ফের একবার নিজের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতার প্রদর্শণ করলেন ধোনি 1

ফের একবার নিজের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতার প্রদর্শণ করলেন ধোনি 2

মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে ভারত অধিনায়ক হিসেবে প্রতিবারেই যে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রেই একটি বেঞ্চমার্ক স্থাপন করতে দেখা গেছে। ২০০৭ এর টি২০ ওয়ার্ল্ডকাপের ফাইনালের শেষ ওভারে যোগিন্দর শর্মাকে বল করতে ডাকা থেকে উৎকৃষ্ট রিভিউ সিস্টেম নেওয়া প্রতিটা ক্ষেত্রেই দেখা গেছে সঠিক ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়ায় মহেন্দ্র সিংহ ধোনির মাস্টার মাইন্ডের ছাপ। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের আজকের ম্যাচে ফের একবার ধোনির সিদ্ধান্ত নেওয়ার মাস্টার মাইন্ডের প্রমান পাওয়া গেল। অতিথি দলের বোলিংয়ের দাপটে ধর্মশালায় ভারতীয় দল ব্যাতিং নিয়ে সমস্যায় পড়ে যায়। ৮৭ রানে আট উইকেট হারিয়ে ধুকতে থাকা ভারতীয় ব্যাটিংয়ে টেল এন্ডার জসপ্রীত বুমরাহ শ্রীলঙ্কার স্পিনার সচিথ পাথিরানার বিরুদ্ধে ব্যাটিং করছিলেন। সেই সময় পাথিরানার একটি বল বুমরাহ মিস করলে তা বুমরাহের প্যাডে লাগলে শ্রীলঙ্কা দল আউটের আবেদন করে। এক মুহুর্ত সময় নষ্ট না করে আম্পায়ার বুমরাহকে আউট দিয়ে দেন। কিন্তু অভিজ্ঞ ধোনির মনে তখন অন্য কিছু চলছিল। তিনি সঙ্গে সঙ্গে রিভিউর আবেদন করেন। এরপর তৃতীয় আম্পায়ার রিভিউতে দেখতে পান যে বলটি অফ স্টাম্পের সামান্য বাইরে দিয়ে যাচ্ছিল।

ফের একবার নিজের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতার প্রদর্শণ করলেন ধোনি 3

যার ফলে বুমরাহের আউটের আবেদনে আম্পায়ারের প্রথম সিদ্ধান্তটি বাতিল হয়ে যায়। ধোনির শেষ হাসিই ফের বুমরাহকে একটি জীবন দান দেয়। যদিও এই জীবন দানের ফায়দা বুমরাহ তুলতে পারেন নি, পাথিরানার ওই ওভারেই ভারতের নবমতম উইকেট হিসেবে তিনি আউট হয়ে যান। ১৫টি বল খেলে কোনো রান না করেই বুমরাহ প্যাভিলিয়নে ফেরত যান। তার কিছু আগেই দীনেশ কার্তিকও ১৮টি বল খেলে কোনো রান না করেই আউট হয়ে যান। এই পরিস্থিতি সঠিকভাবে বর্ণনা করছিল যে ভারতীয় দল স্বভাবতই তাদের অধিনায়ক বিরাট কোহলির অনুপস্থিতি ভীষণভাবে মিস করছিল। ধর্মশালায় একদিনের সিরিজের এই প্রথম ম্যাচটি জিতে নিয়ে অতিথি দল এই সিরিজে ১-০ ফলাফলে এগিয়ে থাকল। যার ফলে বুমরাহের আউটের আবেদনে আম্পায়ারের প্রথম সিদ্ধান্তটি বাতিল হয়ে যায়। ধোনির শেষ হাসিই ফের বুমরাহকে একটি জীবন দান দেয়। যদিও এই জীবন দানের ফায়দা বুমরাহ তুলতে পারেন নি, পাথিরানার ওই ওভারেই ভারতের নবমতম উইকেট হিসেবে তিনি আউট হয়ে যান। ১৫টি বল খেলে কোনো রান না করেই বুমরাহ প্যাভিলিয়নে ফেরত যান। তার কিছু আগেই দীনেশ কার্তিকও ১৮টি বল খেলে কোনো রান না করেই আউট হয়ে যান। এই পরিস্থিতি সঠিকভাবে বর্ণনা করছিল যে ভারতীয় দল স্বভাবতই তাদের অধিনায়ক বিরাট কোহলির অনুপস্থিতি ভীষণভাবে মিস করছিল। ধর্মশালায় একদিনের সিরিজের এই প্রথম ম্যাচটি জিতে নিয়ে অতিথি দল এই সিরিজে ১-০ ফলাফলে এগিয়ে থাকল।

https://twitter.com/84107010ghwj/status/939780494316539904

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *