ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড: শেষ টি-২০তে সিঙ্গল না নেওয়ায় ভিলেন হওয়া দীনেশ কার্তিক করলেন খোলসা, এই কারণে নেননি এক রান

ভারতীয় ক্রিকেট দলকে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত জয়ের পর তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ১-২ ফলাফলে হারের মুখোমুখি হতে হয়। ভারতীয় দলকে হ্যামিলটনে খেলা হওয়া সিরিজের তৃতীয় আর নির্ণায়ক ম্যাচে ৪ রানের রোমাঞ্চকর হারের মুখে পড়তে হয়।

দীনেশ কার্তিকের সিঙ্গল না নেওয়া নিয়ে বাওয়াল

ভারতীয় দলের এই ম্যাচে শেষ ওভারে ১৬ রানে প্রয়োজন ছিল। ক্রিজে প্রায় এক বছর আগেই শেষ বলে ছক্কা মেরে জেতানো দীনেশ কার্তিকের সঙ্গে ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ছিলেন। যিনি ভালো ব্যাটিং করছিলেন।
ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড: শেষ টি-২০তে সিঙ্গল না নেওয়ায় ভিলেন হওয়া দীনেশ কার্তিক করলেন খোলসা, এই কারণে নেননি এক রান 1
এই দুই ব্যাটসম্যানই শেষ ওভারে দ্রুত রান করে ভারতকে জয়ের পরিস্থিতে এতদূর পৌঁছে দেন আর শেষ ওভারে দীনেশ কার্তিক স্বয়ং ব্যাটিংয়ের দায়িত্ব নিতে চাইছিলেন আর তিনি সিঙ্গল নিতে মানা করে দেন।

দীনেশ কার্তিককে মানা হচ্ছে ভিলেন

নিদাহাস ট্রফির মতই দীণেশ কার্তিক এবার তেমন কামাল দেখাতে পারেননি আর ভারতীয় দলকে হারের মুখে পড়তে হয়। এখন দীনেশ কার্তিককে সিঙ্গল না নেওয়ার কারণে ভিলেন রূপে পেশ করা হচ্ছে।
ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড: শেষ টি-২০তে সিঙ্গল না নেওয়ায় ভিলেন হওয়া দীনেশ কার্তিক করলেন খোলসা, এই কারণে নেননি এক রান 2
কিন্তু দীনেশ কার্তিক চারদিন পর এই ব্যাপারটি নিয়ে স্বয়ং খোলসা করেছেন আর জানিয়েছেন যে তিনি কেনও সিঙ্গলস রান নেননি। দীনেশ কার্তিক বলেন যে আমার মনে হয় যে ক্রুণাল আর আমি বাস্তবে সেই পরিস্থিতিতে ভালো ব্যাটিং করেছি। আমরা ম্যাচকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে সক্ষম ছিলাম যেখানে বোলাররা চাপে ছিল।

আমার মনে হয়েছিল যে আমি ওই দায়িত্ব নিতে পারি নিজের উপর

দীনেশ কার্তিক বলেন, “আমি এই দায়িত্ব নিতে নিজেকে সমর্থন করেছি। ওই সতরে আমি বাস্তবে মানতাম যে আমি ছক্কা মারতে পারি”। কার্তিক বলেন যে, “আমি সমস্ত পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত ছিলাম আর জানতাম যে আমরা দুজনে সবচেয়ে ভালো কাজ করেছি। ওই দিন আমরা ভীষণই ভালো ছিলাম না। কিন্তু সহযোগী স্টাফ, যেমনটা এটা দীর্ঘ সময় ধরে ছিল, আমাকে বুঝেছে। যেমনটা আমি বলেছি, আপনি ওই পরিস্থিতিগুলোর প্র্যাকটিস করতে থাকেন।
ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড: শেষ টি-২০তে সিঙ্গল না নেওয়ায় ভিলেন হওয়া দীনেশ কার্তিক করলেন খোলসা, এই কারণে নেননি এক রান 3
আর ওই পরিস্থিতির উপর নিয়ন্ত্রণ রাখার আমার বিশ্বাস ছিল, আমি নিজেকে মাঝে কাজ করার ভরসা দিয়েছি। আমি ওই দিন এটা দিতে সক্ষম ছিলাম না। এটা যা খেলা যত বেশি আপনি নিজেকে ফিরিয়ে আনবেন ততই সুসঙ্গতভাবে আপনি খেলাটাকে শেষ করতে সফল হবেন”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *