অবিশ্বাস্য কাণ্ড - টি-২০ ম্য়াচে ডাবল সেঞ্চুরি করে শোরগোল ফেলে দিলেন আফগানিস্তানের এই ক্রিকেটারটি! 1

টি-২০ ম্য়াচে ডাবল সেঞ্চুরি। শুনলেই অবাক হওয়ার বদলে, মনে কৌতূহল আসে বেশি। এমন অসাধ্য় কে সাধন করল? বরাবরই ক্রিকেট বিশ্বটা ব্য়াটসম্য়ানদের। বোলাররা কে কেমন করলেন, তা নিয়ে আদিখ্য়েতার বহরটা চোখে না পড়ার মতোই। অথচ বোলার না থাকলে বল পেটানোর জন্য় ব্য়াটসম্য়ানদের বল দেবে কে? তবুও এ স্বর্গরাজ্য়ে ব্য়াটসম্য়ানদের বিচরণ যেন ঈশ্বরতূল্য়।

২০১০ সালে শচীন যখন ক্রিকেট বিশ্বকে দেখালেন ওয়ান-ডে ক্রিকেটেও ২০০ রান করা যায়, তখন রবি শাস্ত্রীর শচীনকে নিয়া বলা উক্তিটা যেন আলাদা মাত্রা পেয়ে গিয়েছিল। আজ সাত বছর পরেও সেদিনের ওই ধারাভাষ্য়ের শব্দটা কানে গেলে শরীরে শিহরণ খেলে যায়। ফার্স্টম্য়ান ইন দ্য় প্ল্য়ানেট…অ্য়ান্ড হি ইজ দ্য় সুপারম্য়ান ফ্রম ইন্ডিয়া। নতুন নিয়মে একদিনের ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি এখন আর অসাধ্য় নয়।

অবিশ্বাস্য কাণ্ড - টি-২০ ম্য়াচে ডাবল সেঞ্চুরি করে শোরগোল ফেলে দিলেন আফগানিস্তানের এই ক্রিকেটারটি! 2

কিন্তু, টি-২০। সে তো কুড়ি ওভারের খেলা। নো-বল, ওয়াইড বল বাদ দিলে একশো কুড়ি বলে গোটা দল মারকাটারি খেলা খেলে দু-আড়াইশো রান তুলে দিলে হাড্ডাহাড্ডি খেলা। সেখানে একাই দু-শো রান। আর তা হলো এই উপমহাদেশেই। ক্রিকেট মাঠে আমাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের প্রতিবেশী দেশ। দেশটা দক্ষীণ এশিয়ার রাজনৈতিক মঞ্চে ভারতের বিশ্বস্ত বন্ধু। আফগানিস্তান। তালিবানদের হাত থেকে মুক্ত হওয়ার পর যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশটাতে শান্তির বাতাবরণ তৈরি করতে ফুটবল আর ক্রিকেট খেলা হচ্ছে। বিশ্বকাপ খেলার দৌলতে আফগানিস্তান ইতিমধ্য়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাকে বলে তার আস্বাদ পেয়ে গিয়েছে। কয়েকটি ম্য়াচে পারফরম্য়ান্সও ছিল নজরকাড়া।

শাফিকুল্লা শাফক। সাতাশ বছরের এই বাঁ-হাতি ব্য়াটসম্য়ানটির নাম এখন রেকর্ড বুকে। খতীজ ক্রিকেট অ্য়াকাডেমির এক ম্য়াচে বিধ্বংসী ইনিংস খেলে মাত্র ৭১ বলে ২১৪ রান করেন শাফক। ইনিংস সাজানো রয়েছে ২১টি বিশাল ছক্কা ও ১৬টি চারে। শাফকের এই বিধ্বংসী ব্য়াটিংয়ের দৌলতে তাঁর দল করে ৩৫১ রান তোলে। পাহাড় প্রমান এই রানের লক্ষ্য়মাত্রা তাড়া করতে নেমে বিপক্ষ দল শফক একাই যা রান করেন তার অর্ধেক রানেই গুটিয়ে যায়। ২৪৪ রানে ম্য়াচটি জিতে নেয় শফকের টিম।

অবিশ্বাস্য কাণ্ড - টি-২০ ম্য়াচে ডাবল সেঞ্চুরি করে শোরগোল ফেলে দিলেন আফগানিস্তানের এই ক্রিকেটারটি! 3

চলতি বছরে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার কোনও ব্য়াটসম্য়ান টি-২০ ক্রিকেটে দু-শো রানের গণ্ডী পেরলো। বছরের গোড়ার দিকে দিল্লির ব্য়াটসম্য়ান মোহিত অহলাওত স্থানীয় এক ম্য়াচে এই কৃতিত্ব করে দেখান।  টি-২০ ক্রিকেটে প্রথম ব্য়াটসম্য়ান হিসেবে ট্রিপল সেঞ্চুরি করেন। মাত্র ৭২ বলে ৩০০ রান করেন তিনি। ইনিংস সাজানো ৩৯টি ছয় ও ১৪টি চারে।

অবিশ্বাস্য কাণ্ড - টি-২০ ম্য়াচে ডাবল সেঞ্চুরি করে শোরগোল ফেলে দিলেন আফগানিস্তানের এই ক্রিকেটারটি! 4

ট্রিপল সেঞ্চুরির দৌলতে রাতারাতি প্রচারের আলোয় চলে আসার ফলে মোহিতকে আইপিএলের ট্রায়ালেও ডাকা হয়। ২০১৭-র আইপিএলের নিলামে তাঁকে রাখাও হয়। অবশ্য় কোনও আইপিএল ফ্র্য়াঞ্চাইজি আগ্রহ না দেখানোয় মোহিত অবিক্রিতই থেকে যান। তাঁর ভিত্তিদর ছিল দশ লক্ষ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *