা না দিত তো সম্ভবত ওয়ার্নার এর সঙ্গে যুক্ত আরো অনেক গোপন কথাও উগরে দিত। কুক জানিয়েছেন যে এই ঘটনা ২০১৭-১৮র অ্যাসেজ সিরিজের পর হওয়া একটি পার্টি চলাকালীনের। যেমনই ওয়ার্নার এই কথার খোলসা করেন আমি স্টিভ স্মিথের দিকে তাকাই। ওর চেহারের ভাব এমন ছিল যেনো ওয়ার্নারকে বলছে যে তোমার এই কথা বলা উচিৎ হয়নি”।

নিজের সমর্থকদের হৃদয় জিততে লেগে পড়ত অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়রা

স্যার অ্যালিস্টার কুক করলেন চমকে দেওয়ার মত খোলসা, ওয়ার্নার জানিয়েছিলেন কিভাবে করতেন বল ট্যাম্পারিং 2

অ্যালিস্টার কুক আগে বলেন যে, <strong>“অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দল যে কোনো মূল্যে জয় হাসিল করার লক্ষ্যেই মাঠে নামত। তা সে তার জন্য ওদের যা কিছু করতে হোক। কুক সোজাসুজি চিটিং শব্দটির ব্যবহার করেননি, কিন্তু ঈশারা ঈশারায় পরিস্কার করে দিয়েছেন যে অস্ট্রেলিয়ান দল জেতার জন্য যা খুশিও করতে পারে”।
অ্যালিস্টেয়ার কুকের মতে, “অস্ট্রেলিয়ার মানুষরা নিজেদের দলের যে কোনোভাবে জয় হাসিল করার ধরণ ধারণে সন্তুষ্ট নন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ান দল এই বিষয়ে অনেক দূর পর্যন্ত এগিয়ে গিয়েছে। যদিও বল ট্যাম্পারিংয়ের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ান দল নিজেদের সমর্থকদের হৃদয় জেতার প্রচেষ্টা করতে শুরু করেছে। দলের কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার ড্রেসিং রুমের কালচার পরিবর্তন করেছেন আর এটাই কারণ যে অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়দের মাঠে অনেক বেশি বিনম্র দেখাচ্ছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *