এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া

১৫ আগষ্ট স্বাধীনতা দিবসের বিশেষ দিনে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র ধোনি অবসর নিয়ে ফেলেছেন। এমএস ধোনি আরও একবার হঠাত করে অবসরের ঘোষণা করে নিজেকে অনিশ্চয়তার মানুষ বলে প্রমাণ করেছেন। এমএস ইনস্টাগ্রাম পোষ্টে ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ডের ভিডিয়ো পোষ্ট করে ঘোষণা করে দিয়েছেন যে তাকে সেই ৭.২৯ মিনিট থেকে অবসরপ্রাপ্ত মনে করা হোক। এখন মাহি নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার ফুলস্টপ লাগিয়ে দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিন্তু এখন টিম ইন্ডিয়ার কী হবে? এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জানাব যে এমএস ধোনির কোন ৫টি কারণে অবসর নেওয়া উচিৎ হয়নি

১. বোলারদের মুশকিল বাড়ল

এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া 1

ক্যাপ্টেন কুল নামে জনপ্রিয় মহেন্দ্র সিং ধোনির ক্রিকেট সেন্স এবং পিচ রিড করার ক্ষমতা অন্য ক্রিকেটারদের চেয়ে অনেক বেশি। আপনারা প্রায়ই দেখে থাকবে যে এমএস উইকেটকিপিং চলাকালীন বোলারদের সাহায্য করেন। আসলে উইকেটের পেছএন দাঁড়িয়ে মাহি ব্যাটসম্যানদের মুভমেন্টের উপর নিজের কড়া নজর রাখেন, আর বোলারদের উইকেট নেওয়ার এবং ফিল্ডিং সেট করতে যথেষ্ট সাহায্য করেন। কিন্তু এমএস আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন, তো স্বাভাবিকভাবেই এতে বোলারদের মুশকিল বেড়ে যাবে। সবচেয়ে বড়ো কারণ এটাই যে এখন ভারতের কাছে এমন উইকেটকিপার নেই যিনি বোলারদের সাহায্য করতে পারেন। প্রসঙ্গত কুলদীপ যাদব, যজুবেন্দ্র চহ্ল, মহম্মদ শামির মতো সমস্ত ভারতীয় বোলার এ কথা স্বীকার করেছেন যে এমএস ধোনির উইকেটের পেছনে থাকায় তাদের উইকেট পেতে সাহায্য হয়, কিন্তু এখন এই বোলারদের নিজেদেরই নিজেদের সাহায্য করতে হবে।

২. টিম ইন্ডিয়া পায়নি সঠিক বিকল্প উইকেটকিপার

এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া 2

২০০৪ এ ভারতের হয়ে ডেবিউ করার পর থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনির হাত থেকে উইকেটকিপিং গ্লাভস ছিনিয়ে নেওয়ার দাবিদারী পেশ করা কোনো দ্বিতীয় উইকেটকিপার আসেনি। তিনি ভারতের হয়ে সবচেয়ে সফল উইকেটকিপার থেকেছেন। যতই মাহি এখন অবসর নিয়ে ফেলুন কিন্তু গত এক বছর ধরেই দলে তার বিকল্প সন্ধান করা হচ্ছে আর অধিনায়ক বিরাট কোহলি ঋষভ পন্থ এবং কেএল রাহুলকে সুযোগ দিয়েছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত দল সঠিক উইকেটকিপার পায়নি। অধিনায়ক বিরাট কোহলি গত কিছুসময় ধরে কেএল রাহুলকে সুযোগ দিচ্ছেন, কিন্তু রাহুলকে এখনো তার উইকেটকিপিং স্কিল নিয়ে অনেক কাজ করতে হবে। তো অন্যদিকে ঋষভ পন্থও এখনও পরিপক্ক হননি, এই অবস্থায় মাহিকে আরও কিছু সময় টিম ইন্ডিয়ার সঙ্গে কাটাতে হত। এর মধ্যে তিনি একজন ম্যাচ উইনার উইকেটকিপার বানিয়ে তাকে দলের হাতে সঁপে যদি অবসর নিতেন তো তা ভারতীয় দলের জন্য অনেক ভালো হত, কিন্তু এমনটা হয়নি আর মাহি অবসর নিয়ে টিম ইন্ডিয়ার মুশকিল বাড়িয়ে দিয়েছেন।

৩. ভারতের কাছে নেই এমএস-এর মতো ফিনিশার

এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া 3

মহেন্দ্র সিং ধোনি ভারতের সবচেয়ে সফল উইকেটকিপারের পাশাপাশি সবচেয়ে সফল এবং বিস্ফোরক ফিনিশারও। হেলিকপ্টার শট আবিস্কার করা মাহি নীচের দিকে এসে নিজের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের সাহায্য দলের হয়ে দ্রুত গতিতে রান করতেন। এমনিতে মাহি বেশকিছু ম্যাচ শেষ পর্যন্ত নিয়ে গিয়ে দলকে জয় এনে দিয়েছেন। কিন্তু যদি আমরা ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচের কথা মনে করি তো সম্ভবত কোনো সমর্থকই মাহির ৯১ রানের বিস্ফোরক ইনিং এবং শেষের মারা ছক্কাটি ভুলতে পেরে থাকবেন। কারণ বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে কোনো চাপ ছাড়াই এমএস একটি সাহসী ইনিংস খেলেন আর দলকে খেতাবি জয় এনে দিয়েছিলেন। কিন্তু এখন নিশ্চিতভাবেই টিম ইন্ডিয়া আগামী টুর্নামেন্টগুলিতে ধোনির অভাব বোধ করবে। বর্তমান সময়ে মাহির অনুপস্থিতিতে কেএল রাহুল, হার্দিক পাণ্ডিয়া, মণীষ পান্ডের মতো বিকল্প রয়েছেন, কিন্তু এই খেলোয়াড়রা এখনো পর্যন্ত মাহির মতো ভরসা হাসিল করতে পারেননি।

৪.দলের ধোনির অভিজ্ঞতার প্রয়োজন ছিল

এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া 4

অভিজ্ঞতা এমন একটা ব্যাপার যা একজন খেলোয়াড় মাঠে বছরের পর বছর ঘাম ঝরিয়ে হাসিল করেন আর বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেটে মহেন্দ্র সিং ধোনি সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ছিলেন। এখন যখন মাহি অবসর নিয়ে ফেলেছেন, তো মাহির দলে না থাকায় দলে অভিজ্ঞতার অভাব পরিস্কার দেখা যাবে। এর সবচেয়ে বড়ো কারণ তার ১৭ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিজ্ঞতা। এমএস ১৭ বছর পর্যন্ত দেশের হয়ে ক্রিকেট খেলেছেন আর সেই সঙ্গেই ৩টি আইসিসি খেতাবও জিতেছেন। এমন অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের এভাবে অবসর নিয়ে আলাদা হওয়া মানে শরীর থেকে মাথার সরে যাওয়া। এমএসের উপস্থিতি বিরাট কোহলির জন্য যথেষ্ট সাহায্যের প্রমানিত হত। এই অবস্থায় মাহির দলে না থাকায় দল তার অভাব অনুভব করবে।

৫. আগামী টি-২০ বিশ্বকাপে পালন করতে পারতেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা

এই ৫টি কারণের কারণে মহেন্দ্র সিং ধোনির উচিৎ হয়নি অবসর নেওয়া 5

করোনা ভাইরাসের কারণে আইসিসি বিশ্বকাপ ২০২০কে স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। এখন আইসিসি দ্বারা জারি করা শিডিউলের মোতাবেক ২০২১এ ভারতের মাটিতে টি-২০ বিশ্বকাপ খেলা হবে আর এরপর ২০২২ এ অস্ট্রেলিয়া টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন করবে। পরপর ২টি বড়ো ইভেন্ট হবে আর টিম ইন্ডিয়ার কাছে না তো ধোনির উইকেটকিপিংয়ের সঠিক বিকল্প মজুত রয়েছে আর না তো এমএস এর মতো ফিনিশার। এই অবস্থায় এখন এটা বলা ভুল হবে না যে মাহির আগামী টি-২০ বিশ্বকাপে দলের অংশ হওয়া উচিৎ ছিল। কিন্তু এখন যখন মাহি গতকাল অবসর নিয়ে ফেলেছেন তো এটা স্বাভাবিক যে আগামী টি-২০ বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়া তার অভাব অনুভব করতে চলেছে। সেই সঙ্গে দলের খেতাব জেতার চান্সও কম দেখাচ্ছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *