ইংল্যান্ড বনাম ভারত: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব করে দেখানো দীনেশ কার্তিক বর্তমান ভারতীয় দলের একমাত্র খেলোয়াড়

ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে পাঁচ টেস্ট ম্যাচের সিরিজের শুরুয়াত হয়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত ভারতীয় দল ঘরের দলের বিরুদ্ধে দুটি ম্যাচে খেলে ফেলেছে আর দুটি ম্যাচেই তাদের হারের সম্মুখীন হতে হয়। বিরাট কোহলি অধিনায়কের দায়িত্বের সঙ্গে প্রথমবার ইংল্যান্ডে টেস্ট খেলছেন। যদি ২০১৪র কথা ধরা হয় তাহলে সেই সময় কোহলি খালি ভারতীয় দলের একজন খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন। সেই সময় দলের অধিনায়কত্ব ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির হাতে।
ইংল্যান্ড বনাম ভারত: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব করে দেখানো দীনেশ কার্তিক বর্তমান ভারতীয় দলের একমাত্র খেলোয়াড় 1
ভারত আর ইংল্যন্ডের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ১৭টি টেস্ট সিরিজ খেলা হয়েছে। যার মধ্যে ভারতীয় দল মাত্র ৩টি সিরিজই জিততে পেরেছে কিন্তু এবার অধিনায়ক কোহলি নিজের ব্যাট হাতে ভাল শুরুয়াত দিয়েছিলেন, আর আশা ছিল এবার ভারত প্রথম বার ইংল্যান্ডে বড় ব্যবধানে সিরিজ জিতবে। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে তিনি ব্যর্থ হন। শেষবার ভারতীয় দল ২০০৭এ ইংল্যান্ডে কোনও সিরিজ জিতেছিল আর দীনেশ কার্তিকই একমাত্র খেলোয়াড় যিনি বর্তমান ভারতীয় দলে আছেন, এবং সেই সিরিজেও ভারতীয় দলে ছিলেন।

এই খেলয়াড়ের পুরোনো রেকর্ড দুর্দান্ত
ইংল্যান্ড বনাম ভারত: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব করে দেখানো দীনেশ কার্তিক বর্তমান ভারতীয় দলের একমাত্র খেলোয়াড় 2
বর্তমান ভারতীয় দলে দীনেশ কার্তিকই একমাত্র প্লেয়ার যিনি ২০০৭ এও ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন। সেই সময়ও দীনেশ কার্তিক দলে একজন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের ভূমিকা পালন করেছিলেন। রাহুল দ্রাবিড়ের অধিনায়কত্বে ভারত যখন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে জয় লাভ করেছিল তখন ভারতীয় দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ছিলেন দীনেশ কার্তিক। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে শেষ বলে ছয় মেরে এই খেলোয়াড় দলকে জয় এনে দিয়েছিলেন। সেই সময়ই দীনেশ কার্তিক নির্বাচকদের নজরে ছিলেন। যার ফলেই তিনি ইংল্যান্ড সফরে দলে জায়গা পান। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভাল প্রদর্শন করা সত্ত্বেও এই খেলোয়াড় টেস্ট দলে জায়গা পেতে ব্যর্থ হন। ইংল্যান্ডের মাটিতে ২০০৭ এ হওয়া সিরিজে দীনেশ কার্তিক লর্ডসে ৬০, ট্রেন্টব্রিজে ৭৭ আর ওভালে ৯১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *